চুপি চুপি আসে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(চুপি চুপি আসে (চলচ্চিত্র) থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

চুপি চুপি আসে হল একটি বাংলা সাদাকালো রহস্য চলচ্চিত্র যা ১৯৬০ সালে প্রেমেন্দ্র মিত্রের পরিচালনায় প্রকাশিত হয়। সংগীত পরিচালক ছিলেন নচিকেতা ঘোষ এবং মুখ্য গানটির কন্ঠশিল্পী হলেন গীতশ্রী সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়

ইতিহাস[সম্পাদনা]

অরোরা ফিল্ম কর্পোরেশনের ব্যানারে নির্মিত এই চলচ্চিত্রটি বাংলা রহস্য চলচ্চিত্রের ইতিহাসে একটি মাইলফলক। চুপি চুপি আসে সিনেমাটি আদতে আগাথা ক্রিস্টির লেখা বিখ্যাত গোয়েন্দা কাহিনী থ্রি ব্লাইন্ড মাইস (নাট্যরূপ 'মাউসট্র্যাপ') এর ছায়ায় গড়ে উঠেছে।[১]

অভিনয়[সম্পাদনা]

ছবি বিশ্বাস (বেনীবাবু), জহর গাঙ্গুলি (বীরস্বামী), রবীন মজুমদার (প্রবীর), তপতী ঘোষ, ধীরাজ দাস, প্রবীর কুমার দাস প্রমুখ। মূল গল্পের ডিটেকটিভ সার্জেন্ট ট্রটারের ভূমিকায় এ ছবিতে ছিলেন তরুণ কুমার (ইনস্পেকটর ঘোষাল)।

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

কলকাতার গিরিমাঝি লেনের ভয়ানক হত্যাকান্ডের পরে পুলিশ সন্দেহ করে খুনী হানা দিতে পারে একটি হোটেলে পরবর্তী খুনের উদ্দেশ্যে। কারন খুনীর পকেট থেকে পড়ে গিয়েছিল একটি হ্যান্ডবিল। সেই হ্যান্ডবিলটি একটি সদ্য চালু হওয়া হোটেল কল্যাণেশ্বরী স্বাস্থ্য নিবাসের। ইতিমধ্যে দেখা যায় দুই বন্ধু কনিকা ওরফে কণা ও প্রবীর চালু করেছে কল্যাণেশ্বরী স্বাস্থ্য নিবাস যেখানে প্রবল বর্ষনের ভেতরেও কিছু মানুষ এসেছেন ঘুরতে যাদের চালচলন রহস্যজনক। ডাক্তার বাজপেয়ী, অসুস্থ ও বৃদ্ধ বেনীবাবু, মেজাজী মহিলা শ্রীমতী ধর, তরুন মধুসূদন দত্ত, রসিক বীরস্বামী প্রমুখেরা আলাদা আলাদা ঘরে থাকা শুরু করেন। অতিথিদের কয়েকজনের কোনো গুপ্ত অতীত রয়েছে যা একটি অনাথ আশ্রম সংক্রান্ত। আর প্রত্যেকেই তাদের আসল নাম গোপন করে আছেন। ইতিমধ্যে প্রবল বর্ষনে এলাকাটি জলমগ্ন হয়ে পড়ে এবং বাইরের জগতের সংগে সমস্ত রকম যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। সরকারী গোয়েন্দা ইনস্পেকটর ঘোষাল বন্যার জল অতিক্রম করে কোনোরকমে একটি ভেলায় চড়ে সেই হোটেলে আসেন যেখানে অবিলম্বেই কোনো হত্যাকান্ড ঘটবে এমন কিছু জানতে পেরে। তারপর রাত্রে কোনো অজানা ব্যক্তি সেই ভেলাটিকেও ছেড়ে দেয়। কেউ সেখান থেকে বাইরে যেতে পারছেনা বা আসতেও পারছেননা এমন পরিস্থিতিতে প্রথম খুনের ঘটনাটি ঘটে যায়। মিস ধরকে নিজের ঘরে মৃত অবস্থায় আবিষ্কার করেন বাকি অতিথিরা। দ্বিতীয় খুনের চেষ্টার মুহুর্তে ধরা পড়ে আসল অপরাধী।[২][৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Premankur Biswas (২৫ আগস্ট ২০১৩)। "The Detective Returns"। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  2. "Chupi Chupi Ashey(1960)"IMDb। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  3. প্রবীরেন্দ্র চট্টোপাধ্যায়। Byte বিলাস। কলকাতা: সৃষ্টিসুখ প্রকাশন। পৃষ্ঠা ১০৩।