মায়া (পরিগণনা)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

মায়া ছিল একটি ব্যক্তিগত বুদ্ধিমান সহযোগী, যা  মোটোরোলা কর্তৃক উন্নয়ন সাধন হয়েছিল। এই প্রোগরামের জন্য প্রস্তাবিত বৈশিষ্ট্য ছিল, এটি দিনের ২৪ ঘণ্টা ইমেইল পড়তে পারবে এবং প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবে। মায়া একটি ইন্টারনেট পরিসেবার সাথে কাজ উদ্দেশ্য ছিল, যা মোটোরোলা তৈরি করতেছিল। এই ইন্টারনেট পরিসেবাকে মায়োস্ফিয়ার বলে।মোটোরোলা পরিকল্পনা করেছিল মায়া হবে একটি প্রদত্ত সেবা, যা অবশেষে অন্যান্য বাহক কর্তৃক ব্যবহৃত হবে।  মায়াকে বিজ্ঞাপনে উপস্থাপন করার জন্য একটি মহিলা কম্পিউটার-জেনারেটেড (কম্পিউটার-জেনারেটেড ইমেইজারি হচ্ছে কম্পিউটার গ্রাফিক্স এপ্লিকেশন যা চারু ও কারু কলা, প্রিন্ট মিডিয়া, ভিডিও গেম, চলচ্চিত্র, টেলিভিশন অনুষ্ঠান, বিজ্ঞাপন, ভিডিও, এবং সিমুলেটর এর জন্য ইমেইজ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।) অক্ষর তৈরি করা হয়েছিল। যদিও অক্ষর অ্যানিমেশনর মান প্রশংসিত হয়েছিল, অতিরিক্ত যৌন উদ্দীপক হওয়ায় সমালোচিত হয়েছিল।

২০০০ সালে মার্চে  কম্পিউটার-জেনারেটেড অক্ষর এবং প্রোগ্রাম উভই একটি বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে জনসম্মুখে উন্মোচিত হয়েছিল, যদিও প্রোগ্রাম সে সময়ে ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত ছিল না।  ঘোষণাটি যথেষ্ট পরিমাণ মনোযোগ আকর্ষণ করা সত্ত্বেও পরবর্তী মাসে প্রকল্প সংক্রান্ত সামান্য তথ্য পাওয়া গিয়েছিল। প্রোগ্রামটি আনুষ্ঠানিকভাবে কখনো উন্মোচন বা বাতিল করা হয়নি। যদিও ২০০২ সালে  মায়োস্ফিয়ার এবং মায়া উভয়েরই ট্রেডমার্ক মোটোরোলা কর্তৃক বাতিল করা হয়। বিশ্বাস করা হত মায়া নামটি 'My assistant' শব্দ সমূহে একটি খেলা।

প্রস্তাবিত বৈশিষ্ট্য ও উন্নয়ন[সম্পাদনা]

মায়ার জন্য যে ইন্টারনেট সেবা বিকশিত হয় তাকে মায়োস্ফিয়ার বলে।[১][২] ১৯৯৮ সালে মোটোরোলা মায়োস্ফিয়ারের উন্নয়ন শুরু করেছিল। এটি একটি স্পিচ সক্রিয় পরিষেবা হিসেবে তুলে ধরা হয়  "যা ভোক্তাদের প্রাকৃতিক ভয়েস কমান্ড ব্যবহার প্রবেশের একটি একক বিন্দু থেকে বেতার এবং ওয়ারলাইন যোগাযোগ পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণে সক্ষম করে।"[৩] ঐ সময়ে ইতিমধ্যে কিছু কোম্পানী অনুরূপ সফটওয়্যারের জন্য পরিকল্পনা ঘোষণা করেছিল। মোটোরোলার মায়োস্ফিয়ারের ঘোষণায় ওয়্যারলেস ইন্টারনেট এবং মোবাইল কম্পিউটিং থেকে অ্যালান রেইটার হতবম্ভ হয়েছিল। তারা বলেছিল, "মোটোরোলা ভয়েজ এক্টিভেশন দলে এক ধরণের দেরি করেছে। কিন্তু দলটি খুব বড় হতে পারে। ... মোটোরোলার প্রবেশ ভয়েস রেসপন্স সিস্টেমের মান আরও বৈধ করতে সাহায্য করবে। কিন্তু এটি একটি কঠিন বাজার, এবং এটাতে সময় লাগবে।" মায়োস্ফিয়ার শব্দটি, "ঐ বিষয়বস্তুয়ে একজন ব্যক্তি জগতের উপাদান সংযোগের একটি খেলা ছিল"[৪]

মোটোরোলা মনস্থ করেছিল মায়া ইন্টারনেটের সাথে একজন মানুষের মত ইন্টারফেস প্রদান করবে।[৫][৬] মায়া একটি টোল-ফ্রি টেলিফোন নম্বর ও একটি পিন কোডের মাধ্যমে প্রবেশ করবে।[৭] প্রোগ্রামটি ল্যান্ডলাইন সহ যেকোন ফোনে কাজ করার জন্য পরিকল্পনা করা হয়েছিল।কিন্তু প্রাথমিকভাবে মোবাইলের জন্য পরিকল্পনা করা হয়েছিল।[৮] এবং দিনে ২৪ ঘণ্টা প্রবেশের ব্যবস্থা ছিল।[৯] মায়া স্টকের মূল্য, খবর, খেলাধুলা, আবহাওয়া, ট্রাফিক, বিমান রিজার্ভেশন, ঠিকানা, এবং কলকব্জা বিষয় সমূহের উপর প্রশ্নের উত্তর দিতে সক্ষম বলা হত,[১০] এবং মোবাইল ফোনের এড্রেস বুকে থাকা নাম্বার সমূহে ফোন দিতে সক্ষম ছিল।[১১]

ক্যারেক্টার[সম্পাদনা]

আত্মপ্রকাশ এবং উপস্থিতি[সম্পাদনা]

রিসেপশন[সম্পাদনা]

ক্যারেক্টার[সম্পাদনা]

ঘোষিত প্রোগ্রাম[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Dixon, Steve (2007).
  2. Barboza, David (April 25, 2000).
  3. "Motorola trials Myosphere for Internet mobile comms". v3.co.uk.
  4. Zajac, Andrew (August 4, 1998).
  5. Vertinsky, Patricia; Hargreaves, Jennifer (2006).
  6. Michitaka, Hirose (2001).
  7. Grumet, Tobey (1 July 2000).
  8. Sullivan, John (April 17, 2000).
  9. Grumet, Tobey (November 2000).
  10. ""Virtual Sensation," Mya Makes Her Debut At the Oscars; Motorola Announces Its First Cyber-Assistant".
  11. Johnston, Margret (April 19, 2001).

গ্রন্থপঞ্জি Matrix, Sidney (2006). Cyberpop: Digital Lifestyles and Commodity Culture. Routledge. ASIN B00CX0JFL0.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

ওয়েব্যাক মেশিনঅফিসিয়াল ওয়েবসাইট