পে-মা-শেস-ব্যা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

পে-মা-শেস-ব্যা (ওয়াইলি: pe ma shes bya) তিব্বতের র্দ্জোগ্স-ছেন বৌদ্ধবিহার নামক র্ন্যিং-মা ধর্মসম্প্রদায়ের অন্যতম প্রধান বৌদ্ধবিহারের শ্রী সিংহ মহাবিদ্যালয়ের চতুর্থ প্রধান ছিলেন।

সংক্ষিপ্ত জীবনী[সম্পাদনা]

পে-মা-শেস-ব্যা ঊনবিংশ শতাব্দীতে তিব্বতের র্গ্যাল-রোং (ওয়াইলি: rgyal rong) নামক শহরে জন্মগ্রহণ করেন। কম বয়স থেকেই তিনি বৌদ্ধ ভিক্ষু হওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন, কিন্তু তাঁর পিতামাতা এই সিদ্ধান্তে অনুমতি দেননি, ফলে তিনি বাড়ী থেকে পালিয়ে চলে যান। র্গ্যাল-স্রাস-গ্ঝান-ফান-ম্থা'-য়াস-'ওদ-জের (ওয়াইলি: rgyal sras gzhan phan mtha' yas 'od zer) নামক শ্রী সিংহ মহাবিদ্যালয়ের দ্বিতীয় প্রধানের নিকট তিনি মধ্য তিব্বত ও দক্ষিণ চীনের বিভিন্ন স্থানে তীর্থযাত্রা করে সূত্র ও তন্ত্র সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। সেং-ফ্রুগ-পে-মা-ব্ক্রা-শিস (ওয়াইলি: seng phrug pe ma bkra shis) নামক শ্রী সিংহ মহাবিদ্যালয়ের প্রথম প্রধানের নিকট তিনি শ্রমণ ও ভিক্ষুর শপথ গ্রহণ করেন। ম্দো-ম্খ্যেন-ব্র্ত্সে-য়ে-শেস-র্দো-র্জে (ওয়াইলি: mdo mkhyen brtse ye shes rdo rje) এবং মি-'গ্যুর-নাম-ম্খা'ই-র্দো-র্জে (ওয়াইলি: mi 'gyur nam mkha'i rdo rje) নামক বিখ্যাত লামারা তাঁর শিক্ষক ছিলেন। চল্লিশ বছর বয়স হলে তিনি শ্রী সিংহ মহাবিদ্যালয়ের চতুর্থ প্রধানের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। শেষ জীবনে তিনি রুদাম অঞ্চলের গুহাগুলিতে সাধনা করে কালাতিপাত করেন।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Chhosphel, Samten (জুলাই ২০১২)। "Pema Sheja"The Treasury of Lives: Biographies of Himalayan Religious Masters। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৮-৩১ 
পূর্বসূরী
রিগ-'দ্জিন-ব্জাং-পো
পে-মা-শেস-ব্যা
শ্রী সিংহ মহাবিদ্যালয়ের চতুর্থ প্রধান
উত্তরসূরী
দ্পাল-স্প্রুল-ও-র্গ্যান-'জিগ্স-মেদ-ছোস-ক্যি-দ্বাং-পো