বেন ১০ (টিভি ধারাবাহিক)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বেন ১০
Ben 10
বেন ১০
বেন ১০ ক্লাসিক লোগো.png
ধরণ
  • অ্যাকশন
  • রোমাঞ্চকর
  • ফ্যান্টাসি
  • সাইন্স ফিকশন[১]
নির্মাতাম্যান অফ অ্যাকশন
কণ্ঠ প্রদানকারী
আবহ সঙ্গীত রচয়িতাঅ্যান্ডি স্ট্রাউমার
উদ্বোধনী সঙ্গীত"বেন ১০", মক্সি
রচয়িতাঅ্যান্ডি স্ট্রাউমার
প্রস্তুতকারক দেশযুক্তরাষ্ট্র
মূল ভাষাইংরেজি
মৌসুম সংখ্যা
পর্বসংখ্যা৫২ (পর্বের সংখ্যা)
নির্মাণ
নির্বাহী প্রযোজকসাল্ম রেজিস্টার
প্রযোজক
  • কেলি ক্রিউস (সিজন ১)
  • ডোনা স্মিথ (সিজন ২–৪)
  • অ্যালেক্স সোটা (সুপারভাইজিং প্রডিউসার)
ব্যাপ্তিকাল২২ মিনিট
প্রোডাকশন কোম্পানিকার্টুন নেটওয়ার্ক স্টুডিওজ
সম্প্রচার
মূল চ্যানেলকার্টুন নেটওয়ার্ক
ছবির ফরম্যাট৪:৩ এইচডি টিভি (১০৮০ পি)
মূল প্রদর্শনী২৭ ডিসেম্বর ২০০৫ (2005-12-27) – ১৫ এপ্রিল ২০০৮ (2008-04-15)
ক্রমধারা
পরবর্তীবেন ১০: এলিয়েন ফোর্স
সম্পর্কিত প্রদর্শনীজেনেরটর রেক্স
বহিঃসংযোগ
ওয়েবসাইট

বেন ১০ (এছাড়াও বেন ১০ ক্লাসিক নামে পরিচিত ) একটি মার্কিন অ্যানিমেশন বা কার্টুন টিভি ধারাবাহিক যার মূল চরিত্র বেন টেনিসন নামের এক কিশোর। বেন অমনিট্রিক্স নামের এক বিশেষ হাতবন্ধনী কুড়িয়ে পায়, যেটির মাধ্যমে বেন ১০ ধরনের ভিনগ্রহের জীবে (এলিয়েন)রূপান্তরিত হতে পারে। বেন তার এই শক্তি কাজে লাগিয়ে ভিনগ্রহের জীব ও অন্যান্য বিভিন্ন অপরাধীর সাথে লড়াই করে। [২][৩]

নির্মাতা[সম্পাদনা]

স্যাম রেজিস্টার ও মার্ক বার্টন ।

কেন্দ্রীয় চরিত্র[সম্পাদনা]

  • বেন টেনিসন
  • গোয়েন ডলিন
  • ম্যাক্স টেনিসন (দাদা)
  • কেবিন লেবিন

বেন টেন:

বেন হচ্ছে এই ধারাবাহিকের আসল চরিত্র। বেন এর পুরো নাম বেঞ্জামিন টেনিসন, তাই সে বেন নামে সর্বাধিক পরিচিত। বেন টেন কার্টুন যখন প্রথম শুরু হয় তখন বেন এর বয়স ছিল মাত্র ১০ বছর। খুবই নোংরা থাকত সে। যা তার বোন গোয়েনের বর্ণনায় পাওয়া যায়। একটা সাদা গেঞ্জি পড়ত সে। তার মধ্যে কালো বর্ডার আছে। আর সবুজ রঙের একটা প্যান্ট পড়ে। অনেক পকেট রয়েছে। তার স্কুলে গ্রীস্মের ছুটি আরম্ভ হওয়ায় সে তার বোন গোয়েন কে নিয়ে তাদের দাদুর সাথে ভ্রমনে বের হয়। সেই প্রথম রাতেই ঘটে সেই বিচিত্র ঘটনা। কোনো এক ভুল বোঝাবুঝিরর জন্য বেন জংগলের ভেতর চলে যায়। সেখানে একটা উল্কাপিণ্ড উড়ে যেতে দেখে। হঠাত ঐ জিনিসটি মোড় নিয়ে তার দিকেই পড়তে থাকে। অল্পের জন্য বেন বেচে যায়। কিন্তু তার কৌতুহল থামে না। সে জিনিস টি দেখতে যায়। সে দেখে ওখানে একটা ঘড়ি। বেন হাত বাড়ায়, আর ওই ঘড়ি ওর হাতে আটকে যায়। তারপর ভুল করে টিপাটিপি করতে গিয়ে সে এলিয়েন হয়ে যায় যার নাম ছিল হিট ব্লাস্ট।

নিচে সেই ১০টি এলিয়েনের তালিকা দেওয়া হল যা বেনের অমনিট্রেক্সে ছিল,

১ ওয়াইল্ড মাট, ২ ফোর আর্মস ৩ গ্রেইন ম্যাটার ৪ এক্স এল আর এইট ৫ আপগ্রেইন ৬ ডায়মন্ড হেড ৭ রিপজায়স ৮ স্টিং ফ্লাই ৯ ঘোস্ট ফ্রিক ১০ হিট ব্লাস্ট

এই ১০টা এলিয়েন বেনের অমনিট্রেক্সে আগে থেকেই ছিল। তারপর বিভিন্ন ঘটনার মাধ্যমে সে আরো কয়েকটি এলিয়েন তার ঘড়িতে যুক্ত করতে সক্ষম হয়। বেন এলিয়েন হওয়ার আগে প্রায়ই বলে, It's hero time.

গোয়েন:

বেন এর বোন হল গোয়েন। পুরো নাম গোয়েন ডলিন। সবসময় বেনের সাথে তার মারামারি লেগেই থাকত। তবে ফাইটের সময় দুজনেই মিলেমিশে লড়ত। প্রথমদিকে গোয়েনের কোনো সুপার পাওয়ার ছিল না। কিন্তু হেক্স নামক এক শত্রু কে হারানোর পর হেক্সের বোনঝি, যার নাম ছিল চার্মকাস্টার তার কাছ থেকে গোয়েন একটি জাদু মন্ত্রের বই পায়। তারপর থেকে সে বেন কে সাহায্য করতে জাদু ব্যাবহার করত।

ম্যাক্স টেনিসন:

বেনের দাদা হচ্ছেন ম্যাক্স। ম্যাক্স ছিলেন একজন প্লাম্বার। এই পেশা হচ্ছে এমন একটা পেশা যার কাগজে কলমে কোনো পরিচয় নেই। তবুও সেই পেশার কর্মীরাই মুলত পৃথিবীকে রক্ষা করে বাইরের এলিয়েনদের আক্রমন থেকে।ম্যাক্স যে নিজে একজন প্লাম্বার তা কেউ জানত না। পরে নানা ঘটনার মধ্য দিয়ে বেন ও গোয়েন তার সম্পর্কে জানতে পারে। তিনি একটা লাল শার্ট পরেন। একটা আশ্চর্য ব্যাপার এটা যে, বেন টেনের কোনো সিজনেই তার শার্ট পরিবর্তন হয় নি। আসলে অমনিট্রেক্স তার কাছেই পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু সৌভাগ্য না দুর্ভাগ্য জানি না, সেটা বেনের হাতে পড়েছিল। বেন এবং তার দাদুর ডিএনএ প্রায় কাছাকাছি হওয়ায় বেন অমনিট্রেক্স পড়তে পেরেছিল। মোটকথা এই যে, বেনের দাদু সবচেয়ে সাহসী প্লাম্বার ছিলেন এবং সবসময় বেন কে যথাসাধ্য সাহায্য করতেন।

কেভিন লেভিন:

কেভিন বেন টেনের অন্যতম মুখ্য চরিত্র। সে একজন অসমোসিয়ান। সে যেকোনো কিছু থেকে শক্তি আহরণ করতে পারে। এমনকি সে বেন এর অমনিট্রেক্স থেকে পাওয়ার নিজের শরীরে নিয়ে বেনের সব এলিয়েনের রুপ একসাথে নিতে পেরেছিল। ১ম সিজনে তাকে ন্যাগেটিভ চরিত্রে রাখা হয়েছিল। পরের সিজনগুলোতে অবশ্য তাকে মুখ্য চরিত্রে রাখা হয়েছে। গোয়েন এর সাথে শেষে তার সম্পর্ক হয়।

বিপণন[সম্পাদনা]

ওয়ার্নার ব্রাদারস

চ্যানেল[সম্পাদনা]

কার্টুন নেটওয়ার্ক

দেশ[সম্পাদনা]

আমেরিকা

বাংলা ডাবিং সংস্করণ[সম্পাদনা]

১৯ এপ্রিল ২০১৫ থেকে বাংলাদেশের বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেল দীপ্ত টিভি কার্টুনটি বাংলা ভাষায় ডাবিং করে সপ্তাহে ৬ দিনব্যাপী নিয়মিত সম্প্রচার শুরু করে।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ben 10 - Metacritic.com
  2. 5th Ben 10 Series
  3. Confirmation of 5th Ben 10 Series by Official Twitter Page of CN PR
  4. "এসেছে দীপ্ত টিভি"প্রথম আলো। ১৮ নভেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৪ নভেম্বর ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]