কেবেক সিটি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কেবেক সিটি
Ville de Québec (ফরাসি)
প্রদেশের রাজধানী শহর
ভিল ডি কোয়েবেক
কেবেক সিটির স্কাইলাইন
কেবেক সিটির পতাকা
পতাকা
ডাকনাম: "লা ভিইল ক্যাপিটেল" [১]
নীতিবাক্য: Don de Dieu ferai valoir
("আমি ভাল ভাবে ব্যবহার করার জন্য ঈশ্বরের উপহার রাখবো"; the Don de Dieu was Champlain's ship)
কেবেক শহরের মানচিত্র
কেবেক শহরের মানচিত্র
কেবেক সিটি কেবেক-এ অবস্থিত
কেবেক সিটি
কেবেক সিটি
কেবেক সিটি কানাডা-এ অবস্থিত
কেবেক সিটি
কেবেক সিটি
কানাডার কেবেক শহরের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ৪৬°৪৮′৫০″ উত্তর ৭১°১২′২৯″ পশ্চিম / ৪৬.৮১৩৮৯° উত্তর ৭১.২০৮০৬° পশ্চিম / 46.81389; -71.20806স্থানাঙ্ক: ৪৬°৪৮′৫০″ উত্তর ৭১°১২′২৯″ পশ্চিম / ৪৬.৮১৩৮৯° উত্তর ৭১.২০৮০৬° পশ্চিম / 46.81389; -71.20806[২]
দেশকানাডা
প্রদেশকেবেক
অঞ্চলক্যাপিটেল-নেশনালে
মহানগরকেবেক মেট্রোপলিটন সম্প্রদায়
শহরপুঞ্জকেবেক সিটির শহরপুঞ্জ
ঐতিহাসিক দেশসমূহফরাসি রাজ্য
গ্রেট ব্রিটেন রাজ্য
প্রথম বসতি স্থাপন১১ অক্টোবর ১৫৩৫,
জ্যাক কারটিয়ের দ্বারা
প্রতিষ্ঠিত৩ জুলাই ১৬০৮,
স্যামুয়েল ডি চ্যাম্পলাইন দ্বারা
গঠিত১ জানুয়ারি ২০০২
অন্তর্ভূক্ত১৮৩২[৩]
বরো
সরকার[৪]
 • ধরনকেবেক সিটি কাউন্সিল
 • মেয়ররেজিস ল্যাবউমে
 • এমপি
 • এমএনএ
আয়তন[৪][৫][৬]
 • প্রদেশের রাজধানী শহর৪৮৫.৭৭ বর্গকিমি (১৮৭.৫৬ বর্গমাইল)
 • স্থলভাগ৪৫৩.৩৮ বর্গকিমি (১৭৫.০৫ বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা৪২৭.৬৬ বর্গকিমি (১৬৫.১২ বর্গমাইল)
 • মহানগর[৮]৩,৪০৮.৭০ বর্গকিমি (১,৩১৬.১১ বর্গমাইল)
উচ্চতা[৯]৯৮ মিটার (৩২২ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১৬)[৫]
 • প্রদেশের রাজধানী শহর৫,৩১,৯০২ (১১তম)
 • জনঘনত্ব১,১৭৩.২/বর্গকিমি (৩,০৩৯/বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা৭,০৫,১০৩[৭]
 • পৌর এলাকার জনঘনত্ব১,৬৪৮.৭/বর্গকিমি (৪,২৭০/বর্গমাইল)
 • মহানগর[৬]৮,০০,২৯৬ (৭ম)
 • মহানগর জনঘনত্ব২৩৪.৮/বর্গকিমি (৬০৮/বর্গমাইল)
 • জনসংখ্যা ২০১১–২০১৬৩.০% বৃদ্ধি
সময় অঞ্চলইএসটি (ইউটিসি−০৫:০০)
 • গ্রীষ্মকালীন (দিসস)ইডিটি (ইউটিসি−০৪:০০)
পোস্টাল কোডজি১এ থেকে জি২এন
এলাকা কোড
  • ৪১৮
  • ৫৮১
  • ৩৬৭
ওয়েবসাইটwww.ville.quebec.qc.ca/en/

কেবেক সিটি বা কুইবেক সিটি[১০][১১] কানাডার ক্যুবেক প্রদেশের রাজধানী শহর। জুলাই ২০১৬ অবধি শহরটির জনসংখ্যা ছিল ৫,৩১,৯০২ জন[১২] এবং মহানগরের জনসংখ্যা ছিল ৮,০০,২৯৬ জন।[১৩] এটি কানাডার একাদশ বৃহত্তম শহর এবং সপ্তম বৃহত্তম মহানগর অঞ্চল।

অ্যালগনকুইয়ানরা মূলত এই অঞ্চলটির নামকরণ করে কাবেক, অ্যালগনকুইন[note ১] শব্দের অর্থ "যেখানে নদীটি সঙ্কুচিত হয়", কারণ সেন্ট লরেন্স নদীটি কেবেক শৈলান্তরীপ এবং এর কেপ ডায়াম্যান্টের নিকটবর্তী অঞ্চলে সঙ্কুচিত হয়েছে। অনুসন্ধানকারী স্যামুয়েল ডি চ্যাম্পলাইন ১৬০৮ সালে এখানে একটি ফরাসি বসতি প্রতিষ্ঠা করেন এবং অ্যালগনকুইন নামটি গ্রহণ করেন। কেবেক শহরটি উত্তর আমেরিকার অন্যতম প্রাচীন ইউরোপীয় শহর। ওল্ড কিউবেকের (ভিউক্স-কোয়েবেক) চারপাশের র‌্যাম্পার্টগুলি মেক্সিকোর উত্তরে অবশিষ্ট আমেরিকার একমাত্র সুরক্ষা প্রাচীর। এই অঞ্চলটিকে ইউনেস্কো দ্বারা ১৯৮৫ সালে "ওল্ড কিউবেকের ঐতিহাসিক জেলা" হিসাবে ঘোষণা করা হয়।[১৪][১৫]

নগরীর ল্যান্ডমার্কগুলির মধ্যে রয়েছে চিটো ফ্রন্টেনাক হোটেল এবং কেবেকের সিটিডেল। চিটো ফ্রন্টেনাক হোটেল শহরের দিগন্ত দৃশ্যে আধিপত্য বিস্তার করে এবং কেবেকের সিটিডেল হল একটি অক্ষত দুর্গ, যা একটি দ্বিতীয় রাজকীয় আবাসের সাথে পুরাতন শহরটির চারপাশের রক্ষার ব্যবস্থার শৌখিন আসবাব গঠন করে।

ভূগোল[সম্পাদনা]

কেবেক শহরটি সেন্ট লরেন্স নদীর উত্তর তীরে গড়ে উঠেছে, যেখানে এটি সংকুচিত হয়েছে এবং সেন্ট-চার্লস নদীর মুখে মিলিত হয়। ওল্ড কেবেক ক্যাপ-ডায়াম্যান্টের শীর্ষ ও পাদদেশে অবস্থিত, যা মালভূমির পূর্ব প্রান্তে কেবেক শৈলান্তরীপ (কেবেক পাহাড়) নামে পরিচিত। এই ভূত্বাত্তিক বৈশিষ্ট্যের কারণে লা সিটি-লিমোইলো-এর প্রাচীনতম ও সর্বাধিক নগরায়িত বরোটিকে উচ্চ এবং নিম্ন শহরে ভাগ করা যায়।[১৬] পাহাড়ের উত্তরে, সেন্ট লরেন্স নিম্নভূমি সমতল ও সমৃদ্ধ, এখানে আবাদযোগ্য মাটি রয়েছে। এই উপত্যকার পরে লরেন্তিয়ান পর্বতমালা শহরের উত্তরে অবস্থিত তবে, এর পাদদেশগুলি পৌরসভার সীমানার মধ্যে।

শহরের দৃশ্য[সম্পাদনা]

স্থাপত্য[সম্পাদনা]

নগরীর বেশিরভাগ উল্লেখযোগ্য ঐতিহ্যবাহী স্থাপত্যটি দুর্গের অভ্যন্তরে ও নীচে ভিউক্স-কোয়েবেকে (ওল্ড কেবেক) অবস্থিত। এই অঞ্চলটি পাথরের ভবন এবং দোকান ও রেস্তোঁরাগুলিতে রেখাযুক্ত রাস্তাগুলির সাথে একটি স্বতন্ত্র ইউরোপীয় অনুভূতি রয়েছে। কেন্দ্রীয় শহরের আধুনিক অংশের থেকে দেয়ালগুলির মধ্য দিয়ে প্রধান ফটক দুটি হল পোর্তে সেন্ট-লুই এবং পোর্তে সেন্ট-জিন; কেন্ট গেটটি রানী ভিক্টোরিয়ার পক্ষ থেকে এই প্রদেশের জন্য উপহার ছিল এবং রানীর কন্যা প্রিন্সেস লুইস, লার্নের মার্চিনিয়াস ১৮৭৯ সালের ১১ জুন এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।[১৭] দেওয়ালের পশ্চিম অংশটি পার্লামেন্ট পাহাড় এবং দক্ষিণে অব্রাহামের সমভূমি

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

কেবেক সিটি[১৮]
বছরজন.±%
১৮৭১৭৬,৫৯৩—    
১৮৮১৮০,২৪৯+৪.৮%
১৮৯১৮০,৫৪৬+০.৪%
১৯০১৮৮,৬১৫+১০%
১৯১১ ১,০২,২১৪+১৫.৩%
১৯২১১,২২,৬৯৮+২০%
১৯৩১১,৬৮,২৪৯+৩৭.১%
১৯৪১১,৯৯,৫৮৮+১৮.৬%
১৯৫১২,৪৫,৭৪২+২৩.১%
১৯৫৬২,৭৯,৫২১+১৩.৭%
১৯৬১৩,২১,৯১৭+১৫.২%
১৯৬৬৩,৭২,৩৭৩+১৫.৭%
১৯৭১৪,০৮,৪৪০+৯.৭%
১৯৭৬৪,২৯,৭৫৭+৫.২%
১৯৮১৪,৩৪,৯৮০+১.২%
১৯৮৬৪,৪০,৫৯৮+১.৩%
১৯৯১৪,৬১,৮৯৪+৪.৮%
১৯৯৬৪,৭৩,৫৬৯+২.৫%
২০০১৪,৭৬,৩৩০+০.৬%
২০০৬৪,৯১,১৪২+৩.১%
২০১১৫,১৬,৬২২+৫.২%
২০১৬৫,৩১,৯০২+৩%

কানাডার পরিসংখ্যান মতে ২০১৬ সালে যথাক্রমে কেবেক সিটিতে বসবাসকারীর সংখ্যা হল ৫,৩১,৯০২ জন[১২] এবং মহানগর অঞ্চলের জনসংখ্যা হল ৮,০০,২৯৬ জন।[১৯] পূর্বের মোট জনসংখ্যার মধ্যে ৪৮.২% পুরুষ এবং ৫১.৮% মহিলা ছিল। পাঁচ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের সংখ্যা কেবেক শহরের আবাসিক জনসংখ্যার প্রায় ৪.৭% ছিল।

ভাষা[সম্পাদনা]

নগরবাসীর বেশিরভাগ অংশই স্থানীয় ফরাসি ভাষায় কথা বলেন। ইংরাজীভাষী সম্প্রদায়টি ১৮৬০-এর দশকে সংখ্যাগুরু ছিল, যখন কেবেক শহরের ৪০% বাসিন্দা ইংরেজি ভাষায় কথা বলত।[২০][২১] আজ, নেটিভ ইংরাজিভাষীরা শহর ও মহানগর উভয় অঞ্চলের জনসংখ্যার মাত্র ১.৫% গঠন করে।[২২]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

কেবিক সিটির বেশিরভাগ চাকরি সরকারি প্রশাসন, প্রতিরক্ষা, পরিষেবা, বাণিজ্য, পরিবহন এবং পর্যটন ক্ষেত্রে কেন্দ্রীভূত। প্রাদেশিক রাজধানী হিসাবে শহরটি একটি আঞ্চলিক প্রশাসনিক ও পরিষেবা কেন্দ্র হওয়ার উপকার পেয়েছে: আপোপস, প্রাদেশিক সরকার এই শহরের সবচেয়ে বড় নিয়োগকর্তা, সংস্থাটি ২০০৭ সালের মধ্যে ২৭,৯০০ জনকে নিয়োগ দিয়েছে।[২৩] সিএইচইউকিউ (স্থানীয় হাসপাতালের নেটওয়ার্ক) শহরের বৃহত্তম প্রাতিষ্ঠানিক নিয়োগকর্তা, ২০০৭ সালে সংস্থায় ১০,০০০ জনের বেশি কর্মচারী ছিল। ২০১৮ সালের জুন মাসে বেকারত্বের হার ছিল ৩.৮%, যা জাতীয় গড় (৬.০%) এর থেকে কম এবং কানাডার ৩৪ টি বৃহৎ শহরগুলির মধ্যে পিটারবার্গ (২.৭%) পরে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন, পিছনে।[২৪]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

লাভাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণের একটি গলি

পুরাতন কেবেকের "ভিউক্স-স্যামিনায়ার" ভবনের স্থাপত্য বিদ্যালয় বাদে সেন্টে-ফয়ের বরোতে অবস্থিত লাভাল বিশ্ববিদ্যালয় শহরের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের অংশ।

কেবেক শহরের উরসুলাইনদের নেতৃত্বে উত্তর আমেরিকার মহিলাদের প্রাচীনতম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে, এটি এখন একটি বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়।

নোট[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:NoteFoot

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Marceau, Stéphane G.; Rémillard, François (২০০২)। Ville de Québec (French ভাষায়) (4th সংস্করণ)। Montreal: Guides de voyage Ulysse। পৃষ্ঠা 14। আইএসবিএন 2-89464-510-4 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; toponymie নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  3. "Incorporation de Québec" 
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; mamrot নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  5. Canada, Government of Canada, Statistics। "Population and Dwelling Count Highlight Tables, 2016 Census" 
  6. Canada, Government of Canada, Statistics। "Population and Dwelling Count Highlight Tables, 2016 Census"। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  7. Government of Canada, Statistics Canada (৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭)। "Census Profile, 2016 Census – Québec [Population centre], Quebec and Ontario [Province]"www12.statcan.gc.ca 
  8. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; cp2011-CA নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  9. Vallières, Marc। "Québec City"। ২২ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১২ 
  10. Paré, Pierre (১ আগস্ট ১৯৮৫)। "La toponymie des Abénaquis" (PDF)Commission de toponymie Québec (ফরাসি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১৯ 
  11. Government of Canada, Natural Resources Canada। "Place names – Québec"www4.rncan.gc.ca। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১৯ 
  12. "Québec, Ville [Census subdivision], Quebec and Québec, Territoire équivalent [Census division], Quebec"Census 2016। Statistics Canada। 
  13. Canada, Government of Canada, Statistics। "Population and Dwelling Count Highlight Tables, 2016 Census"www12.statcan.gc.ca। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  14. "Historic District of Old Québec ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৮ জুন ২০১১ তারিখে". World Heritage; UNESCO. Retrieved 12 January 2009.
  15. "Old Quebec City, Seven Wonders of Canada"cbc.ca। ৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০০৮ 
  16. Geological Survey of Canada (১৯৯৯)। The 1988 Saguenay Earthquake – a Site Visit Report। পৃষ্ঠা 63। 
  17. Hubbard, R.H. (১৯৭৭)। Rideau Hallবিনামূল্যে নিবন্ধন প্রয়োজন। McGill-Queen's University Press। পৃষ্ঠা 49আইএসবিএন 978-0-7735-0310-6 
  18. "Évolution démographique des 10 principales villes du Québec (sur la base de 2116) selon leur limites territoriales actuelles1, Recensements du Canada de 1871 à 2011"। Stat.gouv.qc.ca। ৬ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১২ 
  19. Canada, Government of Canada, Statistics। "Population and Dwelling Count Highlight Tables, 2016 Census"www12.statcan.gc.ca। ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  20. Morrin Centre। "Anglos in Québec"। Literary and Historical Society of Quebec। ৬ মার্চ ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০০৭ 
  21. Blair, Louisa. The Anglos: The Hidden Face of Quebec City. Volume 1: 1608–1850; Volume 2: Since 1850. Québec: Commission de la capitale nationale du Québec & Éditions Sylvain Harvey, 2005.
  22. "Voice of English-speaking Québec: A Portrait of the English-speaking Community in Quebec"। Voice of English-speaking Québec। ২০০৭। ২৯ সেপ্টেম্বর ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০০৭ 
  23. "Canada's largest employers by city, 2007: Quebec City"University of Western Ontario। ১৮ এপ্রিল ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  24. "Here's a quick glance at unemployment rates for June, by Canadian city"Financial Post। ৬ জুলাই ২০১৮। ৯ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ অক্টোবর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


উদ্ধৃতি ত্রুটি: "note" নামক গ্রুপের জন্য <ref> ট্যাগ রয়েছে, কিন্তু এর জন্য কোন সঙ্গতিপূর্ণ <references group="note"/> ট্যাগ পাওয়া যায়নি, বা বন্ধকরণ </ref> দেয়া হয়নি