দ্য মেসিয়াহ (২০০৭-এর চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দ্য মেসিয়াহ
দ্য মেসিয়াহ চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpeg
দ্য মেসিয়াহ
পরিচালকনাদের তালেবজাদেহ
প্রযোজকআব্দুল্লাহ সা'ঈদি
শ্রেষ্ঠাংশেআহমাদ সোলেইমানি নিয়া
চিত্রগ্রাহকসাদেঘ মিয়াজি
মুক্তি
  • ১৮ অক্টোবর ২০০৭ (2007-10-18) (Festival of Cinema and Religion)
দেশইরান

মেসীহ (ফার্সি: بشارت منجی), ‎ বা অধিক পরিচিত নাম হিসেবে দ্য মেসিয়াহ[১][২][৩][৪] হল ইরানী পরিচালক নাদের তালেবজাদেহ পরিচালিত একটি ইরানী চলচ্চিত্র যেখানে যীশু খ্রিষ্ট বা ঈসা নবীকে নিয়ে নির্মিত হয়েছে এবং ইসা নবীর ইসলামী ইতিহাস অনুসরণ করে যীশু খ্রিষ্ট বা ঈসা নবীর জীবনকাহিনী প্রদর্শন করা হয়েছে। বিখ্যাত হলিউড অভিনেতা মেল গিবসন পরিচালিত ঈসা মাসীহকে নিয়ে নির্মিত দ্য প্যাশন অব দ্য ক্রিস্ট চলচ্চিত্রের বিপরীতে তিনি চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেছেন। এ সম্পর্কে তিনি বলেন, "প্যাশন অব দ্য ক্রিস্ট নিঃসন্দেহে একটি ভাল ছবি। কিন্তু এটি পুরোপুরি গ্রহণযোগ্য নয়, কারণ এতে প্রদর্শিত কাহিনী সম্পূর্ণরুপে সত্য নয়।" চলচ্চিত্রটির পরিসমাপ্তি দেখানো হয়েছে কুরআন ও খ্রিষ্টান বাইবেলের বুক অফ বার্নাবাস সংষ্করণ থেকে, যেটিতে বর্নিত ইসা মাসীহর জীবনকাহিনীর সাথে ইসলামী বর্ননার অধিক সামঞ্জস্য রয়েছে। চলচ্চিত্রটিতে যীশু বা ইসা নবীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ইরানী অভিনেতা আহমেদ সোলেইমানি নিয়া।[৫]

কলাকুশলীবৃন্দ[সম্পাদনা]

ধারাবাহিক[সম্পাদনা]

বাংলাদেশে সম্প্রচার[সম্পাদনা]

ধারাবাহিকটি বাংলাদেশের এসএটিভিতে ২০১৯ সালের ১৪ই আগস্ট থেকে শাহরিয়ার বাহরানি পরিচালিত ২০০০ সালের চলচ্চিত্র সেইন্ট মেরি (সন্ত মরিয়ম) সহ ধারাবাহিক নাটক আকারে বিবি মরিয়ম ও ঈসা নবী নামে বাংলায় ডাবিং করে সম্প্রচারিত হয়।

পুরষ্কার/ফেস্টিভাল[সম্পাদনা]

ফিলাডেলফিয়া চলচ্চিত্র উৎসবে চলচ্চিত্রটি প্রদর্শন করা হয়েছিল।[৫]

২০০৭ সালে ইতালির রিলিজিয়ন টুডে নামক চলচ্চিত্র উৎসবে আন্তঃধর্ম বিশ্বাসীদের পরষ্পরকে বুঝতে সহায়তা করার জন্য চলচ্চিত্রটি পুরষ্কৃত হয়।[১][৬]

তথ্যসূত্র ও টীকা[সম্পাদনা]

  1. "AFP: 'Islamic Jesus' hits Iranian movie screens"। Google। ১৩ জানুয়ারি ২০০৮। ১৩ মে ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  2. "ABC News: Story of Jesus Through Iranian Eyes"। Abcnews.go.com। ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  3. "New Jesus tv series through the eyes of a Muslim director"। Ibnlive.com। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  4. "Nader Talebzadeh, Iranian Director"। Ntalebzadeh.multiply.com। ১২ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  5. ""Jesus" reflects Muslim belief in Philadelphia filmfest"। tehran times। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  6. ""The Story of Jesus Through Iranian Eyes" from ABC News"। Abcnews.go.com। ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]