লায়লা সিদ্দিকী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লায়লা সিদ্দিকী
টাঙ্গাইল-৪ আসনের সংসদ সদস্য
ব্যক্তিগত বিবরণ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
দাম্পত্য সঙ্গীআব্দুল লতিফ সিদ্দিকী

লায়লা সিদ্দিকী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিবিদ এবং টাঙ্গাইল-৪ এর একজন সাবেক সংসদ সদস্য।

পেশা[সম্পাদনা]

১৯৮৮ সালে নারী সংরক্ষিত আসনে টাঙ্গাইল-৪ থেকে লায়লা সিদ্দিকী সংসদে নির্বাচিত হন। [১] [২] তিনি ১১ জানুয়ারী ২০০৭ তারিখে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে তিনি একজন, যিনি টাঙ্গাইলে ১০০ জন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের সদস্য গ্রহন করেন। [৩] ১১ জানুয়ারী ২০১৪ তারিখে তার স্বামী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী হজ্জ, তাবলিগ জামাত এবং সজীব ওয়াজেদ জয়কে নিউইয়র্ক সিটিতে সমালোচনা করার জন্য গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি যুক্তি দেন, তার স্বামী বিরুদ্ধে মামলাগুলি অসাংবিধানিক কারণ, বাংলাদেশের বাইরে সংঘটিত অপরাধগুলো, বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী ব্যক্তিদের অভিযুক্ত করার আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন আছে। [৪]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

লায়লা সিদ্দিকী সাবেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবন্ধ হয়েছেন। [২] [৫] তাদের একটি ছেলে আছে নাম আনিক সিদ্দিকী। [৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "3rd Parliament" (PDF)parliament.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৮ 
  2. "Expelled Awami League leader, ex-minister Latif Siddique resigns from Parliament"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৮ 
  3. "100 BNP men join AL in Tangail"archive.thedailystar.net। The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৮ 
  4. "Latif's wife serves legal notice to govt"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১১ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৮ 
  5. "Latif Siddique opposes AD verdict"New Age (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৮ 
  6. "AL grassroots oppose ?loud? Latif's return"observerbd.com। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০১৮