থের্মোপিলাইয়ের যুদ্ধ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
থের্মোপিলাইয়ের যুদ্ধ
মূল যুদ্ধ: the Greco-Persian Wars
Thermopylae ancient coastline large.jpg
The site of the battle today.
The road to the right is built on reclaimed land and approximates the 480BC shoreline.
তারিখ৭ই আগস্ট[১] or সেপ্টেম্বর ৮-১০,[২] ৪৮০ খ্রিস্টপূর্বাব্দ
অবস্থান
ফলাফল Persian victory.
অধিকৃত
এলাকার
পরিবর্তন
Persians gain control of Boeotia and march for Athens.
বিবাদমান পক্ষ
Greek city-states Achaemenid Empire
সেনাধিপতি ও নেতৃত্ব প্রদানকারী
Leonidas I  Xerxes I of Persia,
Mardonius,
Hydarnes
শক্তি
Totala
5,200+ (Herodotus)
7,400+ (Diodorus Siculus)
11,200 (Pausanias)
Total
~2,080,000 (Herodotus)[৩]
~80,000 (Ctesias)[৪]
~200,000b
হতাহত ও ক্ষয়ক্ষতি
1,000 to 4,000[৫] ~20,000 (Herodotus)[৬]
a Numbers from the ancient Greek sources b Modern estimates

থের্মোপিলাইয়ের যুদ্ধ ছিল ৪৮০ খ্রিস্টপূর্বাব্দে উত্তর গ্রীসের থের্মোপিলাই (প্রাচীন গ্রিক ভাষা: Θερμοπύλαι থের্‌মোপ্যুলাই) নামক এক সঙ্কীর্ণ উপকূলীয় পথে গ্রিক ও পারসিকদের মধ্যে সংঘটিত যুদ্ধ। পারস্যের রাজা প্রথম খাশয়র্শ (প্রাচীন পারসিক ভাষা Xšayāršā খ্‌শায়ার্‌শা, আধুনিক ফার্সি ভাষা خَشایارشا بزرگ খ্যাশয়র্‌শ বোজ়োর্গ্‌) ৪৮০-৪৭৯ খ্রিস্টপূর্বাব্দে গ্রিস দখলের যে অভিযান চালান, এটি তারই অন্তর্গত প্রথম বড় যুদ্ধ। যদিও থের্মোপিলাইয়ের যুদ্ধে পারসিকরা জয়লাভ করে, এটি মূলত গ্রিকদের, বিশেষত স্পার্তার সৈন্য ও তাদের রাজা ১ম লেওনিদাসের, বীরত্বের জন্য বেশি পরিচিত।

ম্যারাথনের যুদ্ধের মতো থের্মোপিলাইয়ের যুদ্ধের বিবরণের জন্যও প্রাচীন গ্রিক ইতিহাসবিদ হেরোদোতুসের রচনাই একমাত্র উৎস। খাশয়র্শ ১০ বছর আগে ম্যারাথনের যুদ্ধে পারসিকদের পরাজয়ের প্রতিশোধ চাচ্ছিলেন এবং একই সাথে গ্রিস দখল করে পারস্য সাম্রাজ্য বিস্তারও ছিল তার লক্ষ্য। এমনকি থের্মোপিলাইয়ের যুদ্ধের আগেই তিনি শক্তি প্রদর্শন করে কিংবা কূটনৈতিক প্রক্রিয়ায় গ্রিসের এক বিরাট অংশ দখল করে ফেলেছিলেন। গ্রিসের বাকী জনতা স্পার্তা শহরের নেতৃত্বে থেসালীয় সীমান্ত পরিত্যাগ করে এবং এর পরিবর্তে থের্মোপিলাইয়ের পথে অবরোধ সৃষ্টি করে। পথটির একপাশে ছিল সুউচ্চ পর্বত আর আরেক পাশে সমুদ্র, এবং এটি ছিল উত্তর ও দক্ষিণ গ্রিসের মধ্যে সংযোগ স্থাপনকারী কৌশলগত একটি পথ। পারস্যের নৌবহরের আক্রমণ প্রতিহত করতে গ্রিকদের নৌবহর স্কিয়াথোস ও মূল ভূখণ্ডের মধ্যবর্তী সাগরে টহল দেওয়া শুরু করে।

হেরোদোতুসের দেওয়া পারসিক সৈন্যের সংখ্যা অবিশ্বাস্য। তার মতে পারসিক বাহিনীতে ২৬ লক্ষ সৈন্য ছিল। অন্যদিকে গ্রিকরা ছিল ৬ থেকে ৭ হাজার। গ্রিক ও পারসিকদের মধ্যে তিন দিন যুদ্ধ চলে। কিন্তু পথটি অত্যন্ত সংকীর্ণ হওয়ায় পূর্ণাঙ্গ যুদ্ধ করার মত অবস্থা কোন পক্ষেরই ছিল না। ২য় দিনে গ্রিকদের এক বিশ্বাসঘাতক এফিয়ালতেস খাশ'ইয়রশ'-কে একটি পার্বত্য পথের কথা বলে দেয়, যাতে পারসিকেরা দুই দিক থেকে গ্রিকদের আক্রমণ করতে পারে। ১০ হাজার দক্ষ পারসিক সেনার এক দল রাতের বেলা ঐ পথে রওনা দেয়। যখন গ্রিকদের মূল সেনাদল এর খবর পায়, তখন বেশির ভাগ গ্রিক পলায়ন করে। কিন্তু লেওনিদাসের অধীনে ৩০০ স্পার্তীয়, ৭০০ থেস্পীয় এবং ৪০০ থেবীয় সেনা রয়ে যায়। এরা সবাই পারসিকদের বিরুদ্ধে প্রাণপণে যুদ্ধ করতে থাকে। লেওনিদাস নিহত হন। বাকী গ্রিকরা একটি ছোট পাহাড়ের উপরে পালিয়ে যায়, যেখানে তাদেরকে পারসিকেরা জড়ো করে ও সবাইকে হত্যা করে।

পরাজয় নিশ্চিত জেনেও লেওনিদাস কেন পালিয়ে যাননি তার কারণ এখনও অজানা। সম্ভবত রণকৌশলগত কারণে তিনি এটি করেছিলেন, যাতে পারসিকের যুদ্ধে ব্যস্ত থাকে এবং অন্যান্য গ্রিকেরা সহজে পালিয়ে যেতে পারে। তবে স্পার্তার সেনাদের আত্মসম্মানবোধ ও মৃত্যুর আগ পর্যন্ত যুদ্ধ করে যাবার গৌরবের অভিলাষও এর কারণ হতে পারে।

পারসিকেরা এই যুদ্ধে জয়লাভ করে আথেন্স শহর দখল করে ও ধ্বংস করে দেয়। কিন্তু ঐ বছরই সালামিসের যুদ্ধে গ্রিক নৌবহর পারসিকদের পরাজিত করে এবং গ্রীসে খাশ'ইয়র্‌শ'-এর সাম্রাজ্যবাদী অভিলাষের সমাপ্তি ঘটে।

গ্রন্থপঞ্জি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Lemprière, p. 10
  2. Greswell, p. 374
  3. Herodotus VII,186
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; ctes নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  5. Herodotus VIII, 25
  6. Herodotus VIII, 24