পিপলসটেল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পিপলস টেলিকমিউনিকেশন অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস লিমিটেড
ধরনপ্রাইভেট
শিল্পটেলিকমিউনিকেশন
প্রতিষ্ঠাকালঢাকা, বাংলাদেশ
প্রতিষ্ঠাতামিঃ টি আই এম নুরুন নবী
সদরদপ্তর১ম তালা, হায়েস & হাইয়ার সেন্টার, প্লট ৬, রোড-৭, উত্তরা, ঢাকা - ১২৩০, বাংলাদেশ,
অবস্থানের সংখ্যা
দেশব্যাপী ২০৬ এক্সচেঞ্জ
বাণিজ্য অঞ্চল
সারা বাংলাদেশে
পরিষেবাসমূহপিএসটিএন টেলিকম, হোস্টেড কল সেন্টার, সেন্ট্রেক্স, আইএসপি
কর্মীসংখ্যা
৩৫০+
ওয়েবসাইটptelco.net

পিপলস টেলিকমিউনিকেশন অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস লিমিটেড (পিপলসটেল) একটি বাংলাদেশী ফিক্সড লাইন অপারেটর। এটি বাংলাদেশের প্রাইভেট পাবলিক সুইচড টেলিফোন নেটওয়ার্ক (পিএসটিএন) অপারেটর, আইএসপি এবং হোস্টেট কল সেন্টার সার্ভিস প্রোভাইডার

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ পল্লী টেলিযোগাযোগ কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) প্রাইভেট লিমিটেডের উত্তরসূরি সংস্থা [১] ১৯৮৯ সালে প্রতিষ্ঠিত বিআরটিএ দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্ব এবং উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলে ২০৩ টি গ্রামীণ থানায় (বাংলাদেশের ক্ষুদ্রতম প্রশাসনিক অঞ্চল) ডিজিটাল যোগাযোগ সরবরাহের জন্য তার কার্যক্রম শুরু করে। চুক্তিটি বাংলাদেশ টেলিগ্রাফ অ্যান্ড টেলিফোন বোর্ডের (বিটিটিবি), সরকারের মালিকানাধীন টেলিফোন সংস্থা, বাংলাদেশ সরকারের মধ্যে হয়েছিল। পরে ১৯৯৩ সালে এই চুক্তিটি সংশোধিত হয় এবং বিআরটিএকে ১৯৯ থানায় কার্যক্রম পরিচালনার লাইসেন্স দেওয়া হয়েছিল। বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারী টেলিকম অপারেটর হয়ে বিআরটিএ বাংলাদেশে টেলিযোগাযোগ বেসরকারীকরণের পথকে সুগম করেছে।

নবগঠিত বিটিআরসি দেশটিকে পাঁচটি অপারেটিং জোনে পিএসটিএন অপারেটরগুলির জন্য ভাগ করেছে (উত্তর-পশ্চিম, উত্তর-পূর্ব, দক্ষিণ-পশ্চিম, দক্ষিণ-পূর্ব এবং মধ্য)। ২০০৩ সালে বিআরটিসি কেন্দ্রীয় অঞ্চল বাদে পাঁচটি অঞ্চলের মধ্যে ৪ টির জন্য লাইসেন্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিটিআরসি ২০০৭ সালের ২৫ জুন পিএসটিএন অপারেটরদের কেন্দ্রীয় জোন লাইসেন্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর পিপলসটেল ২০০৪ সালে তাদের ৪ টি জোনাল লাইসেন্স পেয়েছিল এবং ২০০৮ সালের ১৭ মার্চ তারা সেন্ট্রাল জোনের লাইসেন্স পেয়েছিল।

গ্রাহক বেস[সম্পাদনা]

২০১০ সালের জানুয়ারী পর্যন্ত, পিপলসটেলের দেশব্যাপী ১৫০ হাজারেরও বেশি গ্রাহক রয়েছে [২]

নম্বর স্কিম[সম্পাদনা]

পিপলস টেল তার গ্রাহকদের জন্য নিম্নলিখিত নম্বর স্কিম ব্যবহার করেছে:

+৮৮০ ৩৮ এন এন এন এন এন এন এন এন

যেখানে +৮৮০ বাংলাদেশের জন্য আন্তর্জাতিক গ্রাহক ডায়ালিং কোড এবং কেবল বাইরে থেকে ডায়াল করার ক্ষেত্রে এটির প্রয়োজন।

বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক বরাদ্দকৃত পিপলসটেলের অ্যাক্সেস কোড হ'ল ৩৮। স্থানীয় কলের জন্য +৮৮০ -এর পরিবর্তে ০ ব্যবহার করতে হবে, তাই ০৩৮ হল সাধারণ অ্যাক্সেস কোড।

সেবা[সম্পাদনা]

পিপলসটেল বিভিন্ন ধরণের পরিষেবা সরবরাহ করে। পিএসটিএন অপারেটর হওয়ার সাথে সাথে, পিপলসটেল হ'ল দেশব্যাপী আইএসপি [৩] এবং হোস্টেড কল সেন্টার পরিষেবা সরবরাহকারী। [৪]

পিপলসটেল বাংলাদেশের প্রথম অপারেটর যিনি টেলিফোনি আইপি নেটওয়ার্ক চালু করেছেন। [৫] সিস্টেমটি পিপলসটেলকে পোস্টপেইড এবং প্রিপেইড কলিং কার্ড, কলব্যাক, সফটফোন এবং আন্তর্জাতিক কল ফরওয়ার্ডিং (আইসিএফ) সরবরাহ করতে সক্ষম করে। বিটিআরসির দ্বারা আরোপিত লাইসেন্সিং সীমাবদ্ধতার কারণে কলিং কার্ড পরিষেবা এবং সফটফোন বর্তমানে সক্রিয় নয় তবে আইসিএফ, ওয়েব কল ব্যাক এবং ভয়েস মেইল পরিষেবাগুলি সক্রিয় রয়েছে।

৮ আগস্ট ২০০৯: পিপলস টেল যমুনা গ্রুপের সাথে ৩১,০০০ ফিক্সড লাইন ফোন, সেন্ট্রেক্স, ইন্টারনেট এবং ডেটা সংযোগ পরিষেবাগুলির জন্য সর্বকালের বৃহত্তম টেলিযোগাযোগ কর্পোরেট চুক্তি সই করেছে। [৬] [৭] ৬ মার্চ ২০০৭: পিপলসটেল নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ পরিকল্পনা ঘোষণা করে। [৮] [৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Company Information - PeoplesTel
  2. "BRTC PSTN Subscriber Statistics - January 2010"। ২০১০-০২-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-১৭ 
  3. "List of Nationwide ISPs of Bangladesh" (PDF)। ২০১১-০৭-০৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-১৭ 
  4. "List of Hosted Call Centre Service Providers of Bangladesh" (PDF)। ২০০৯-১২-২৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-১৭ 
  5. "2007/09/12 VSC provides the first telephony IP network to Bangladesh"। ১ মার্চ ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ এপ্রিল ২০২০ 
  6. The Financial Express Report - PeoplesTel ropes in Jamuna Future Park in largest telecom deal
  7. "New Age Report - PeoplesTel inks corporate deal with Jamuna Group"। ৭ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ এপ্রিল ২০২০ 
  8. The Daily Star Report - PeoplesTel announces network expansion plan
  9. Bangladesh's PeoplesTel aims to net 1 million subscribers by 2012