শেখ ইব্রাহীম আল ইব্রাহীম মসজিদ

স্থানাঙ্ক: ১০°৩০′৬″ উত্তর ৬৬°৫৩′৪৩″ পশ্চিম / ১০.৫০১৬৭° উত্তর ৬৬.৮৯৫২৮° পশ্চিম / 10.50167; -66.89528
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শেখ ইব্রাহীম আল ইব্রাহীম মসজিদ
Fachada Mezquita Ibrahim Al-lbrahim.JPG
শেখ ইব্রাহীম আল ইব্রাহীম মসজিদ
অবস্থান
অবস্থানকারাকাস, ভেনেজুয়েলা
ভৌগোলিক স্থানাঙ্ক১০°৩০′৬″ উত্তর ৬৬°৫৩′৪৩″ পশ্চিম / ১০.৫০১৬৭° উত্তর ৬৬.৮৯৫২৮° পশ্চিম / 10.50167; -66.89528
স্থাপত্য
স্থপতিজুহাইর ফায়েজ
ধরনমসজিদ
সম্পূর্ণ হয়১৯৯৩
নির্দিষ্টকরণ
ধারণ ক্ষমতা৩৫০০
মিনারসমূহ
মিনারের উচ্চতা১১৩ মিটার

ইব্রাহীম ইবনে আব্দুল আজিজ আল ইব্রাহীম মসজিদ ভেনেজুয়েলার একটি  দৃষ্টিনন্দন মুসলিম স্থাপনা। মসজিদটি কারাকাসের এল রেক্রিও জেলায় অবস্থিত যা লাতিন আমেরিকার দ্বিতীয় বৃহত্তম মসজিদ। প্রথম স্থানে আছে ব্যুয়েন্স আয়ার্সে অবস্থিত বাদশাহ ফাহাদ ইসলামিক কালচারার সেন্টার।

বর্ণনা[সম্পাদনা]

শেখ ইব্রাহীম আল ইব্রাহীম মসজিদ

১৯৮৯ সালে শেখ ইব্রাহীম ইবনে আব্দুল আজিজ আল ইব্রাহীম এই মসজিদ নির্মাণের কাজ শুরু করেন। মসজিদের নকশা তৈরী করেন বিখ্যাত স্থপতী জুহাইর ফায়েজ। তার নকশা অনুযায়ী মসজিদের মিনার ১১৩ মিটার উঁচু এবং গম্বুজ ২৩ মিটার উঁচু। মোট এলাকার পরিমাণ ৫০০০ বর্গফুট। ১৯৯৩ সালে কর্তৃপক্ষ মসজিদ নির্মাণের কাজ সমাপ্ত ঘোষণা করে। এখানে এক সাথে ৩৫০০ জন মানুষ নামায আদায় করতে পারেন। মসজিদের মিনারটি লাতিন আমেরিকার অন্যতম উঁচু মিনার হিসেবে স্বীকৃত। [১]

৪ বছরের মসজিদ নির্মাণ প্রজেক্ট শেষে মার্চ ১৯৯৩ সালে কারাকাস ইসলামিক সেন্টারের উদ্ভোধনী ভাষণে ভেনেজুয়েলার ইসলামিক সেন্টারের প্রেসিডেন্ট হাসান মাজজুব, "এটা একটা স্বপ্নের মত, যা সত্য হয়ে আমাদের কাছে এসেছে।" 

হাসান মাজজুব, যিনি ১৯৬৮ সালে লেবানন থেকে ভেনেজুয়েলায় আসেন, পেশায় একজন দোকানদার। তিনি বিশ্বাস করতেন যে ভেনেজুয়েলার মুসলিমদের সংখ্যা খুব তাড়াতাড়ি আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল এবং যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিদের চেয়ে সংখ্যায় বেশি হয়ে যাবে। 

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]