বোয়িং ৭৭৭

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
বোয়িং ৭৭৭
ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭-২০০ মডেলের বিমান
ভূমিকা সুপরিসর জেট এয়ারলাইয়ার
উৎস দেশ যুক্তরাষ্ট্র
নির্মাতা বোয়িং কমার্শিয়াল এয়ারপ্লেন্স
প্রথম উড্ডয়ণ জুন ১২, ১৯৯৪
প্রবর্তন জুন ৭ ১৯৯৫, যুক্তরাষ্ট্র
অবস্থা পরিসেবায় নিয়োজিত
মুখ্য ব্যবহারকারী এমিরেটস এয়ারলাইন্স
ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স
এয়ার ফ্রান্স
সিংগাপুর এয়ারলাইন্স
ইউনিট খরচ ৭৭৭-২০০ইআর: $২৫৮.৮ মিলিয়ন [১]
৭৭৭-২০০এলআর: $২৯১.২ মিলিয়ন[১]
৭৭৭-৩০০ইআর: $৩১৫ মিলিয়ন[১]
৭৭৭এফ: $২৯৫.৭ মিলিয়ন [১]

বোয়িং ৭০৭ হল বোয়িং কমার্শিয়াল এয়ারপ্লেন কোম্পানির দুই ইঞ্জিন বিশিষ্ট, দূরপাল্লার, সুপরিসর বিমান। এটি পৃথিবীর সববৃহৎ দুই ইঞ্জিন বিশিষ্ট বিমান যা প্রকারভেদে ৫২৩৫ নটিক্যাল মাইল থেকে ৯৩৮০ নটিক্যাল মাইল পাল্লার মধ্যে ৩১৪ থেকে ৪১১ জন পর্যন্ত যাত্রী বহন করতে সক্ষম। এই বিমানকে সচরাচর ট্রিপল সেভেন নামে ডাকা হয়।[২][৩] বোয়িং ৭০৭ এর ইঞ্জিন দুটি পৃথিবীর সমস্ত বিমানের ইঞ্জিনের চেয়ে বড়। এর প্রত্তেক ল্যান্ডিং গিয়ারে ছয়টি করে চাকা, গোলাকৃতি ফিউসেলাজ এবং কোনাকৃতির পেছনের লেজ রয়েছে। এই বিমানটির নকশা করার সময় পৃথিবীর সর্ববৃহৎ আটটি বিমান পরিচালনা সংস্থার সাথে আলোচনা করা হয়েছিল এবং এর প্রধান উদ্দেশ্য ছিল পুরাতন জামানার সুপরিসর বিমানগুলোকে প্রতিস্থাপিত করা। এই বিমানটিতেই সর্বপ্রথম ফ্লাই-বাই-ওয়্যার প্রযুক্তি ব্যাবহার করা হয়েছে এবং এটিই সর্বপ্রথম বিমান যা সম্পূর্নরুপে কম্পিউটারের সাহায্যে নকশা করা হয়েছে।

বোয়িং ৭৭৭ বিমানটি দুই ধরনের দৈর্ঘ্যের ফিউসেলাজের (মূল শরীর) নকশা করা হয়েছে। প্রাথমিক ৭৭৭-২০০ প্রকরনটির ১৯৯৫ সালে প্রথম বানিজ্যিক ব্যবহার শুরু হয় অপরদিকে সম্প্রসারিত ফিউসেলাজের বিমান ৭৭৭-২০০ইআর এবং ৭৭৭-২০০ (পূর্বের প্রকরনের চেয়ে ১০.১ মিটার লম্বা) এর বানিজ্যিক ব্যবহার শুরু হয় ১৯৯৮ সালে। দূরপাল্লার প্রকরন ৭৭৭-৩০০ইআর এবং ৭৭৭-২০০এলআর দুটি যথাক্রমে ২০০৪ এবং ২০০৬ সালে বাজারে আসে। এর আরেকটি মালবাহী প্রকরন ৭৭৭এফ ২০০৯ সালে কার্যক্রম শুরু করে। বোয়িং ৭৭৭-২০০ এবং ৭৭৭-২০০ইআর বিমানদুটি পৃথিবীর সর্বোচ্চ দূরপাল্লার যা না থেমে অর্ধেক পৃথিবী ভ্রমণ করার রেকর্ড করেছে।

যুক্তরাষ্টের ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স সর্বপ্রথম বোয়িং ৭৭৭ কে বানিজ্যিক পরিসেবায় নিয়ে আসে ১৯৯৫ সালে। এর পর প্রায় ৬০ টি বড় বিমান পরিচালনাকারী সংস্থা বোয়িংকে সব ধরনের প্রকরনের ১৪৫২ টি বিমানের অর্ডার দেয় এবং ১৪৫২ টি হস্তান্তর করা হয়। মে ২০১৩ পর্যন্ত সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রকরন ছিল ৭৭৭-২০০ইআর যা আজ পর্যন্ত ৪২০ টি হস্তান্তর করা হয়। এই বিমানটিকে পৃথিবীর সবচেয়ে সুরক্ষিত বিমান হিসেবে আক্ষা দেওয়া হয়।[৪]

বোয়িং ৭৭৭ এর জ্বালানী সাশ্রয়ীতার জন্য এটিই বোয়িং কোম্পানির সর্বাধিক বিক্রিত বিমান। এই বিমানটি বর্তমানে দূরপাল্লার সমস্ত পরিসেবায় ব্যাবহৃত হতে শুরু হয়েছে এবং অনেক এয়ারলাইন্স কোম্পানিই তাদের অন্যান্ন দূরপাল্লার সুপরিসর বিমানকে বাদ দিয়ে এই বিমানকে ব্যাবহারের পরিকল্পনা করছে।

উন্নয়ন[সম্পাদনা]

পটভূমি[সম্পাদনা]

সত্তরের দশকে বোয়িং ৭৪৭, ম্যাকডনেল ডগলাস ডিসি-১০ এবং লকহিড এল-১০১১ এই তিনটি বিমানই সুপরিসর বিমান হিসেবে সমস্ত এয়ারলাইন্স কোম্পানিতে যাত্রীসেবায় ব্যাবহৃত হত। ১৯৭৮ সালে বোয়িং নতুন দৈত ইঞ্জিনের বিমান ৭৫৭কে বাজারে আনে পুরাতন আমলের ৭২৭কে প্রতিস্থাপিত করার জন্য। এবং আরো একটি দৈত ইঞ্জিনের বিমান ৭৬৭ কেও পরিসেবায় আনা হয় মূলত এয়ারবাস এ৩০০ এর সাথে প্রতিযোগিতা করার জন্য। এছাড়াও একটি তিন ইঞ্জিনের বিমানের নকশা করা হয় লকহিড-১০১১ কে টেক্কা দেবার জন্য। মধ্য পরিসরের ৭৫৭ এবং ৭৬৭ বিমান দুটি ১৯৮০ সালের দিকে এর দৈত ইঞ্জিন, জ্বালানী সাশ্র্যয়িতা এবং দূরপাল্লার পরিসবার জন্য বেশ জপ্রিয় হয়ে ওঠে এবং বোয়িংকে ব্যবসায় সফলতা এনে দেয়। এছাড়াও ফেডারেল এভিয়েশন এডমিনেষ্ট্রেশনের নতুন নিয়ম অনুযায়ী তিন ঘন্টার মধ্যেই দৈত ইঞ্জিনের বিমানগুলিকে যেকোন সমুদ্র সমুদ্র পাড়ি দেওয়ার সক্ষম হতে হত। এই নতুন নিয়ম বোয়িং ৭৫৭ এবং ৭৬৭ কে বাজারে বিশেষ সুবিধাজনক অবস্থানে নিয়ে যায়।

আশির দশকে শেষের দিকে ডিসি-১০ এবং লকহিড-১০১ বিমানগুলোর মেয়াদ শেষ হয়ে আসতে থাকে এবং এগুলোর উৎপাদনকারীরা নতুন মডেলের নকশা প্রনয়ন করার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করতে থাকেন। ম্যাকডনেল ডগলাস কোম্পানি তাদের ডিসি-১০ বিমানকে প্রতিস্থাপন করার জন্য এমডি-১১ এর নকশা প্রনয়ন করার চিন্তাভাবনা করতে থাকে অপরদিকে এয়ারবাস তাদের এ-৩৩০ এবং এ-৩৪০ মডেলের উন্নয়নে ব্যাস্ত ছিল। বোয়িন তাদের ৭৬৭ মডেলটিকে আরো লম্বা এবং সম্প্রসারিত করে ক্রেতাদের কাছে পরিবেশন করে কিন্তু ক্রেতাদের চাহিদা ছিল মূলত সুপরিসর বিমানের। তাই বোয়িং আবারো ৭৬৭ আর ৭৪৭ এর নকশার বিভিন্ন অংশ জুড়ে দিয়ে ৭৬৭-এক্স নামে একটি সমন্বিত নকশা প্রনয়ন করে কিন্তু তাও ক্রেতাদের মনঃপূত হয় না কারণ বড় বড় এয়ারলাইন কোম্পানির অন্যতম চাহিদা ছিল সুপরিসর ডেক এবং পরিবর্তন যোগ্য আসন বিন্যাস। ১৯৮৮ সালের দিকে বোয়িং বুঝতে পারে যে এই সমস্যার একমাত্র সমাধান হল একটি আনকোরা নতুন নকশা। ১৯৮৯ সালের দিকে বোয়িং দৈত ইঞ্জিনের নতুন নকশা প্রনয়ন করে যার ফিউসেলাজ যথেষ্ট প্রশস্ত এবং দুটি ইঞ্জিন থাকার দরূন এটি রক্ষনাবেক্ষনে এবং পরিচালনায় খরচ যথেষ্ট কম। ১৯৮৯ সালের শেষের দিকে বোয়িং তার ক্রেতাদের কাছে এই নতুন নকশাটি বোয়িং-৭৭৭ নামে বিক্রয়ের জন্য প্রস্তাব করতে শুরু করে।

নকশা প্রণয়ন[সম্পাদনা]

উৎপাদন[সম্পাদনা]

প্রকরন সমূহ[সম্পাদনা]

বৈশিষ্টসমূহ[সম্পাদনা]

মডেল অনুযায়ী বৈশিষ্ট
মডেল ৭৭৭-২০০ ৭৭৭-২০০ইআর ৭৭৭-২০০এলআর ৭৭৭ মালবাহী ৭৭৭-৩০০ ৭৭৭-৩০০ইআর ৭৭৭-৮এক্স[৫][৬] ৭৭৭-৯এক্স[৫][৬]
ককপিট কর্মী দুইজন
যাত্রী ধারনক্ষমতা ৩১৪ (৩ টি শ্রেণী)[৭]
৪০০ (২টি-শ্রেণী)
৪৪০ (সর্বোচ্চ)
প্রযজ্য নয়
(মালামাল)
৩৮৬ (৩ টি শ্রেণী)[৭]
৪৫১ (২ টি শ্রেণী)
৫৫০ (সর্বোচ্চ)
৩৫৩ (৩ টি শ্রেণী) ৪০৭ (৩ টি শ্রেণী)
দৈর্ঘ্য ২০৯ ফিট ৭ ইঞ্চি ২৪২ ফিট ৪ ইঞ্চি ২২৮ ফিট ২ ইঞ্চি ২৫০ ফিট ১১ ইঞ্চি
ডানার দৈর্ঘ্য ১৯৯ ফিট ১১ ইঞ্চি ২১২ ফিট ৭ ইঞ্চি ১৯৯ ফিট ১১ ইঞ্চি ২১২ ফিট ৭ ইঞ্চি Unfolded: ২৩৩ ফিট ৩ ইঞ্চি
Folded: ~২১১ ফিট ৩ ইঞ্চি
ডানার কোণ ৩১.৬৪° প্রযোজ্য নয়
লেজের উচ্চতা ৬০ ফিট ৯ ইঞ্চি ৬১ ফিট ১ ইঞ্চি ৬০ ফিট ৮ ইঞ্চি N/A
কেবিনের প্রশ্ততা ১৯ ফিট ৩ ইঞ্চি ১৯ ফিট ৭ ইঞ্চি[৮]
ফিউসেলাজের প্রশস্ততা ২০ ফিট ৪ ইঞ্চি
মালামাল বহন ক্ষমতা ৫৭২০ বর্গফিট ২৩০৫১ বর্গফিট ৭৬৪০ বর্গফিট N/A
খালি অবস্থায় ওজন ২৯৭,৩০০ পাউন্ড;<br/(১৩৪,৮০০ কেজি) ৩০৪,৫০০ পাউন্ড
(১৩৮,১০০ কেজি)
৩২০,০০০ পাউন্ড
(১৪৫,১৫০ কেজি)
৩১৮,৩০০ পাউন্ড
(১৪৪,৪০০ কেজি)
৩৫৩,৮০০ পাউন্ড
(১৬০,৬০০ কেজি)
৩৭০,০০০ পাউন্ড
(১৬৭,৮০০ কেজি)
প্রযোজ্য নয়
সর্বোচ্চ অবতরন ওজন ৪৪৫,০০০ পাউন্ড
(২০১,৮৪০ কেজি)
৪৭০,০০০ পাউন্ড
(২১৩,১৮০ কেজি)
৪৯২,০০০ পাউন্ড
(২২৩,১৬৮ কেজি)
৫৭৫,০০০ পাউন্ড
(২৬০,৮১৬ কেজি)
৫২৪,০০০ পাউন্ড
(৩৩৭,৬৮০ কেজি)
৫৫৪,০০০ পাউন্ড
(২৫১,২৯০ কেজি)
প্রযোজ্য নয়
সর্বোচ্চ উড়ান ওজন 545,000 lb
(247,200 kg)
656,000 lb
(297,550 kg)
766,000 lb
(347,500 kg)
766,800 lb
(347,800 kg)
660,000 lb
(299,370 kg)
775,000 lb
(351,500 kg)
সর্বোচ্চ ভ্রমণ গতি 35000 ফিট উচ্চতায় ০.৮৪ মাখ প্রযোজ্য নয়
সর্বোচ্চ গতি ৩৫০০০ ফিট উচ্চতায় ০.৮৯ মাখ N/A
সর্বোচ্চ পাল্লা
(সর্বোচ্চ ধারণক্ষমতায়)
৯,৭০০ কিলোমিটার ১৪,৩১০ কিলোমিটার ১৭,৩৭০ কিলোমিটার ৯,০৭০ কিলোমিটার ১১,১২০ কিলোমিটার ১৪,৬৯০ কিলোমিটার ১৭,৫৫৭ কিলোমিটার ১৫,০০১ কিলোমিটার
উড়ানের জন্য প্রয়োজনীয় দূরত্ব
(সমুদ্রপৃষ্ঠ উচ্চতায়)
৮,০০০ ফু
২,৪৪০ মি
১১,১০০ ফু
৩,৩৮০ মি
৯,২০০ ফু
২,৮০০ মি
৯,৩০০ ফু
২,৮৩০ মি
১০,৬০০ ফু
৩,২৩০ মি
১০,০০০ ফু
৩,০৫০ মি
N/A
সর্বোচ্চ জ্বালানী ধারণক্ষমতা 31,000 US gal
(117,348 L)
45,220 US gal
(171,176 L)
47,890 US gal
(181,283 L)
45,220 US gal
(171,176 L)
47,890 US gal
(181,283 L)
N/A
ভ্রমণ উচ্চতা 43,100 ft (13,140 m)
ইঞ্জিন (দৈত) PW 4077
RR 877
GE90-77B
PW 4090
RR 895
GE90-94B
GE90-110B1
GE90-115B1
PW 4098
RR 892
GE90-92B/-94B
GE90-115B1 GE9X
ধাক্কা (দৈত ইঞ্জিন) PW: 77,000 lbf (342 kN)
RR: 76,000 lbf (338 kN)
GE: 77,000 lbf (342 kN)
PW: 90,000 lbf (400 kN)
RR: 93,400 lbf (415 kN)
GE: 93,700 lbf (417 kN)
GE −110B: 110,100 lbf (490 kN)
GE −115B: 115,300 lbf (512 kN)
PW: 98,000 lbf (436 kN)
RR: 93,400 lbf (415 kN)
GE: 92,000/93,700 lbf (409 kN/418 kN)
GE: 115,540 lbf (514 kN) 102,000 lbf (450 kN)

Sources: Boeing 777 specifications,[৯][১০] Boeing 777 Airport planning report,[১১] and other sources[১২][১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Boeing Commercial Airplanes prices"Boeing। সংগৃহীত আগস্ট ৮, ২০১২ 
  2. Robertson, David (মার্চ ১৩, ২০০৯)। "Workhorse jet has been huge success with airlines that want to cut costs"The Times (UK)। সংগৃহীত মার্চ ২০, ২০০৯ 
  3. Grantham, Russell (ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০০৮)। "Delta's new Boeing 777 can fly farther, carry more"The Atlanta Journal-Constitution। সংগৃহীত জুন ৩০, ২০০৯ 
  4. "The world's top-five safest aircraft"The Vancouver Sun। ৯ আগস্ট ২০১১। সংগৃহীত ১৭ জুন ২০১৩ 
  5. "BOEING TO MAKE UP LOST GROUNDS ON ALL FRONTS"Aspire Aviation। সংগৃহীত জুন ২০, ২০১৩ 
  6. "BOEING 777X TO SPARK MINI-JUMBO WAR"Aspire Aviation। সংগৃহীত জুন ২০, ২০১৩ 
  7. "777 Characteristics"Boeing। সংগৃহীত অক্টোবর ১০, ২০১২ 
  8. http://www.flightglobal.com/blogs/flightblogger/2011/09/boeings-777-upgrades-come-into.html
  9. "Boeing 777 – Technical Information"Boeing। সংগৃহীত অক্টোবর ৯, ২০১১ 
  10. "777 payload-range capability"Boeing। ২০০৯। সংগৃহীত অক্টোবর ২৯, ২০১২ 
  11. "777 Airplane Characteristics for Airport Planning"Boeing। মে ২০১১। সংগৃহীত অক্টোবর ৯, ২০১১ 
  12. Frawley 2003, পৃ. 61–62
  13. "Trent 800 Technical data (archive)"Rolls-Royce। ২০০৭। আসল থেকে অক্টোবর ২৬, ২০০৭-এ আর্কাইভ করা। সংগৃহীত মে ২৩, ২০০৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]