নবকৃষ্ণ দেব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রাজা নবকৃষ্ণ দেব
জন্ম১৭৩৩
মৃত্যু১৭৯৭-এর ২২ নভেম্বর
পেশারাজা

নবকৃষ্ণ দেব (English Nabakrishna Deb) যিনি রাজা নবকৃষ্ণ দেব (ইং ১৭৩৩-১৭৯৭) নামে বেশি পরিচিত ও শোভাবাজার রাজ পরিবারের প্রতিষ্ঠাতা। ইং.১৭৫৭ সালে কলকাতায় নতুন তৈরী[১] শোভাবাজার রাজবাড়িতে তিনি ও রবার্ট ক্লাইভ প্রথম দুর্গাপূজা শুরু করেন যা কলকাতা শহরের সবথেকে পুরোনো দুর্গাপূজা।[২] অনেক শিল্পী ও প্রজাদের উন্নয়নের জন্য ওনার অবদান আছে।

রবার্ট ক্লাইভের উপস্থিতিতে শোভাবাজার রাজবাড়িতে দুর্গাপূজা
বর্তমানে শোভাবাজার রাজবাড়ির দুর্গাপূজা

জন্মবৃত্তান্ত[সম্পাদনা]

প্রভাব[সম্পাদনা]

পলাশির পরে কলকাতার সামাজিক সাম্রাজ্যে তিনি হয়ে উঠলেন প্রায় মুকুটহীন সম্রাট। তার সামাজিক গুরুত্ব তখন রাজনৈতিক নেতাদের থেকে বেশি। এই সামাজিক গুরুত্ব লাভে তাকে সাহায্য করেছিল তার সরকারি পদের গুরুত্ব এবং কলকাতার কোম্পানির কর্তাদের সঙ্গে তার সুসম্পর্ক। নিজের সামাজিক ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে তিনি কলকাতায় ডেকে এনেছিলেন উঁচুদরের কুলীনদের। ব্রাহ্মণ পণ্ডিতদের দান করেছিলেন জমি বাড়ি। এই সবই দলপতি হওয়ার পূর্বপ্রস্তুতি। দলপতি হতে প্রয়োজন ছিল বিত্ত-বৈভব প্রদর্শন। তার মাধ্যম ছিল শ্রাদ্ধ, বিয়ে বা অন্য পারিবারিক ও সামাজিক অনুষ্ঠানে অপরিমিত অর্থব্যয়। সে কালে ধনীদের দু’হাতে দানধ্যান করাকে বদান্যতা ভাবলে ভুল হবে। দ্বিজেন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছেন, ‘‘বড় লোকেদের যেন একটা ধারণা ছিল যে ভাল মন্দ বিচার না করিয়া খুব খরচ করিতে পারিলেই সমাজের মধ্যে প্রতিপত্তি বৃদ্ধি পাইবে।’’ মাতৃশ্রাদ্ধে নবকৃষ্ণ দেবের ন’লক্ষ টাকা খরচের পিছনে এই উদ্দেশ্য উঁকি দেয়। [৩]

তিনি ও তার অনুগামী প্রায় শতাধিক বছর ধরে ক্ষমতা ও প্রভাব বহাল রেখেছিলেন।

দুর্গাপূজা[সম্পাদনা]

রাজ পরিবার[সম্পাদনা]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

১৭৯৭-এর ২২ নভেম্বর নবকৃষ্ণ ঘরে পালঙ্কে শুয়ে মারা যান সকলের অলক্ষে।

গ্যালারি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বন্দোপাধ্যায়, দেবাশিষ, বনেদি কলকাতার ঘরবাড়ি, দ্বিতীয় মুদ্রণ ২০০২, পাতা. ১০১-১০২, প্রকাশকঃ আনন্দ প্রকাশক, আইএসবিএন ৮১-৭৭৫৬-১৫৮-৮
  2. Cotton, H.E.A, p. 72
  3. "Party-ism in Bengal" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]