মহিলাদের টেনিস অ্যাসোসিয়েশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
ওমেন্স টেনিস অ্যাসোসিয়েশ
ডব্লিউটিএ
100
ক্রীড়া পেশাদার টেনিস
প্রতিষ্ঠাকাল ১৯৭৩
অবস্থান St. Petersburg
চেয়ারম্যান স্টেসি অ্যালাস্টার
মুখ্য নির্বাহী স্টেসি অ্যালাস্টার
অফিসিয়াল ওয়েবসাইট
www.wtatennis.com

ওমেন্স টেনিস অ্যাসোসিয়েশন (ইংরেজীতে: Women's Tennis Association) বা সংক্ষেপে ডব্লিউটিএ (WTA), ১৯৭৩ সালে বিলি জিন কিং কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত পেশাদার মহিলা টেনিস খেলোয়ারদের একটি সংস্থা। এটি ডব্লিউটিএ ট্যুর আয়োজন করে থাকে। ডব্লিউটিএ ট্যুর হল বিশ্বব্যাপী অনুষ্ঠিত মহিলা টেনিস খেলোয়াড়দের টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপ যা এই সংস্থা আয়োজন করে থাকে।

১৯৭৩ সালের জুনে ডব্লিউটিএ প্রতিষ্ঠা হলেও ডব্লিউটিএ-এর ইতিহাসের সূচনা হয় টেক্সাসের হিউস্টনে, যখন টেনিস তারকা গ্ল্যাডিস হেল্ডম্যান ১৯৭০ সালের সেপ্টেম্বরে ভার্জিনিয়া স্লিমস টুর্নেমেন্টের আয়োজন করেন। ডব্লিউটিএ-এর প্রধান দপ্তর ফ্লোরিডার সেন্ট পিটার্সবার্গে অবস্থিত। এর ইউরোপিয়ান দপ্তর লন্ডনে এবং এশিয়া প্রশান্ত-মহাসাগরীয় দপ্তর বেইজিং-এ অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ওপেন এরা বা টেনিসের উন্মুক্ত যুগ পেশাদার খেলোয়ারদদেরকে নতুন খেলোয়াড়দের সাথে প্রতিযোগীতা করার সুযোগ করে দেয়, যা আগে সম্ভব ছিল না। প্রথম ওপেন টুর্নামেন্ট ইংল্যান্ডের বার্নিমাউথে অনুষ্ঠিত হয়। এই যুগের শুরুতে বিশ্বব্যাপী দুইটি পেশাদার টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপ প্রচলিত ছিল, একটি ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ টেনিস যা শুধু পুরুষদের জন্য এবং অন্যটি ন্যাশনাল টেনিস লীগ।। অ্যান জোন্স, রোশেল ক্যাসেলস, ফ্রাঙ্কোইস ডার এবং বিলি জিন কিং এনটিএল-এ যোগ দেন। বিলি জিনকে তখন প্রতি বছর ৪০০০০ মার্কিন ডলার দেয়া হত, জোন্সকে দেয়া হত ২৫০০০ এবং ক্যাসেলস ও ডারকে ২০০০০ ডলার করে দেয়া হত। এই গ্রুপটি প্রতিষ্ঠিত টুর্নামেন্ট যেমন ইউএস ওপেন এবং উইম্বেলডনেও অংশ নেয়। তবে তারা নিজস্ব টুর্নামেন্টও আয়োজন করে। ইন্টারন্যাশনাল টেনিস ফেডারেশন তখন তাদের ওপর কিছু নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যার ফলে তারা উইটম্যান কাপে খেলতে পারেনি।

১৯৭০ নাগাদ এই বৈষম্য আরো প্রকট হয়। বিলি জিন বলেছিলেন, “ব্যবসায়ীরা আরো অর্থ যোগাচ্ছিলেন, পুরুষ টেনিস খেলোয়াড়রা আরো অর্থ উপার্জন করছিলেন। সবাই উপার্জন করছিলেন, কেবল নারীরা ব্যতীত।“ ১৯৬৯ সালে মাঝারি ও ছোট টুর্নামেন্টগুলোতে পুরুষ ও নারী খেলোয়াড়দের প্রদান করা অর্থের অনুপাত ছিল ৫:১। ১৯৭০ সালে এই অনুপাত ছিল ৮:১ এমনকি কোন কোন ক্ষেত্রে ১২:১।

১৯৭০ সালে মার্গারেট কোর্ট গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয় করেন এবং মাত্র ১৫০০০ ডলার বোনাস হিসেবে পান। যেখানে পুরুষ খেলোয়াড়রা বোনাস হিসেবে ১ মিলিয়ন ডলার পর্যন্ত পেতেন। ১৯৭০ সালে অনুষ্ঠিত ইউএস ওপেনেও এই ধরণের বৈষম্য দেখা যায়। প্যাসিফিক সাউথওয়েস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে পুরুষ ও নারী খেলোয়াড়দের প্রদান করা অর্থের অনুপাত ছিল প্রায় ১২:১। বেশ কয়েকজন নারী খেলোয়াড় সেসময় গ্ল্যাডিস হেল্ডম্যানের সাথে যোগাযোগ করেন। গ্ল্যাডিস ছিলেন ওয়ার্ল্ড টেনিস ম্যাগাজিনের প্রকাশক। তারা গ্ল্যাডিসকে বলেন যে এই চ্যাম্পিয়নশিপ তারা বয়কট করতে চান। তখন প্রাথমিকভাবে গ্ল্যাডিস এর বিপক্ষে বললেও তিনি ১৯৭০ হিউস্টন ওমেন্স ইনভাইটেশন আয়োজন করেন যাতে নয়জন নারী খেলোয়াড় অংশ নেন। এই নয়জন খেলোয়াড় এবং গ্ল্যাডিস পরে নারীদের জন্য ভার্জিনিয়া স্লিমস সার্কিট ট্যুরের আয়োজন করেন। এটাই পরবর্তিতে ডব্লিউটএ ট্যুরে রূপ নেয়। এই সার্কিটে ছিল ১৯টি টুর্নামেন্ট। সবগুলো টুর্নামেন্টই যুক্ত্ররাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হত এবং প্রাইজ মানির পরিমাণ ছিল ৩০৯,১০০ ডলার।[১]

১৯৭৩ উইম্বেলডন চ্যাম্পিয়নশিপের এক সপ্তাহ আগে বিলি জিন কিং কর্তৃক আয়োজিত একটি মিটিং-এ ডব্লিউটিএ প্রতিষ্ঠিত হয়। মিটিংটি লন্ডনের একটি হোটেলে হয়। ডব্লিউটিএ একটি টেলিভিশন চ্যানেলের সাথে চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে অর্থের ব্যবস্থা করে। এছাড়া আর নানা আর্থিক নিশ্চয়তার ব্যবস্থা করা হয়। ১৯৭৬ সালে কোলগেট ডব্লিউটিএ সার্কিটের পৃষ্ঠপোশকতা করে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The Tour Story"। Women's Tennis Association (WTA)। ২০০৮-০৫-২৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৯-১২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]