ফাউজিয়া গাইলানি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফাউজিয়া গাইলানি
Fauzia Gailani of Afghanistan-cropped.jpg
আফগানিস্তানের ওলেসি জিরগার সদস্য
কাজের মেয়াদ
২০০৫ – অজানা
সংসদীয় এলাকাহেরাত প্রদেশ
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৯৭১
পেশাআইনপ্রণেতা

ফাউজিয়া গাইলানি আফগানিস্তানের একজন মহিলা রাজনীতিবিদ। ২০০৫ সালে হেরাত প্রদেশ থেকে আফগানিস্তানের ওলেসি জিরগার, দেশটির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ, সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন।[১][২][৩] তিনি প্রায় ১৬,৮৮৫ ভোট পেয়ে হেরাত থেকে নির্বাচিত হন।[৪][৫][৬] নির্বাচনের আগে ফাউজিয়া একটি ফিটনেস সেন্টার প্রতিষ্ঠা করেন।[৩][৭] তিনি আফগানিস্তানের গাইলানি বংশীয় পশতুন পরিবারের অন্তর্গত।[৮] ফাউজিয়া নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতার বিরুদ্ধে কথা বলেছেন, এবং মেয়েদের জোরপূর্বক বিয়ের বিরুদ্ধেও সোচ্চার। তিনি নিজেই মাত্র তেরো বছর বয়সে বিয়ে করতে বাধ্য হয়েছিলেন। আফগানিস্তানের কবি নাদিয়া আঞ্জুমানের হত্যার পর তাকে ব্যাপকভাবে উদ্ধৃত করা হয়েছিল। নাদিয়া আঞ্জুমানের স্বামীকে তার হত্যার জন্য গ্রেফতার করা হয়েছিল।

কংগ্রেসিয়াল রিসার্চ সার্ভিস ফাউজিয়াকে স্বাধীন প্রতিনিধি হিসাবে বর্ণনা করে, যার সমর্থনে হামিদ কারজাই প্রশাসন জয়ের জন্য কষ্ট পোহাতে হয়েছিল।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Profile: Herat Profile" (PDF)Navy Postgraduate School। ২০০৯।  [১]
  2. Homeyra Mokhtarzada। "The Transition Ends and the Work Begins"Ace Project। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৬-১৩In Herat province, the top vote winner was a woman: Fauzia Gailani. A candidate for the Wolesi Jirga, she won 16,885 votes, or 3.6 percent of the provincial total. A mother of six who started a chain of fitness clubs in Herat after the fall of the Taliban, she has become well known for her rhetoric on equal rights and against child marriage. 
  3. Kim Barker (২০০৫-১১-০৬)। "A conservative Afghan city elects a woman"Chicago Tribune। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৬-১৩Her life started out much like those of other Herat women. At age 13, while she still played with dolls, she was forced to marry a man who was 15 years older. She was his second wife. But after moving to Iran during Afghanistan's wars, Gailani fell in love with sports. She started exercising and worked at a gym for women. When her family moved back to Herat after the Taliban fell, she brought two carloads of equipment to start gyms for women in Herat. 
  4. M. Ashraf Haidari (২০০৫-১০-২৭)। "Afghanistan's Parliamentary Election Results Confirm Stunning Gains for Women"Eurasianet। ২০১১-০৬-১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৬-১৩Fauzia Gailani got 17,000 votes in Herat, and Malai Joya got 8,000 votes in Farah. With Shukria of Kabul, these women have emerged as icons of this landmark parliamentary election. They demonstrated that, given the chance, the women of Afghanistan can and will be full players in the reconstruction process of our country. 
  5. Larry Jay Diamond, Marc F. Plattner (২০০৬)। Electoral systems and democracyJHU Pressআইএসবিএন 978-0-8018-8474-0। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৬-১৩Female representation was the only area in which SNTV actually proved to have a positive effect. The quota mechanism, which ensured that a total of 68 women were elected (on average two per province), remained largely unchallenged. The fragmenting effect of SNTV helped 19 women -- 8 percent of all MPs -- get elected in their own right without the aid of the affirmative-action mechanisms. In the large Western province of Herat, for example, female candidate Fauzia Gailani out-polled all male candidates, including those backed by local warlords. 
  6. Homeyra Mokhtarzada (২০০৫)। "The Transition ends, and the work begins"Democracy at Large। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৬-১৩In Herat province, the top vote winner was a woman: Fauzia Gailani. A candidate for the Wolesi Jirg, she won 16,885 votes, or 3.6 percent of the provincial total. A mother of six who started a chain of fitness clubs in Herat after the fall of the Taliban, she has become well known for her rhetoric on equal rights and against child marriage. 
  7. Christina Lamb (২০০৫-১১-১৩)। "Woman poet 'slain for her verse'"The Times। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৬-১৩One of the most surprising results announced earlier in the count was in Herat, where Fauzia Gailani, a female aerobics instructor, topped the polls. The 32-year-old mother of six said she was outraged by Anjuman’s death and was compiling a list of such cases. 'In Islam no one has the right to hit their wife,' she said. 'We hope the government will take action and stop crimes like this.' 
  8. https://fpc.state.gov/documents/organization/121930.pdf
  9. Kenneth Katzmann (২০০৯-০১-০৬)। "Post-Conflict Political Transition and Political Landscape" (PDF)Congressional Research Service। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৬-১৩Karzai and the UF often battle for the support of the many “independents” in the lower house. Among them are several outspoken women, intellectuals, and business leaders, such as 37 yearold Malalai Joya (Farah Province), a leading critic of war-era faction leaders... Others in this camp include Ms. Fauzia Gailani (Herat Province); Ms. Shukria Barekzai, editor of Woman Mirror magazine; and Mr. Ramazan Bashardost, a former Karzai minister who champions parliamentary powers. U.S.-based International Republican Institute (IRI) has helped train the independents; the National Democratic Institute (NDI) has assisted the more established factions. [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

উইকিমিডিয়া কমন্সে ফাউজিয়া গাইলানি সম্পর্কিত মিডিয়া দেখুন