বাণীকান্ত কাকতি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাণীকান্ত কাকতি
Banikanta Kakati.jpg
জন্ম১৮৯৪
বরপেটা
মৃত্যু১৫ নভেম্বর, ১৯৫২
জাতীয়তাভারতীয়
শিক্ষাকলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

বাণীকান্ত কাকতি (ইংরেজি: Banikanta Kakati) অসমীয়া সাহিত্যসংস্কৃতির একজন একনিষ্ঠ সেবক। অসমীয়া সাহিত্য জগতে তার অবদান যথেষ্ট ।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

বাণীকান্ত কাকতির পিতামহ পরমানন্দ কাকতি বাটিকুরিহা নিম্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। পরামনন্দ কাকতি রাধা পণ্ডিত নামেই সর্বাধিক পরিচিত। উপযুক্ত বয়সে বাণীকান্তকে কাকতী পিতামহের বিদ্যালয়ে নামভর্তি করানো হয় ও মনোযোগ সহকারে অধ্যয়ন করে বাণীকান্ত কাকতি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষা সমাপ্ত করেন। ১৯০৫ সনে তিনি বরপেটা উচ্চবিদ্যালয়ে নামভর্তি করেন। সেই সময়ে বরপেটা হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক ছিলেন কালীমোহন গুপ্ত। বাণীকান্ত প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর ১৯১১ সনে অসমের একমাত্র উচ্চ শিক্ষার প্রতিষ্ঠান কটন কলেজে নামভর্তি করেন।[১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯১৮ সনে অধ্যাপক রুপে কটন কলেজে যোগদান করেন। ১৯৪৭ তাকে কলেজের অধ্যক্ষ পদে পদোন্নতি করা হয়। ১৯৪৯ সনের জানুয়ারি মাস পর্যন্ত তিনি কলেজের অধ্যক্ষ রুপে কার্যনির্বাহ করে অবসর গ্রহণ করেন। সেই বছরে তিনি গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অসমীয়া বিভাগে অধ্যাপক রুপে যোগদান করেন ও মৃত্যু পর্যন্ত এই পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন [১]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯১৬ সনে বাণীকান্ত কাকতি বরপেটার উমাকান্ত দাসের কন্যা কনকলতাকে বিবাহ করেন।[১] তাদের তিনটি পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।

প্রকাশিত পুস্তক[সম্পাদনা]

ইংরেজি পুস্তক[সম্পাদনা]

  1. Assamese: Its formation and Development
  2. Mother Goddess Kamakhya
  3. Life and Teachings of Sankardeva
  4. Vaishnavite Myths and legends

অসমীয়া পুস্তক[সম্পাদনা]

  1. পুরণি অসমীয়া সাহিত্য
  2. সাহিত্য আরু প্রেম
  3. কলিতা জাতির ইতিবৃত্ত
  4. পুরণি কামরূপত ধর্মর ধারা
  5. পখিলা

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. এম. আব্দুল মজিদ খান। জিলিকালে লুইতর পার। বনলতা প্রকাশন, নতুন বজার, ডিব্রুগড়-১। পৃষ্ঠা ১৯–২৫। আইএসবিএন নাই |আইএসবিএন= এর মান পরীক্ষা করুন: invalid character (সাহায্য)