নীল মসজিদ (আমস্টারডাম)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নীল মসজিদ
Blauwe Moskee
Walls of Babylon Slotervaart.JPG
অবস্থান
অবস্থানআমস্টারডাম নিউই-ওয়েস্ট, আমস্টারডাম, নেদারল্যান্ডস
স্থাপত্য
ভূমি খনন২০০৮
অভ্যন্তরীণ এলাকা৭৯০ মি2

নীল মসজিদ (ওলন্দাজ: Blauwe Moskee) নেদারল্যান্ডের আমস্টারডাম নিউই-ওয়েস্টে অবস্থিত একটি মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র।[১] ২০০৮ সালে মসজিদটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। মসজিদটি নির্মাণে কুয়েত সরকার ইউরোপ ট্রাস্ট নেদারল্যান্ড এর কার্যালয়ের মাধ্যমে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছিলো।[২] নীল রঙ এবং ঐতিহ্যগতভাবে মিনারের গঠনপ্রণালী ও মুসলমানদের উপাসনার জায়গা হিসেবে অন্যান্য প্রতিকৃতির কারণে স্থাপত্যশৈলীর দিক দিয়ে মসজিদটির তাৎপর্য রয়েছে।[৩]

স্থাপত্য[সম্পাদনা]

নীল মসজিদ ঐতিহাসিক ও আধুনিক স্থাপত্যের মিশ্রণে তৈরি। মসজিদটি নীল ইট দ্বারা ৭৯০ বর্গমিটার জায়গা ওপর নির্মিত। অন্যান্য ঐতিহাসিক মসজিদের মতো নীল মসজিদেও আজান সম্প্রচারের জন্য লাউডস্পিকারের ব্যবহার করে থাকে। মসজিদে প্রার্থনার জন্য পাঁচটি কক্ষ, ইসলামি শিক্ষার জন্য পাঁচটি শ্রেণি কক্ষ, একটি লেকচার কক্ষ এবং দুটি সভা কক্ষ রয়েছে।[৩]

রূপকল্প[সম্পাদনা]

নীল মসজিদ নিজেদের "উন্নতি ও আধুনিক" উভয় নীতির জন্য মৌলিকতাবাদের গর্ব এবং যুবকদের ইসলামের আধুনিক পদ্ধতিতে শিক্ষা প্রদান করে থাকেন।[২] নীল মসজিদ আত্মিক শান্তি ও সমন্বয়সাধনের জায়গা হিসেবে ফোকাস করে থাকে। ডাচ ভাষা হচ্ছে নীল মসজিদের দাফতরিক ভাষা।[১]

ব্যবস্থাপনা[সম্পাদনা]

মসজিদে সাধারণ ব্যবস্থাপনা স্বেচ্ছামূলক। বোর্ডের সদস্যবৃন্দ মসজিদের বিভিন্ন হিসাব নিকাশের জন্য প্রতি মাসে একবার সভার আয়োজন করে থাকে। অপ্রীতিকর আচরণের জন্য যে কাউকে মসজিদে প্রবেশে বাধা দেওয়ার অধিকার মসজিদ বোর্ডের রয়েছে। মসজিদটি ধূমপান মুক্ত ও প্রার্থনার সময় সেখানে মোবাইল ফোন ব্যবহারের অনুমতি নেই।[১]

বিতর্ক[সম্পাদনা]

নীল মসজিদ মুসলিম ব্রাদারহুডের সদস্যদের দ্বারা প্রতিষ্ঠিত এমন একটি উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে। যুক্তরাজ্যের দ্য ইউরোপ ট্রাস্টের পরিচালক ও মুসলিম ব্রাদারহুডের সদস্য আহমেদ আল-রাওয়ী বলেন, মসজিদ প্রতিষ্ঠায় আর্থিক সহায়তা প্রদান ও ভাবাদর্শের কারণে এই উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা ছড়িয়ে পড়েছিলো।[২][৪]

নীল মসজিদের পাবলিক স্পিকারের মধ্যে অন্তর্ভূক্ত সেমিটি বিরোধী মিশরীয় ইমাম মাহমুদ আল-মাসরি যাকে ফ্রান্সে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল, রেমি সোয়েলিরম্যান ও শেখ খালিদ ইয়াসিনদের মতো সালাফি ধর্মপ্রচারকদের কারণে আরও একটি বিতর্ক ছড়িয়ে পড়ে।[২]

আমস্টারডামের ডাচ নাগরিকগণ কুয়েতের ধর্মমন্ত্রণালয়ের অধীনে বিশেষ করে মুসলিম ব্রাদারহুডের কুয়েতি সদস্য ড. মুতলাক রশীদ আলকারাওয়ীর অধীনে উক্ত বিতর্কের বিরুদ্ধে একটি দরখাস্ত তথা আবেদন করেন।[২] হেট প্যারোল সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী, কুয়েতের ইসলামি সম্পর্ক মন্ত্রণালয় নীল মসজিদ নির্মাণে আর্থিক সহায়তা প্রদান ছাড়াও মসজিদের ধর্মপ্রচারক ও নেতাদেরও বেতন প্রদান করে থাকেন।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Redmon, Rachid। "Over Ons"blauwemoskee.nl। ২০১৫-০৮-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০৪ 
  2. "Topman Europese Moslimbroederschap stond aan wieg van Blauwe Moskee in Slotervaart « CarelBrendel.nl"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০৪ 
  3. "The Blue Mosque - Sightseeing - Amsterdam"www.inyourpocket.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৪-০৪ 
  4. "Kuwait Controls Amsterdam's Blue Mosque"Netherlands News। ২৮ মে ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৪ এপ্রিল ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

স্থানাঙ্ক: ৫২°২০′৫৫″ উত্তর ৪°৪৯′৫৩″ পূর্ব / ৫২.৩৪৮৬° উত্তর ৪.৮৩১৪° পূর্ব / 52.3486; 4.8314