পার্সোনা নন গ্রাটা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
স্যার নিকোলাস থ্রগমর্টন, ফ্রান্সে ইংল্যান্ডের অন্যতম কূটনীতিক। ১৫৬০ সালে তিনি ফ্রান্স কর্তৃক পার্সোনা নন গ্রাটা ঘোষিত হয়েছিলেন।

পার্সোনা নন গ্রাটা (লাতিন: Persona non grata) শব্দের আক্ষরিক অর্থ অবাঞ্চিত বা অগ্রহণযোগ্য ব্যক্তিকূটনীতিতে পার্সোনা নন গ্রাটা বলতে এমন বহির্দেশীয় ব্যক্তিকে বোঝায় যার নির্দিষ্ট কোন একটি রাষ্ট্রে অবস্থান ও প্রবেশ ঐ রাষ্ট্রের সরকার কর্তৃক নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সংক্ষেপে পার্সোনা নন গ্রাটা বলতে এমন ব্যক্তিকে বোঝায় যিনি গ্রাহক রাষ্ট্র কর্তৃক অগ্রহণযোগ্য ও অবাঞ্চিত ঘোষিত হয়েছে। এ ধরনের ব্যক্তি অবাঞ্চিত বলে ঘোষিত হলেই ঐ দেশ থেকে "প্রত্যাহারযোগ্য" বলে বিবেচিত হবে।

কূটনৈতিক ব্যবহার[সম্পাদনা]

১৯৬১ সালের কূটনৈতিক সম্পর্ক বিষয়ক ভিয়েনা কনভেনশনের ৯ নম্বর অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে যে, গ্রাহক রাষ্ট্র প্রেরক রাষ্ট্রকে যেকোন সময়ে এই মর্মে নোটিশ প্রদান করতে পারে যে, মিশন-প্রধান, কোন কূটনৈতিক কর্মচারী বা অন্য কাজে নিয়োজিত কর্মচারীকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়েছে। এ একতরফা নোটিশ প্রদানের জন্য গ্রাহক রাষ্ট্রকে কোন কারণ দর্শাতে হবে না।[১] গ্রাহক রাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডে পৌঁছাবার পূর্বে কোন ব্যক্তিকে পার্সোনা নন গ্রাটা ঘোষণা করা যাবে।

এসব ক্ষেত্রে প্রেরক রাষ্ট্র সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে প্রত্যাহার করবে অথবা উক্ত মিশনের সাথে তার সম্পর্কচ্ছেদ ঘটাবে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "G. R. Berridge website"। Grberridge.diplomacy.edu। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০১-০৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]