ক্রসরেল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
     ক্রসরেল
Crossrail roundel.svg
Crossrail tunnel looking west (11421362975).jpg
নির্মাণাধীন ক্রসরেল সুড়ঙ্গ
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
অন্য নামএলিজাবেথ লাইন (২০২১ সাল থেকে)
ধরন
সিস্টেমজাতীয় রেল
অবস্থানির্মানাধীন
অঞ্চলবৃহত্তর লন্ডন, বার্কশায়ার, বাকিংহামশায়ার, এসেক্স
বিরতিস্থলপশ্চিম: লন্ডন হিথ্রো বিমানবন্দর/রিডিং/মাইডেনহেড
পূর্ব: অ্যাবে উড/শেনফিল্ড
স্টেশনসমূহ৪১
ওয়েবসাইটwww.crossrail.co.uk
ক্রিয়াকলাপ
উদ্বোধন
মালিক
পরিচালকএমটিআর কর্পোরেশন (ক্রসরেল) লিমিটেড[২]
ঘাঁটি(গুলি)
রোলিং স্টকের ধরনশ্রেণি ৩৪৫
প্রতিটি ট্রেনে ৯ টি গাড়ি[৩]
প্রযুক্তিগত
রেলপথের দৈর্ঘ্যপ্রায় ৭৩ মা (১১৭ কিমি)
ট্র্যাক গেজটেমপ্লেট:Track gauge
চালন গতি৯০ মা/ঘ (১৪০ কিমি/ঘ)
বিদ্যুতায়ন২৫ কেভি ৫০ হার্জ এসি (ওভারহেড লাইনs)
পথের মানচিত্র
টেমপ্লেট:Crossrail RDT

ক্রসরেল (আনুষ্ঠানিকভাবে এলিজাবেথ লাইন হিসাবে নামকরণ করা হবে)[৪] যুক্তরাজ্যের উন্নয়নের অধীনে একটি ৭৩ মাইল (১১৭ কিলোমিটার) দীর্ঘ নতুন রেলপথ।[৫] পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে লন্ডন অতিক্রম করে, এর কেন্দ্রীয় অংশের রেলপথ প্রতিটি প্রান্তে দুটি শাখায় বিভক্ত হবে: পশ্চিমে রেলপথটি রিডিং এবং হিথ্রো বিমানবন্দরের স্টেশনগুলিতে; পূর্বে রেলপথটি অ্যাবে উড এবং শেনফিল্ডে পৌছাবে। মে ২০১৫ সালে, লিভারপুল স্ট্রিট এবং শেনফিল্ডের মধ্যে পূর্ব প্রান্তের একটি শাখার একটি অংশ টিএফএল রেলের কাছে স্থানান্তরিত হয়; এই পূর্বসূচী পরিষেবাটি মে মাসে হিথ্রো কানেক্ট এবং ডিসেম্বর ২০১৯ সালে প্যাডিংটন থেকে রিডিং লাইনের নিয়ন্ত্রণও গ্রহণ করে।

প্রকল্পটি ২০০৭ সালে অনুমোদিত হয় এবং ২০০৯ সালে কেন্দ্রীয় বিভাগের নির্মাণের কাজ শুরু হয় এবং বিদ্যমান লাইনগুলির সংযোগগুলি রুটের অংশ হয়ে যাবে। প্যাডিংটন থেকে স্ট্রাটফোর্ড এবং ক্যানারি ওয়ার্ফ পর্যন্ত ১৩ মাইল (২১ কিমি) জোড়া সুড়ঙ্গ সম্পন্ন হয় মে ২০১৫ সালে। নতুন নয়টি-গাড়ি বিশিষ্ট ৩৪৫ শ্রেণির ট্রেনগুলি রেলপথের কেন্দ্রীয় বিভাগের প্রতিটি দিকে প্রতি ঘণ্টা ২৪ টি ট্রেন পরিচালিত চলবে। এই রেলপথটি লন্ডন আন্ডারগ্রাউন্ডের সেন্ট্রাল, ডিস্ট্রিক্ট, জুবিলী লাইন সম্প্রসারণ এবং পিক্যাডেল লাইনের হিথ্রো শাখা রেলপথের চাপ হ্রাস করবে। লন্ডন ওভারগ্রাউন্ডের অনুরূপভাবে ট্রান্সপোর্ট ফর লন্ডনের লন্ডন রেল হিসাবে এমটিআর কর্পোরেশন (ক্রসরেইল) লিমিটেড দ্বারা ক্রসরেইল পরিচালিত হবে।[২] ২০১৮ সালের একটি পূর্বাভাসে বলা হয় রেলপথটি থেকে টিএফএল-এর বার্ষিক রাজস্ব হবে ২০২২/২৩ সালে বছরে প্রায় ৫০০ মিলিয়ন ডলার এবং ২০২৪/২৫ সালে, বছরে ১ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি।[৬]

মোট ব্যয় £১৪.৮ বিলিয়ন এর প্রাথমিক বাজেট থেকে ১৮.২৫ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। মূলত ২০১৮ সালে খোলার পরিকল্পনা করা হয়, কিন্তু ক্রসরেল প্রকল্প বিলম্বিত হতে থাকে; ২০২০ সালের মার্চ হিসাবে, এটি অনুমান করা হয় যে কেন্দ্রীয় বিভাগটি২০২১ সালের গ্রীষ্মে খোলা হবে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "TfL Rail: What we do"। Transport for London। ২৫ মে ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; rg20140718 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; rgi20140206 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  4. Jobson, Robert (২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৬)। "Crossrail named the Elizabeth line: Royal title unveiled as the Queen visits Bond Street station"London Evening Standard। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  5. "Crossrail in numbers"Crossrail (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-০৮ 
  6. "Transport for London Business Plan" (PDF)Transport for London। ডিসেম্বর ২০১৯। পৃষ্ঠা 136। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]