চেন্নাইতে পর্যটন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Marina Beach as seen from Light house

ঐতিহাসিক স্থান, নির্মানসমূহ, দীর্ঘ সমুদ্র সৈকত, সাংস্কৃতিক ও শৈল্পিক পরিমন্ডল ইত্যাদি নিয়ে চেন্নাই শহরটি সারা বিশ্বের পর্যটকদের নিকট একটি অন্যতম পর্যটন স্থান৷ বাস্তবিক অর্থে চেন্নাইয়ের পার্শ্ববর্তী শহর মহাবালিপুরাম এর ঐতিহাসিক মন্দির এবং পল্লব রাজত্যের ৭ম শতকের পাথরের উপর খোদাইকৃত শিল্পকর্মের জন্য পর্যকটদের নিকট একটি অন্যতম আকর্ষণীয় স্থান৷

পর্যটন স্থান হিসাবে চেন্নাই শহরটি ভ্রমণবিষয়ক গাইড লৌনলি প্লানেট এর ২০১৫ এর সেরা ১০ শহরের মধ্যে ৯ম স্থান দখল করে৷[১]

পর্যটক সংখ্যা[সম্পাদনা]

ভারতে আগমনকারী বিদেশী পর্যটক দ্বারা ২০১০ সাল হতে ২০১২ সাল পর্যন্ত সর্বাধিক ভ্রমনকৃত শহর হল চেন্নাই৷[২] এ সংখ্যা ২০১১ সালে সর্বোচ্চ হয় এবং নয়া দিল্লি ও মুম্বাই এর পর্যটক সংখ্যাকে অতিক্রম করে৷ এ সকল পর্যটকদের জন্য প্রধান আকর্ষণ ছিলো কাঞ্চিপুরাম ও মহাবালিপুরামে অবস্থিত ঐতিহাসিক স্থানসমূহ৷ অনেক বিদেশী পর্যটক অবশ্য চিকিৎসার উদ্দেশ্যে চেন্নাই শহরে আসে৷ ২০১১ সালে শহরটি পর্যটকদের গন্তব্যস্থল হিসাবে বিশ্বের সেরা ১০০ টি শহরের মধ্যে ৪১ তম স্থান দখল করে৷ এ বছর শহরটিতে ৩১,৭৪,৫০০ জন পর্যটক ভ্রমণ করে এবং এ সংখ্যাটি ছিলো ২০১০ সাল হতে ১৪% বেশি৷[৩] ২০০৯ সালে এ সংখ্যাটি ছিলো ২,০৫,৯০০৷ এ সময় চেন্নাই শহরটি ছিলো তিন নম্বরে এবং এর অবস্থান ছিলো মুম্বাই ও দিল্লি এর পর৷[৪]

যে সকল দেশ হতে চেন্নাই শহরে পর্যটক এসে থাকে সেগুলো হচ্ছে বাংলাদেশ, আমেরিকা, ইংল্যান্ড, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কা, জাপান, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, জার্মানি, চীন, নেপাল, সিঙ্গাপুর, ফ্রান্স, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান ইত্যাদি৷[৫]

আকর্ষণসমূহ[সম্পাদনা]

সমুদ্র সৈকত[সম্পাদনা]

১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এবং ৪০০ থেকে ৫০০ মিটার প্রশস্থ ম্যারিনা বীচ পর্যটকদের জন্য অন্যতম আকর্ষণীয় এবং দর্শনীয় একটি স্থান৷ এখানে রয়েছে লাইট হাউস, স্মৃতিধৌধ, ভাস্কর্য, বাগান, চলাচলের রাস্তা এবং সৈকত বরাবর গাড়ি ড্রাইভ করার রাস্তা৷

চেন্নাই রেল মিউজিয়াম[সম্পাদনা]

তামিল নাড়ুর চেন্নাইতে অবস্থিত চেন্নাই রেলওয়ে মিউজিয়াম হলো একটি রেলওয়ে মিউজিয়াম, যেখানে ভারতের ঐতিহ্যবাহী রেল এর একটি বিশাল সংগ্রহ রয়েছে৷[৬]

গভর্ণমেন্ট মিউজিয়াম কমপ্লেক্স[সম্পাদনা]

এগমোরে অবস্থিত গভর্ণমেন্ট মিউজিয়াম কমপ্লেক্সটি ১৮৫১ সালে স্থাপিত হয়৷ এখানে রয়েছে পাবলিক লাইব্রেরী এবং জাতীয় চিত্রশিল্প প্রদর্শনী কেন্দ্র৷ মিউজিয়াম বা যাদুঘরটি ১৬.২৫ একর(৬৬,০০০ বর্গ মি) এলাকা জুড়ে অবস্থিত৷ যাদুঘরটিতে ছয়টি ভবন রয়েছে৷

ফোর্ট সেন্ট জর্জ[সম্পাদনা]

ফোর্ট সেন্ট জর্জ(ঐতিহাসিকভাবে হোয়াইট টাউন) হলো বিট্রিশদের নির্মিত ভারতে প্রথম দুর্গ৷ এটি ১৬৩৯ সালে নির্মিত হয়৷ বর্তমানে এখানে তামিল নাড়ু রাজ্যের রাজ্যসভার কার্য পরিচালিত হয়৷ দুর্গটি চেন্নাই শহরের ঐতিহাসিক একটি নির্মান৷

শিল্পকলা[সম্পাদনা]

এখানে তামিল ও ভারতীয় শিল্পকলা সমৃদ্ধ প্রদর্শনী কেন্দ্র রয়েছে, যেখান হতে পর্যটকরা ভারতীয় শিল্প ও ঐতিহ্য সম্পর্কে জানতে পারে৷

ধর্মশালা[সম্পাদনা]

শহরটিতে প্রচুর মন্দির, মসজিদ, গীর্জাসহ বিভিন্ন উপাসনালয় রয়েছে৷ মন্দিরের মধ্যে রয়েছে কাপালেশ্বর মন্দির, পার্থসারথি মন্দির ও ভাদাপালানি মন্দির৷ মসজিদের মধ্যে রয়েছে ওয়াল্লাহ জা মসজিদ এবং গীর্জার মধ্যে রয়েছে সেন্ট থমাস গীর্জা৷

পার্ক[সম্পাদনা]

গুয়িন্ডি ন্যাশনাল পার্ক শহরটির সবচেয়ে ছোট পার্ক৷ এর আয়তন ২.৭৬ বর্গ কিলোমিটার৷ এখানে রয়েছে বিভিন্ন বিপন্ন প্রজাতির হরিণ, শিয়াল, বানর এবং সাপ৷

মার্কেট প্লেস[সম্পাদনা]

চেন্নাই এর বিভিন্ন স্থানে কেনাকাটার জন্য বিভিন্ন শপিং মল রয়েছে৷ শহরটিতে ভারতের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির পরিবাহক বিভিন্ন জিনিস এবং অলংকারের দোকান রয়েছে৷ এসকল শপিং মলের মধ্যে রয়েছে:

  • এক্সপ্রেস অ্যাভিনিউ
  • ফনিক্স মার্কেট সিটি
  • অবিরামি মেগা মল
  • মায়াজাল
  • স্পেকট্রাম মল

বিনোদন[সম্পাদনা]

চেন্নাই শহরে বিনোদনের জন্য বিভিন্ন উপাদান রয়েছে৷ এর মধ্যে রয়েছে চারটি বড় অ্যামিউজমেন্ট পার্ক এমজিএম ডিজি ওয়ার্ল্ড, ভিজিপি ইউনিভার্সাল কিংডম, কুইন্স ল্যান্ড এবং কিশকিন্তা , রয়েছে ওয়াটার স্পোর্টস সেন্টার ড্যাশ এন স্পেশ, বিচ রিসোর্ট, মুভি শ্যুটিং স্পট, রেস্টুরেন্ট ইত্যাদি৷

উল্লেখ[সম্পাদনা]

  1. "Top 100 City Destinations Ranking – Published 2012"। blog.euromonitor। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  2. "Top 100 City Destinations Ranking – Published 2014"। euromonitor.com। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  3. "Top 100 City Destinations Ranking – Published 2013"। euromonitor.com। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  4. "Euromonitor International's top city destinations ranking"। euromonitor.com। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  5. "Chennai: A Way of Life"। cleartrip.com। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  6. "Here, past comes chugging to you"। timesofindia.indiatimes। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭