কেয়া গ্রুপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কেয়া গ্রুপ
কেয়া গ্রুপের লোগো.png
গঠিত১৯৯৬; ২৫ বছর আগে (1996)
সদরদপ্তরঢাকা, বাংলাদেশ
যে অঞ্চলে কাজ করে
বাংলাদেশ
দাপ্তরিক ভাষা
বাংলা
আয়
বৃদ্ধি ২০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (২০১৯)
ওয়েবসাইটwww.keyagroupbd.com

কেয়া গ্রুপ হলো বাংলাদেশের ঢাকা-কেন্দ্রিক একটি শিল্পপ্রতিষ্ঠান। ১৯৯৬ সালে কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড প্রতিষ্ঠিত হয়।[১] আবদুল খালেক পাঠান হলেন এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপারসন।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

২০১০ সালে কেয়া ডিটারজেন্ট লিমিটেড ও কেয়া সোপ কেমিক্যালস লিমিটেড কেয়া কসমেটিকসের সাথে একীভূত হয়ে যায়।[২] কেয়া সোপ কেমিক্যালস ছিল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের তালিকাবহির্ভূত একমাত্র প্রতিষ্ঠান।[৩]

১৯৯৯ সালে কেয়া কসমেটিকস সোহরাওয়ার্দী কাপ জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের পৃষ্ঠপোষকতা করার ঘোষণা দেয়।[৪]

২০১৫ সালে কেয়া কটন মিলস, কেয়া নিট কম্পোজিট ও কেয়া স্পিনিং মিলস কেয়া কসমেটিকসের সাথে একীভূত হয়ে যায়।[২] এই তিনটি প্রতিষ্ঠানের অতিরিক্ত দায়ভারের জন্য ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ এর তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান কেয়া কসমেটিকসকে প্রাথমিকভাবে সতর্ক করেছিল।[৫] পরবর্তীতে প্রতিষ্ঠানগুলোর একীভবন হাইকোর্টের অনুমোদন লাভ করে।[৬] ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ক্যানটিনের পানি খেয়ে কেয়া নিট কম্পোজিটের ৫০০ কর্মী অসুস্থ হয়ে পড়ার ঘটনা ঘটে।[৭] এরপর কয়েকদিনের মধ্যে কারখানার আরও ১০০ কর্মী অসুস্থ হয়ে পড়েন।[৭]

২০০৭ সালে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে কেয়া গ্রুপের শেয়ার ভালো অবস্থান ধরে রাখে।[৮] ২০১৭ সালে পরিচালকেরা শেয়ারের পরিমাণ ৬২ শতাংশ থেকে ৪৬ শতাংশে নামিয়ে আনে।[২] চাহিদার অভাবে তারা শেয়ার ধারণে ব্যর্থ হন।[২] প্রতিষ্ঠানের খরচ কমানোর জন্য সদর দপ্তর বনানী থেকে কারখানার নিকটে গাজীপুরে স্থানান্তর করা হয়।[২] প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৮.৫ বিলিয়ন টাকা মূল্যের দীর্ঘমেয়াদি এবং প্রায় ৬.৩ বিলিয়ন টাকা মূল্যের স্বল্পমেয়াদি ঋণ রয়েছে।[২] একই বছর দুর্নীতি দমন কমিশন বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের ১.১১ বিলিয়ন টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গ্রুপের চেয়ারপারসন আবদুল খালেক পাঠানকে গ্রেফতার করে।[৯][১০] ফিনান্সিয়াল রিপোর্টিং কাউন্সিল বাংলাদেশ কেয়া গ্রুপ ইউরোপের অঙ্গপ্রতিষ্ঠানে ১০ বিলিয়ন টাকার বেশি মূল্যের অর্থ পাচারে জড়িত বলে অভিযোগ করে।[২]

২০১৮ সালের মে মাসে কেয়া গ্রুপ বাংলাদেশে কাকড়া চাষের উপযোগিতা গবেষণার জন্য খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করে।[১১] ২০১৮ সালে ঋণের টাকা পরিশোধে গ্রুপের চেয়ারপারসন আবদুল খালেক পাঠান, তার স্ত্রী ফিরোজা বেগম এবং পুত্র তানসিন কেয়া প্রায় দুই বিলিয়ন টাকার সমপরিমাণ শেয়ার বিক্রি করে দেন।[১২] এছাড়াও, নিয়মিত প্রতিবেদন প্রকাশ না করে কেয়া গ্রুপ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের নীতিমালা ভঙ্গ করে।[১৩] ফলে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন ২০১৮ সালের ২৪ জুলাই কেয়া গ্রুপের চারজন পরিচালককে জরিমানা করে।[১৪]

পূবালী ব্যাংকে কেয়া গ্রুপের ১.৫৭ বিলিয়ন টাকা বকেয়া রয়েছে।[১৫] এছাড়াও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের এক তদন্তে গ্রুপের শেয়ারে অনিয়ম পাওয়া যায়।[১৫] প্রতিষ্ঠানটি বর্তমানে আর্থিক সংকটে রয়েছে।[১৫]

অঙ্গপ্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

  • কেয়া কসমেটিকস[১] (কেয়া সোপ, লাইফগার্ড, অ্যাকটিভ টুথপেস্ট,[১৬] সুপার স্যালুন,[১৭] এবং আইস ম্যাজিক[১৮])
  • কেয়া ইউরোপ[১৯]
  • কেয়া কটন মিলস[২০]
  • কেয়া নিট কম্পোজিট[২০]
  • কেয়া অ্যাগ্রো প্রসেস লিমিটেড[২০]
  • কেয়া ইয়ার্ন মিলস লিমিটেড[২১]
  • কেয়া কটন মিলস[২২]
  • খালেক নিটিং অ্যান্ড গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রিজ প্রাইভেট লিমিটেড[২৩]
  • কেয়া স্পিনিং মিলস[২৩]
  • নিট কম্পোজিট ডিভিশিন[২৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Keya Cosmetics Ltd – Keya Group" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  2. "The stunning fall from grace of Keya Cosmetics, a once beloved brand"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৮-০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  3. "Keya plans merger of 3 units"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১০-১২-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  4. "Keya to sponsor U-19 football"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১৯৯৯-০১-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  5. "Keya's merger move hits controversy"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৪-০২-১৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  6. "IPOs of Olympic Accessories, Keya Cosmetics get regulator's nod"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-০২-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  7. "100 RMG workers of Keya Group fall sick again"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-০৯-১৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  8. "Investors gamble on Keya Cosmetics"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৭-১০। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  9. "ACC arrests Keya Group chairman"New Age (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  10. "Keya Yarn boss held over misappropriating Tk 111cr"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৮-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  11. "Khulna University, Keya Group sign deal for crab industry development"Dhaka Tribune। ২০১৮-০৫-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  12. "Keya Cosmetics share weighed down by sponsors' selloffs"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০৫-০৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  13. "Keya not publishing financial statements"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০৬-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  14. "BSEC fines Keya Cosmetics directors"Dhaka Tribune। ২০১৮-০৭-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  15. "Keya up the creek"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০১-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  16. "Personal Care – Keya Cosmetics Ltd." (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  17. "Men's Care – Keya Cosmetics Ltd." (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  18. "Summer Care – Keya Cosmetics Ltd." (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  19. "Keya Europe"www.keyaeurope.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  20. "Keya Agro"keyagroupbd.com। সংগ্রহের তারিখ ১ জুন ২০২১ 
  21. "Keya Yarn Mills Ltd – Keya Group" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  22. "Keya Cotton Mills – Keya Group" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  23. "Keya Spinning Mills – Keya Group" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১ 
  24. "Keya Knit Composite – Keya Group" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-০১