রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
Royal Brunei Airlines
250px
আইএটিএ আইসিএও কলসাইন
BI RBA BRUNEI
প্রতিষ্ঠাকাল ১৮ নভেম্বর 1974; ৪৩ বছর আগে (1974-১১-18)
কার্যক্রম শুরু ১৪ মে ১৯৭৫ (১৯৭৫-০৫-১৪)
হাবসমূহ Brunei International Airport
নিয়মানুযায়ী উড়ান পরিকল্পনা Royal Skies
এয়ারপোর্ট লাউঞ্জ Sky Lounge
বহরে বিমানের সংখ্যা 10
গন্তব্যসমূহ 16
প্যারেন্ট কোম্পানি Government of Brunei
প্রধান কার্যালয় Bandar Seri Begawan, Brunei
গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি

Dato Paduka Haji Bahrin bin Abdullah (Chairman)[১]

Karam Chand (CEO)
ওয়েবসাইট www.flyroyalbrunei.com

রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্স হচ্ছে ব্রুনাই দারুসসালাম এর জাতীয় পতাকা বহনকারী এয়ারলাইন, যার হেডকোয়ার্টার বন্দর সেরি বেগাওয়ান এর আর বি প্লাজাতে অবস্থিত । এয়ারলাইন্সটি সম্পূর্ণভাবে ব্রুনাই সরকার এর নিয়ন্ত্রনাধীন । এর প্রধান কেন্দ্রস্থল হচ্ছে বেরাকাস এ অবস্থিত ব্রুনাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে, যা ব্রুনাই এর রাজধানী বন্দর সেরি বেগাওয়ান এ অবস্থিত ।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্স ১৯৭৪ সালের ১৮ নভেম্বর দুটি নতুন বোয়িং ৭৩৭-২০০এস নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় ।[২] এয়ারলাইন্সটির প্রথম ফ্লাইট পরিচালিত হয়েছিলো ১৯৭৫ সালের ১৪ মে ব্রুনাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হতে সিঙ্গাপুরে । একই দিনে তৎকালীন বিট্রিশ কলোনী হংকং এবং পুর্ব মালয়েশিয়া(মালয়েশিয়ান বোর্নিও) এর দুটি শহর কোটা কিনাবালু এবং কুচিং এ ফ্লাইট পরিচালিত হয় ।

প্রথমদিকে বিভিন্ন গন্তব্যে ফ্লাইট সংখ্যা বাড়ানোর ক্ষেত্রে ১৯৭৬ সালে ম্যানিলাতে এবং ১৯৭৭ সালে ব্যাংককে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করা হয় । তিন বছর পর রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্স একটি বোয়িং ৭৩৭-২০০কিউ সি-যা ছিলো এর তৃতীয় বোয়িং-যা এয়ারলাইনটিকে ১৯৮১ সালে কুয়ালালামপুর এবং ১৯৮৩ সালে পোর্ট ডারউইনে ফ্লাইট পরিচালনায় সহায়তা করে ।

সাবসিডিয়ারি[সম্পাদনা]

রয়েল ব্রুনাই এর সাবসিডিয়ারিগুলো হল এয়ারলাইনটিকে সাপোর্ট করার জন্য এর অধীনস্থ অঙ্গসংগঠনগুলো । এদের মধ্যে রয়েছে রয়েল ব্রুনাই ক্যাটারিং, যা ফ্লাইটগুলোতে পরিবেশনকৃত খাবার প্রস্তুত এবং সরবরাহের কাজে নিয়োজিত । এছাড়া রয়েছে রয়েল ব্রুনাই ইঞ্জিনিয়ারিং, যা এয়ারলাইনটি দ্বারা পরিচালিত বিমানগুলো রক্ষণাবেক্ষন এবং তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে ।

গন্তব্যস্থলসমূহ[সম্পাদনা]

২০১৪ সালের জুলাই মাস অনুসারে রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্সের বিমানগুলো নিচের দেশগুলোর বিভিন্ন শহরে ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে । [৩]

অস্ট্রেলিয়া, মায়ানমার, চীন, জার্মানি, হংকং, ইন্ডিয়া, ইন্দোনেশিয়া, জাপান, কুয়েত, মালয়েশিয়া, নিউজিল্যান্ড, ফিলিপাইন, সৌদি আরব, সিঙ্গাপুর, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাজ্য, ভিয়েতনাম ।

কোডশেয়ার চুক্তি[সম্পাদনা]

২০১১ সাল অনুসারে রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্স এর সাথে নিচের বিমানসংস্থাগুলোর কোড শেয়ার চুক্তি বিদ্যমান রয়েছে ।[৪]

  • ক্যাথি প্যাসিফিক/ড্রাগনএয়ার
  • গারুডা ইন্দোনেশিয়া
  • হংকং এয়ারলাইন্স [৫]
  • মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্স
  • দ্যা এয়ারওয়েজ ইন্টারন্যাশনাল
  • মাসউইংস
  • মায়ানমার এয়ারওয়েজ ইন্টারন্যাশনাল
  • টার্কিশ এয়ারলাইন্স

পরিচালিত বিমানসমূহ[সম্পাদনা]

২০১৫ সালের ডিসেম্বর অনুসারে রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্স এর বিমানবহরে নিন্মলিখিত বিমানগুলো রয়েছে: এয়ারবাস এ৩২০-২০০, এয়ারবাস এ৩২০নিও, বোয়িং ৭৮৭-৮

২০০৯ সালে রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্স এর পাঁচটি নতুন বোয়িং ৭৮৭-৮ বিমান লীজ নেয়ার কথা ছিল, তবে এ সময়টি পিছিয়ে ২০১৩/২০১৪ সালের দিকে চলে যায় ।

পূর্বের পরিচালিত বিমানসমূহ[সম্পাদনা]

রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্স এর দ্বারা বিগত বিভিন্ন সময়ে নিচের বিমানগুলো পরিচালিত হয়েছে:

  • বোয়িং ৭৩৭-২০০
  • বোয়িং ৭২৭-২০০
  • বোয়িং ৭৬৭-২০০/২০০ইআর
  • বোয়িং ৭৬৭-৩০০ইআর
  • বোয়িং ৭৭৭-২০০ইআর
  • ফকার ৫০
  • ফকার ১০০

কেবিন[সম্পাদনা]

বিজনেস ক্লাস বোয়িং ৭৮৭এস বিজনেস ক্লাস এর আসনগুলো সম্পূর্ণ বিছানার মতো ফ্ল্যাট করে ব্যবহার করা সম্ভব । প্রতিটি আসনের সাথে একটি ১৫.৪ ইঞ্চি, ডুয়ো ফাংশন ইন সিট পারসোনাল টিভি(টাচ স্ক্রীণ এবং রিমোট কন্ট্রোল সুবিধা সম্বলিত)এবং ইন-সিট পাওয়ার আউটলেট সুবিধা বিদ্যমান ।

ইকোনমি ক্লাস বোয়িং ৭৮৭এস ইকোনমি ক্লাস এর আসনগুলো এর অবস্থান থেকে ৬ ইঞ্চি হেলানো সম্ভব । প্রতিটি আসনের সাথে ৯ ইঞ্চি, টাচ স্ক্রীণ ইন-সিট পারসোনাল টিভি রয়েছে যেক্ষেত্রে ইউএসবি চার্জিং সুবিধা এবং ইন-সিট পাওয়ার আউটলেট সুবিধা বিদ্যমান ।

সার্ভিসসমূহ ভ্রমণাবস্থায় ক্যাটারিং যেহেতু ব্রুনাই এ অ্যালকোহল বিক্রয় নিষিদ্ধ, সেজন্য রয়েল ব্রুনাই এয়ারলাইন্সের বিমানগুলোতে ফ্লাইটের সময় অ্যালকোহল পরিবেশন করা হয় না । তবে, যাত্রীরা তাদের নিজেদের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে অ্যালকোহল জাতীয় পানীয় নিয়ে আসতে পারে এবং ভ্রমণাবস্থায় পান করতেপারে । এছাড়া, বিমানে পরিবেশনকৃত সকল খাবারের ক্ষেত্রে হালাল খাবার পরিবেশন করা হয় ।

ভ্রমণাবস্থায় বিনোদন[সম্পাদনা]

সাধারণভাবে ব্রুনাই এয়ারলাইন্সের যাত্রীদের আনন্দদায়ক ভ্রমণের উদ্দেশ্যে অডিও, ভিডিও, মিউজিক, গেমস ইত্যাদি বিনোদনের ব্যবস্থা রয়েছে ।

রেফারেন্স[সম্পাদনা]

  1. "Management"। Royal Brunei Airlines। সংগৃহীত ৭ ডিসেম্বর ২০১০ 
  2. "OIL-FIRED AMBITION"Flight International। সেপ্টেম্বর ১৯৯০। সংগৃহীত ৩ অক্টোবর ২০১৬ 
  3. "Royal Brunei Air Destination"। cleartrip.com। সংগৃহীত ৩ অক্টোবর ২০১৬ 
  4. "Vietnam Airlines – Details and Fleet History"। Planespotters.net। সংগৃহীত ৩ অক্টোবর ২০১৬ 
  5. "Royal Brunei Airlines receives first of two used Fokker 100s"Flight International। ডিসেম্বর ১৯৯৬। সংগৃহীত ৩ অক্টোবর ২০১৬