রুশ–পোলিশ যুদ্ধ (১৬৫৪–১৬৬৭)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রুশ–পোলিশ যুদ্ধ (১৬৫৪–১৬৬৭)
মূল যুদ্ধ: রুশ–পোলিশ যুদ্ধসমূহ
Jan Chryzostom Pasek pod Lachowiczami.JPG
পোলোঙ্কার যুদ্ধে জান স্রিজোস্টোম পাসেক
তারিখ১৬৫৪–১৬৬৭
অবস্থান
ফলাফল

রুশ বিজয়

অধিকৃত
এলাকার
পরিবর্তন
পূর্ব ইউক্রেন রাশিয়ার হস্তগত হয়
বিবাদমান পক্ষ
Imperial Coat of arms of Russia (17th century).svg রাশিয়া
Herb Viyska Zaporozkogo (Alex K).svg কসাক হেটমানাত
Herb Rzeczypospolitej Obojga Narodow.svg পোল্যান্ড–লিথুয়ানিয়া
Gerae-tamga.svg ক্রিমিয়ান খানাত
Herb Viyska Zaporozkogo (Alex K).svg কসাক হেটমানাত
সেনাধিপতি ও নেতৃত্ব প্রদানকারী
আলেক্সেই ত্রুবেতস্কোয়
বোহদান খেমেলনিতস্কি
ইউরি খেমেলনিতস্কি
ভ্যাসিলি শেরেমেতভ
ভ্যাসিলি বুতুর্লিন
আইভান খোভানস্কি
ইউরি দোলগোরুকভ
ইয়াকোভ চের্কাসস্কি
স্টেফান জার্নিয়েকি
ভিনসেন্টি গোসিয়েভস্কি
জন কাসিমির
স্টানিস্লাভ লাঙ্কোরোনস্কি
জের্জি লুবোমিরস্কি
মিশাল কাজিমিয়ের্জ
আলেকজান্ডার পোলুবিনস্কি
স্টানিস্লাভ পোটোকি
জানুসজ রাদজিভিল
পাভেল সাপিয়েহা
আইভান ভিহোভস্কি
পাভলো তেতেরিয়া
পেত্রো দোরোশেঙ্কো
রুশ–পোলিশ যুদ্ধ (১৬৫৪–১৬৬৭)

রুশ–পোলিশ যুদ্ধ (১৬৫৪–১৬৬৭), তের বছরের যুদ্ধ[১], উত্তরের প্রথম যুদ্ধ[১] অথবা ইউক্রেনের জন্য যুদ্ধ ছিল রাশিয়াপোল্যান্ড–লিথুয়ানিয়ার মধ্যে সংঘটিত একটি গুরুত্বপূর্ণ যুদ্ধ। পোল্যান্ড–লিথুয়ানিয়া প্রথমদিকের কয়েকটি খণ্ডযুদ্ধে পরাজিত হলেও পরবর্তীতে ক্রমশ বিজয়ী হতে থাকে। কিন্তু পোল্যান্ড–লিথুয়ানিয়ার দুর্বল অর্থনীতি, অভ্যন্তরীণ সঙ্কট ও গৃহযুদ্ধের ফলে তারা যুদ্ধবিরতিতে স্বাক্ষর করতে বাধ্য হয়। এই যুদ্ধের ফলে রাশিয়া বিরাট একটি অঞ্চল লাভ করে এবং পূর্ব ইউরোপে একটি নতুন বৃহৎ শক্তি হিসেবে আবির্ভূত হয়।

পটভূমি[সম্পাদনা]

পোল্যান্ড–লিথুয়ানিয়া আক্রমণ[সম্পাদনা]

১৬৫৫ সালের অভিযান[সম্পাদনা]

যুদ্ধবিরতি[সম্পাদনা]

ভিহোভস্কির বিরুদ্ধে অভিযান[সম্পাদনা]

ভাগ্যের পরিবর্তন[সম্পাদনা]

যুদ্ধের সমাপ্তি[সম্পাদনা]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Frost, Robert I (২০০০)। The Northern Wars. War, State and Society in Northeastern Europe 1558–1721। Longman। পৃষ্ঠা 13আইএসবিএন 978-0-582-06429-4