পিট বুটিজেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পিট বুটিজেজ
Pete Buttigieg by Gage Skidmore.jpg
২০১৯ সালের জুনে পিট বুটিজেজ
দক্ষিণ বেন্ডের ৩২ তম মেয়র
কাজের মেয়াদ
জানুয়ারি ১, ২০১২ – জানুয়ারি ১, ২০২০
পূর্বসূরীস্টিভ লুয়েক
উত্তরসূরীজেমস মুয়েলার (মেয়র)
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মপিটার পল মন্টগোমেরি বুটিজেজ
(1982-01-19) ১৯ জানুয়ারি ১৯৮২ (বয়স ৩৮)
সাউথ বেন্ড, ইন্ডিয়ানা, ইউএস
রাজনৈতিক দলডেমোক্রেটিক পার্টি
দাম্পত্য সঙ্গীচাস্টেন গ্লেযমান (বি. ২০১৮)
মাতাজে, অ্যান মন্টগোমেরি
পিতাজোসেফ বুটিজেজ
শিক্ষাহার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় (ব্যাচেলর অব আর্টস)
পেমব্রোক কলেজ, অক্সফোর্ড (মাস্টার্স অব আর্টস)
স্বাক্ষর
ওয়েবসাইট
সামরিক পরিষেবা
আনুগত্যটেমপ্লেট:দেশের উপাত্ত United States of America
শাখা United States Navy
কাজের মেয়াদ২০০৯-২০১৭
পদলেফটেন্যান্ট
যুদ্ধআফগানিস্তান যুদ্ধ

পিটার পল মন্টগোমেরি বুটিজেজ (জন্ম:১৯ জানুয়ারী, ১৯৮২) হলেন আমেরিকান রাজনীতিবিদ যিনি ২০১২ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ইন্ডিয়ানা, সাউথ বেন্ডের মেয়র ছিলেন। তিনি ২০২০ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটিক মনোনয়নের প্রার্থী। বুটিজেজ হার্ভার্ড কলেজ এবং অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক এবং রোডস স্কলারশিপে পড়াশুনা করছেন। তিনি ২০০৭ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত ম্যানেজিং কনসালটেশন ফার্ম ম্যাককিনসের পরামর্শদাতা ছিলেন।[১] ২০০৯ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত তিনি মার্কিন নৌবাহিনী রিজার্ভের নৌ গোয়েন্দা কর্মকর্তা ছিলেন, সেখানে তিনি লেফটেন্যান্ট পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। ২০১৪ সালে তাকে সাত মাস আফগানিস্তানে (আফগানিস্তান যুদ্ধে) মোতায়েন করা হয়েছিল এবং তাকে যৌথ পরিষেবা প্রশংসা পদক দেওয়া হয়েছিল।[২] প্রার্থী হওয়ার আগে বুটিজেজ ডেমোক্র্যাটস জিল লং থম্পসন, জো ডোনেলি এবং জন কেরির রাজনৈতিক প্রচারে কাজ করেছিলেন। বুটিজেজ জানুয়ারী ২০১২ থেকে ২০২০ সালের মধ্যে ইন্ডিয়ানা সাউথ বেন্ডের ৩২ তম মেয়র ছিলেন। বুটিজেজ প্রকাশ্যে সমকামী হিসাবে জনসম্মুখে প্রকাশিত হয়েছিল ২০১৫ সালে এবং ৮০% এর বেশি ভোট পেয়ে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছিল।[৩] বুটিজেজ ১৪ এপ্রিল, ২০১৯ এ ২০২০ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য তার প্রচার শুরু করেছিলেন।.[৪][৫] তিনি প্রথম প্রকাশ্য সমকামী ব্যক্তি যিনি কোনও প্রধান রাষ্ট্রপতি পদের জন্য প্রচার শুরু করেছিলেন।[৬] প্রাথমিকভাবে কম প্রত্যাশা থাকা সত্ত্বেও, তিনি বেশ কয়েকটি টাউন হল, ফোরাম এবং বিতর্কগুলিতে অংশ নেওয়ার পরে ২০১৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে তিনি উল্লেখযোগ্য গতি অর্জন করেছিলেন। বুটিজেজ আইওয়া কক্কিসে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ প্রতিনিধি সংখ্যাটিতে সংকীর্ণভাবে জিতেছিলেন এবং নিউ হ্যাম্পশায়ার প্রাথমিকের মধ্যে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ প্রতিনিধি হয়েছিলেন।[৭][৮][৯] তিনি প্রথম আমেরিকান যিনি রাজনৈতিক দল থেকে রাষ্ট্রপতি পদের জন্য প্রাথমিক প্রতিনিধি উপার্জনকারী প্রথম প্রকাশ্য সমকামী প্রার্থী।[১০]

প্রথম জীবন এবং পেশা[সম্পাদনা]

বুটিজেজ ১৯ জানুয়ারী ১৯৮২ সালে দক্ষিণ বেন্ড, ইন্ডিয়ানায় জন্মগ্রহণ করেন। তার মাতার নাম জেনিফার অ্যান মন্টগোমেরি এবং পিতার নাম জোসেফ মন্টগোমেরি। বুটিজেজ তাদের একমাত্র সন্তান।[১১][১২] নিউ মেক্সিকো স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষদে কর্মরত অবস্থায় তাঁর বাবা-মা'র সাক্ষাত ও বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।[১৩] তাঁর পিতার জন্ম ও বেড়ে ওঠা মাল্টার হাম্রুনে, তিনি যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমানোর আগে দক্ষিণ বেন্ডের নটরডেম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাহিত্যের অধ্যাপক হিসাবে একটি ধর্মনিরপেক্ষ পেশা শুরু করেছিলেন।[১৪][১৫] যেখানে তিনি ২৯ বছর ধরে পড়াচ্ছেন।[১৬] তাঁর মা ক্যালিফোর্নিয়ার স্ট্যানিসালাস কাউন্ট্রিতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন,[১৭] টেক্সাসের এল পাসোর রেডফোর্ড হাই স্কুল থেকে স্নাতক[১৮] এবং টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন, ১৯৬৭ সালে তিনি বিএ এবং এমএ পাশ করেছিলেন।[১৭] তার মা ওকলাহোমাতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন,[১৯][২০][২১] এবং তার বাবা ইন্ডিয়ানায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন।[১৯][২২][২৩]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

পিট বুটিজেজ ইন্ডিয়ানা স্টেট ২০১০

বুটিজেজ দক্ষিণ বেন্ডের সেন্ট জোসেফ উচ্চ বিদ্যালয়ে ২০০০ এর ক্লাসের ভ্যালিডিকোটোরিয়ান ছিলেন।[২৪] সে বছর তিনি জন এফ কেনেডি প্রেসিডেন্সিয়াল লাইব্রেরি এবং সাহসী প্রবন্ধ প্রতিযোগিতায় জাদুঘরের প্রোফাইলগুলিতে প্রথম পুরস্কার অর্জন করেছিলেন। তিনি এই পুরষ্কারটি গ্রহণের জন্য বোস্টনে ভ্রমণ করেছিলেন এবং ক্যারোলিনে কেনেডি এবং রাষ্ট্রপতি কেনেডি পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে সাক্ষাত করেছিলেন। তাঁর বিজয়ী রচনার বিষয়বস্তু ছিল কংগ্রেসের কেবলমাত্র দুটি স্বতন্ত্র রাজনীতিবিদদের মধ্যে ভার্মন্টের মার্কিন প্রতিনিধি বার্নি স্যান্ডার্সের অখণ্ডতা এবং রাজনৈতিক সাহস[২৫][২৬] বুটিজেজ হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছিলেন, যেখানে তিনি ইতিহাস ও সাহিত্যে বিষয়ে প্রধান ছিলেন।[২৭] তিনি হার্ভার্ড ইনস্টিটিউট অফ পলিটিক্সের স্টুডেন্ট অ্যাডভাইজরি কমিটির সভাপতি হয়েছিলেন এবং রাজনীতিতে যুবকদের মনোভাব নিয়ে ইনস্টিটিউটের বার্ষিক গবেষণায় কাজ করেছিলেন।[২৮][২৯]

তথ্যসূত্র তালিকা[সম্পাদনা]

  1. "Secretary of State: Elections Division: Election Foundation Wide"Indiana State Government official website। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১০, ২০১২ 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; :7 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. Buttigieg, Pete (২০১৫-০৬-১৬)। "South Bend mayor: Why coming out matters"South Bend Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-১৪ 
  4. Basu, Zachary (এপ্রিল ৪, ২০১৯)। "Pete Buttigieg teases official 2020 campaign launch"Axios। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৮, ২০১৯ 
  5. Segran, Elizabeth (এপ্রিল ১৪, ২০১৯)। "Pete Buttigieg debuts a radical new approach to campaign branding"Fast Company। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৪, ২০১৯ 
  6. Epstein, Reid J. (২০১৯-১২-১৪)। "Pete Buttigieg: Who He Is and What He Stands For"The New York Times (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0362-4331। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-১৪ 
  7. Astor, Maggie; Stevens, Matt (২০২০-০২-০১)। "How Will the Winner of the Iowa Caucuses Be Chosen? Here's What You Should Know"The New York Times (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0362-4331। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-০৯ 
  8. Nilsen, Ella (২০২০-০২-১১)। "Bernie Sanders just won the all-important New Hampshire primary"Vox (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-১৫ 
  9. Hickey, John Haltiwanger, Walt (২০২০-০২-০৭)। "Why Bernie Sanders won Iowa's popular vote, but Pete Buttigieg may win the state's Electoral College"Business Insider Australia (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-২১ 
  10. Barbara Rodriguez (৫ ফেব্রু ২০২০)। "Pete Buttigieg made history in the Iowa caucuses whatever the final results show"The Des Moines Register। সংগ্রহের তারিখ ৮ ফেব্রু ২০২০ 
  11. St. Martin, Victoria (জানুয়ারি ২৮, ২০১৯)। "'It's been a good trip.' Father of Mayor Pete Buttigieg dies after illness"South Bend Tribune 
  12. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; NYTsuccessor নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  13. Inc, Kaniewski Funeral Homes। "Obituary for Joseph A. Buttigieg | Kaniewski Funeral Homes, Inc."Obituary for Joseph A. Buttigieg | Kaniewski Funeral Homes, Inc. 
  14. Kandra, Deacon G. (এপ্রিল ৩, ২০১৯)। "Beck Interviews Buttigieg About His Faith and Catholic Roots"The Deacon's Bench। জানুয়ারি ১, ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৬, ২০১৯ 
  15. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Trebay-180618 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  16. Brown, Dennis (ডিসেম্বর ১৫, ২০১৬)। "Hesburgh-Yusko Scholars Program to seek new director to replace retiring Joseph Buttigieg"Notre Dame News। জানুয়ারি ১, ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৬, ২০১৯ 
  17. "Pete Buttigieg - Wiki-PETE-ia"wikipeteia.com। ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  18. Laviola, Erin (এপ্রিল ১৭, ২০১৯)। "Jennifer Anne Montgomery, Pete Buttigieg's Mother: 5 Fast Facts" 
  19. "Mayor Pete's cousins"। জুন ১৭, ২০১৯। 
  20. "El Paso Co. Tx. Obits from the El Paso Times, February 23-28, 2002"usgwarchives.net। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০ 
  21. "Zoe Anne Neal Montgomery (1921-2002) - Find A Grave-gedenkplek" 
  22. "John Willard Montgomery (1910-1973) - Find A Grave-gedenkplek" 
  23. Mack, Justin L.। "Pete Buttigieg: What you need to know about the presidential hopeful"Indianapolis Star 
  24. "Indiana State Treasurer: Pete Buttigieg"South Bend Tribune। অক্টোবর ২৪, ২০১০। মার্চ ২৯, ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৬, ২০১৯ 
  25. McNaught, Tom (মে ২, ২০০০)। "2000 Winning Essay by Peter Buttigieg"John F. Kennedy Presidential Library and Museum। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৬, ২০১৯ 
  26. DeCosta-Klipa, Nik (এপ্রিল ২, ২০১৯)। "An 18-year-old Pete Buttigieg won a JFK Library essay contest. His subject was Bernie Sanders."The Boston Globe। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৩, ২০১৯ 
  27. Alfaro, Mariana (জানুয়ারি ২৩, ২০১৯)। "Pete Buttigieg, mayor of South Bend, Indiana, launches 2020 presidential bid"Business Insider। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৫, ২০১৯ 
  28. Harvard Institute of Politics (জানুয়ারি ২০১২)। "Public Service Fast Track Former IOP Student Advisory Committee member Peter Buttigieg '04 elected mayor of South Bend" (PDF)Harvard University। অক্টোবর ২৮, ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১৩, ২০১৪ 
  29. "American Rhodes Scholars-Elect for 2005" (PDF)Americanrhodes.org। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৮, ২০১৫