শীতল বায়ুরেখা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আবহাওয়া সার্ভিসের মানচিত্রে একটি শীতল বায়ুরেখা, ৩ এপ্রিল, ২০১১। সরু নীল রেখাটি হচ্ছে শীতল বায়ুরেখা। রেখার পেছনে গুরুতর ঝড় সৃষ্টি হতে দেখা যাচ্ছে যা ডানে নিচ কোণার দিকে প্রবাহিত হবে।

শীতল বায়ুরেখা (ইংরেজি ভাষায়: Cold front) আবহাওয়া বিজ্ঞান সহ বিজ্ঞানের বেশ কিছু শাখার একটি গুরুত্বপূর্ণ ধারণা। একটি অপেক্ষাকৃত শীতল এবং অগ্রসরমান বায়ুর অগ্রভাগের সীমারেখাকেই শীতল বায়ুরেখা বলা হয়। এই রেখার পূর্বে অবস্থিত অগ্রসরমান বায়ুর ঘনত্ব বেশি হওয়া সত্ত্বেও তাপমাত্রা কম হয়, কিন্তু রেখাটির পরে অবস্থিত বায়ুর ঘনত্ব কম ও তাপমাত্রা বেশি হয় যা অভিঘাত তরঙ্গের বিপরীত।

বহিঃছায়াপথীয় জ্যোতির্বিজ্ঞান বিশেষ করে ছায়াপথ স্তবক গবেষণায়ও ধারণাটি উপযোগী। অনেক ছায়াপথ স্তবকে এমন গ্যাসীয় অঞ্চল পাওয়া গেছে যা সামনের দিকে এগোতে গিয়ে শীতল বায়ুরেখা তৈরি করছে। এমন শীতল বায়ুরেখার প্রথম অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছিল এবেল ২১৪২ নামক একটি সংঘর্ষরত ছায়াপথ স্তবকে।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. M. Markevitch এবং অন্যরা, Chandra Observation of Abell 2142: Survival of Dense Subcluster Cores in a Merger, Astrophysics Journal, 541, 542

বহিসংযোগ[সম্পাদনা]