ওয়ালিমা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ওয়ালিমা (আরবি: وليمة‎‎ ওয়ালিমাহ), বা বিবাহ ভোজ, ইসলামী বিবাহের দুইটি ঐতিহ্যগত অংশের মধ্যে দ্বিতীয়। ওয়ালিমা নিকাহ (আরবি: نكاح‎‎) বা বিয়ের অনুষ্ঠানের পর সম্পন্ন করা হয়। আর ওয়ালিমা শব্দটি আলওয়ালাম থেকে উদ্ভূত হয়েছে, যেটির অর্থ একত্রিত করা। এটি দ্বারা আরবীতে ভোজকে নির্দেশ করা হয়। ওয়ালিমাকে বিবাহ-পরবর্তী বাসগৃহে সুখের প্রতীক হিসেবে দেখা হয়।[১] যদিও ওয়ালিমা প্রায়ই বিয়ের উদযাপন বর্ণনা করতে ব্যবহৃত হয়, কিন্তু এছাড়াও এটি দ্বারা নবজাতকের জন্ম এবং নতুন বাড়ি ক্রয় উদযাপনের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।

ওয়ালিমার সময়[সম্পাদনা]

ওয়ালিমার সঠিক সময় কোনটি সেটি সম্পর্কে পণ্ডিতদের বিভিন্ন মতামত আছে। এটির সময়কাল সংস্কৃতি এবং মতামত দ্বারা পরিবর্তিত হয়; উদাহরণস্বরূপ, কিছু মত অনুযায়ী এটি করা উচিত:

  • বিবাহের চুক্তির সময়
  • নিকাহর পর এবং পরিসমাপ্তির পূর্বে
  • বিবাহ যাত্রার সময় (ইবনে হাজার, ফাত আল-বারি, ৯/২৮৭)
  • পরিসমাপ্তির পর।

ওয়ালিমার অন্যান্য ব্যবহার[সম্পাদনা]

ওয়ালিমা'র আক্ষরিক অনুবাদের অর্থ "একত্রিত" এবং জীবনের প্রধান ঘটনার সমাবেশ বা অনুষ্ঠান উদযাপন বর্ণনা করতে এটি ব্যবহৃত হয়। ওয়ালিমা মূলত আমেরিকান এবং ইংরেজি শব্দের সাথে বিনিময়যোগ্য, যেমন: বিবাহ অভ্যর্থনা বা উদযাপন (যখন বিবাহ উদযাপন করা হয়), জন্মদিনের অনুষ্ঠান (যখন নবজাতকের জন্ম উদযাপন করা হয়), অথবা হাউসওয়ার্মিং অনুষ্ঠান (যখন নতুন বাড়ি ক্রয় উদযাপন করা হয়)। একইভাবে, ওয়ালিমা সাধারণত অন্যান্য ভাষা/সংস্কৃতির শব্দের সাথে বিনিময়যোগ্য, যেটি দ্বারা মূলত বুঝানো হয় বিবাহ, নবজাতক অথবা নতুন বাড়ি উদযাপনের উদ্দেশ্যে একত্র করা। যেহেতু এটি একটি আরবি শব্দ, আর শব্দটি আবশ্যকভাবে মুসলিমদের জন্য সংরক্ষিত নয়, বরং শব্দটি কেবল এমন অনুষ্ঠানের বর্ণনা করে যা উদযাপন করা হয়।

হাদীসে ওয়ালিমা[সম্পাদনা]

"আনাস ইবনু মালিক থেকে বর্ণিতঃ আবদুর রাহমান ইবনু আওফ -এর গায়ে (বা পোশাকে) রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) হলুদ রং-এর চিহ্ন দেখে প্রশ্ন করেন। কি ব্যাপার! তিনি বললেন, আমি এক মহিলাকে একটি খেজুর আঁটির অনুরূপ পরিমাণ সোনার বিনিময়ে বিয়ে করেছি। রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বললেনঃ তোমায় আল্লাহ তা’আলা বারকাত দিন, ওয়ালীমার আয়োজন কর তা একটি ছাগল দিয়ে হলেও।"[২]

"ইবনু ‘উমার (রাযিঃ) থেকে বর্ণিতঃ তিনি বলেন, রসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেন: যখন তোমাদের কাউকে ওয়ালীমার দা’ওয়াত দেয়া হয়, সে যেন ঐ দা’ওয়াতে সাড়া দেয়।"[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]