দেইদামেইয়া (গ্রিক পুরাণ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Schale Deidamia KGM 17-39

গ্রিক পুরাণে দেইদামেইয়া (গ্রিক: Δηϊδάμεια) ছিলেন স্কাইরোসের রাজা লাইকোমিদেসের কন্যা।

দেইদামেইয়া রাজা লাইকোমিদেসের সাত কন্যার মধ্যে একজন যার সাথে আকিলেস লুকিয়ে ছিলেন। এই কাহিনীর কিছু কিছু সংকলনে জানা যায় আকিলিস রাজা লাইকোমিদেসের দরবারে লুকিয়ে ছিলেন রাজকুমারীদের দাসী সেজে, তিনি পিরহা নাম নিয়ে। যদিও দেইদামেইয়া এবং আকিলিস উভয়ই আট বছরের শিশু ছিলেন, তবু তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওডিসিউস যখন রাজা লাইকোমিদেসের প্রাসাদে আসেন তখন তিনি আকিলিসের রহস্য সকলের সামনে উন্মোচিত করেন। আকিলিস ট্রোজান যুদ্ধে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন; পিছে পড়ে থাকে ভগ্নহৃদয় এবং গর্ভবতী দেইদামেইয়া। তাদের ছেলে নিওটোলেমাস পরবর্তীতে বাবার সাথে ট্রোজান যুদ্ধে অংশ নেয় এবং ঘটনাচক্রে ওরেস্তেসের হাতে নিহত হয়। আরও জানা যায় যে নিওটোলেমাস তার মিত্র হেলেনাসের সাথে দেইদামেইয়ার বিয়ে দেয়। টলেমি হেফাইসশনের জানান দেইদামেইয়া এবং আকিলিসের আরেকটি ছেলে ছিল, ওনেইরোস, যাকে ওরেস্তেস অনিচ্ছাকৃতভাবে হত্যা করেন। 

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]