সরকারি আদমজী নগর এম.ডব্লিউ কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Govt. Adamjeenagar M.W College
অন্যান্য নাম
এম.ডব্লিউ কলেজ
নীতিবাক্যজ্ঞান-ই শক্তি (KNOWLEDGE IS POWER)
ধরনসরকারি কলেজ
স্থাপিত১৯৮০
অধ্যক্ষনূর আক্তার
শিক্ষার্থী3,200+
ঠিকানা
আদমজীনগর, নারায়ণগঞ্জ, বাংলাদেশবাংলাদেশ
সংক্ষিপ্ত নামGAMWC
ওয়েবসাইটhttp://www.gamwc.edu.bd 

সরকারি আদমজী নগর এম.ডব্লিউ কলেজ আদমজীনগর, নারায়ণগঞ্জ, বাংলাদেশের একটি সরকারি কলেজ। এই কলেজটিতে উচ্চ-মাধ্যমিক পড়ানো হয়। কলেজটি গড়ে উঠার পিছনে রয়ছে বহু ইতিহাস।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

রাজধানী ঢাকা মহানগরী যেখানে শেষ, বন্দর নগরী নারায়ণগঞ্জের সেখানে শুরু। সিদ্ধিরগঞ্জ অঞ্চলটি এই শেষ এবং শুরুর মিলন ক্ষেত্র। এক সময়ের পৃথিবী বিখ্যাত আদমজী পাটকল যার অবস্থান ছিলো সিদ্ধিরগঞ্জে। পাটজাত পন্যের সোঁদা গন্ধ, পাটকল শ্রমিকদের বাস্তবতা আর পেশী নিংড়ানো শ্রম এবং আমাদের অর্থনীতিতে এর অবদান সিদ্ধিরগঞ্জকে দিয়েছে খ্যাতি, দিয়েছে পরিচিতি। সময়ের বিবর্তনে এখানে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বিদ্যূৎ কেন্দ্র, প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সরকারি আদমজী নগর এম.ডব্লিউ উকলেজ। এ শিক্ষাঙ্গন প্রতিষ্ঠা যাদের স্বপ্নের সোনালী ফসল তারা হলেন সিদ্ধিরগঞ্জের সুধিজন। এখন আদমজী পাটকল আর নেই। তার জায়গায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে আদমজী ইপিজেড(Adamjee EPZ)। বর্তমান কলেজটি সেই সোনালী অতীতের-ই সাক্ষ্য বহন করে চলছে। কলেজ প্রতিষ্ঠায় সুধিজনদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য এবং আদমজী পাটকলের হারিয়ে যাওয়া ব্যবসায়ি শ্রমিকদের স্মৃতি চিন্হ মিশে আছে কলেজটির নামকরণের সাথে। আদমজী জুট মিল্‌স এর পাট ব্যবসায়ি (Merchant) এর M ও শ্রমিক (Worker) এর W অক্ষরদ্বয় ধারণ করে ১৯৮০ সালে আদমজীনগরে প্রতিষ্ঠিত হয় `এম.ডব্লিউ কলেজ, নারায়ণগঞ্জ[১]

মুষ্টিমেয় শিক্ষার্থী নিয়ে শুরু হয় কলেজটির শুভযাত্রা। পরবর্তীতে ১৯৮৯ সালের ১৮ই আগষ্ট কলেজটির জাতীয়করণ করা হয়। কিন্তু সময়ের পালাবদলে কলেজে ঘটে বিরাট পরিবর্তন। বর্তমানে বহুতল ভবন, অজস্র ছাত্র-ছাত্রীর কলাকলী, অর্ধশতাধিকেরও বেশি শিক্ষক-কর্মচারী এবং বিভিন্ন কর্মকান্ডের সফলতাই বলে দেয় তার সাফল্যের অলিখিত উপাখ্যান।[২]

পাঠাগার[সম্পাদনা]

দুই নং ভবনের নিচ তলায় কলেজর একটি সমৃদ্ধ পাঠাগার রয়েছে। যেখানে বিভিন্ন বিষয়ের পাঠ্য বই সমূহ সহ ম্যাগাজিন, সাময়িকী, বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা রয়েছে। পাঠাগারের নিরিবিলি পরিবেশে ছাত্র-ছাত্রীদের বই পড়ার ব্যবস্থা রয়েছে এবং সুনির্দিষ্ট নিয়ম অনুসরণ করে শিক্ষার্থীরা বাড়িতেও বই নিয়ে যেতে পারে।

বিজ্ঞাণাগার[সম্পাদনা]

কলেজে পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, জীববিজ্ঞান, গনিত এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের সুপ্রশস্থ ল্যাবরেটরি আছে ৷ ল্যাবরেটরিতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক উন্নতমানের যন্ত্রপাতি ও উপকরণ আছে। মাল্টিমিডিয়া প্ৰজেক্টরের মাধ্যমে বিজ্ঞানের জটিল বিষয়সমূহের পাঠদানের ব্যবস্থা রয়েছে।


তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "আদমজী জুট মিল্‌স - উইকিপিডিয়া"bn.m.wikipedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-০৩ 
  2. "আদমজী জুট মিল্‌স - উইকিপিডিয়া"bn.m.wikipedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৫-০৩