ভরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ভরি (Bhori) হলো স্বর্ণালঙ্কার কিংবা রৌপ্যালঙ্কার বা রূপা পরিমাপের প্রচলিত একক।

০৬ রতি = ০১ আনা;
১৬ আনা = ০১ ভরি;
০১ ভরি = ১১.৬৬ গ্রাম(প্রায়)
০১ কেজি= ৮৫.৭৩ ভরি (প্রায়)


  • ১০ ক্যারেট স্বর্ণে আছে : ১০ অংশ স্বর্ণ + ১৪ অংশ এলোয় (খাদ বা ধাতু)
  • ১৪ ক্যারেট স্বর্ণে আছে : ১৪ অংশ স্বর্ণ + ১০ অংশ এলোয় (খাদ বা ধাতু)
  • ১৮ ক্যারেট স্বর্ণে আছে : ১৮ অংশ স্বর্ণ + ৬ অংশ এলোয় (খাদ বা ধাতু)
  • ২০ ক্যারেট স্বর্ণে আছে : ২০ অংশ স্বর্ণ + ৪ অংশ এলোয় (খাদ বা ধাতু)
  • ২২ ক্যারেট স্বর্ণে আছে : ২২ অংশ স্বর্ণ + ২ অংশ এলোয় (খাদ বা ধাতু)
  • ২৪ ক্যারেট স্বর্ণে আছে : ২৪ অংশ স্বর্ণ + কোনো এলোয় (খাদ বা ধাতু) নেই

ব্যবহার[সম্পাদনা]

বাংলাদেশসহ ভারতীয় উপমহাদেশের বেশ কিছু দেশে অলঙ্কারাদিতে ‘ভরি’ শব্দের ব্যবহার লক্ষ্য করা যায়।

একক[সম্পাদনা]

ভরির একক হিসেবে প্রাচীনকালে ১ টাকার সমপরিমাণ বা আঞ্চলিক ভাষায় কাঁচা পয়সাকে ভরির একক হিসেবে মূল্যায়িত করা হতো। ভরির ক্ষুদ্রতম একক রতি। ৬ রতি সমওজনে ১ আনা এবং ১৬ আনায় ১ ভরি হয়। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ১ ভরি = ১১.৬৬ গ্রাম (প্রায়)।

বিবাহে এর মূল্যায়ন[সম্পাদনা]

হিন্দু-মুসলিম সম্প্রদায়সহ বিশ্বের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের বিয়ে-শাদীতে কনে পক্ষ বর পক্ষকে কিংবা বর পক্ষ কনে পক্ষকে কত ভরি ওজনের অলঙ্কার বিশেষতঃ স্বর্ণালঙ্কার প্রদান করলো তা সামাজিকভাবে বেশ মুখরোচক সংবাদ হয়ে দাঁড়ায়।

স্বর্ণকারদের কাছে[সম্পাদনা]

স্বর্ণকার, যিনি স্বর্ণের ব্যবসা কিংবা স্বর্ণালঙ্কার তৈরী করেন তাদের কাছে ভরির ওজন ভিন্নতর হয়। গ্রাহকের কাছে বিক্রয়ের সময় তারা পুরো বাজার দর হিসেবে ১ ভরি স্বর্ণ বা রূপার দাম নির্ধারণ করেন। অথচ গ্রাহক যখন ঐ ১ ভরি স্বর্ণ বা রূপা বিক্রয় করেন তখন তাতে অলঙ্কারের আকরিক খাদ নির্ধারণ করে মূল্য প্রদান করেন।