ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক
البنك المركزي العماني
ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের লোগো.png
প্রধান কার্যালয়Ruwi ওমান
স্থানাঙ্ক২৩°৩৬′১″ উত্তর ৫৮°৩২′৪৮″ পূর্ব / ২৩.৬০০২৮° উত্তর ৫৮.৫৪৬৬৭° পূর্ব / 23.60028; 58.54667
স্থাপিতডিসেম্বর ১৯৭৪ (1974-12)
মালিকানাওমান সরকার
যার কেন্দ্রীয় ব্যাংকওমান
মুদ্রাওমানি রিয়াল
OMR (আইএসও ৪২১৭)
ওয়েবসাইটwww.cbo-oman.org

ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক (সিবিও) ১৯৭৪ সালের ডিসেম্বরে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১ এপ্রিল ১৯৭৫ সালে কার্যক্রম শুরু করে। ওমানের মূল মুদ্রা কর্তৃপক্ষ ওমান মুদ্রা বোর্ড থেকে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে, এটি গভর্নর বোর্ডের উপ-চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলী বিন মোহাম্মদ বিন মুসা সিবিও’র প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।[১][২]

ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক দেশটির জাতীয় মুদ্রা ওমানি রিয়ালের স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য কাজ করে এবং একটি অনিয়ন্ত্রিত ও মুক্ত অর্থনৈতিক ব্যবস্থা মুদ্রা ও আর্থিক স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করে। ১৯৭৫ সালে কার্যক্রম শুরুর সময় সিবিও'র মূলধন এক মিলিয়ন ওমানী রিয়াল ছিল, যা সময়ের সাথে সাথে শক্তিশালী হয়ে ২০০২ সালের এপ্রিল মাসে এসে দাঁড়ায় ৩০০ মিলিয়ন ওমানী রিয়াল। ২০০৫-এর শেষ দিকে, সিবিও'র সম্পদ/দায়ের মোট পরিমাণ ছিল ১৮২৬.৪ মিলিয়ন ওমানী রিয়াল।

ওমানি ব্যাংকিং পদ্ধতি ১৯৯০-এর দশকে বহু অধিগ্রহণ অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছে এবং ফলে ২০০৫ সালের শেষে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর সংখ্যা ১৩-তে দাঁড়িয়েছে। যার মধ্যে সারা দেশ জুড়ে পাঁচটি স্থানীয় ব্যাংক এবং আটটি বিদেশী ব্যাংকের শাখাসহ মোট ৩২৯টি শাখা অন্তর্ভুক্ত। এছাড়া স্থানীয় ব্যাংকগুলোর বিদেশে ১০টি শাখা এবং একটি প্রতিনিধি কার্যালয় রয়েছে। ২০০৫ সালের শেষের দিকে, ২৬টি শাখার নেটওয়ার্ক নিয়ে তিনটি বিশেষায়িত ব্যাংক ছিল। সিবিও একটি অতিরিক্ত স্থানীয় ব্যাংক (সোহর ব্যাংক) প্রতিষ্ঠার অনুমোদন দিয়েছে এবং একটি বৈদেশিক ব্যাংকের (ব্যাংক অব বৈরুত) অনুমোদন দিয়েছে, যা ২০০৬ সালের শেষ নাগাদ অপারেশন শুরু করবে বলে আশা করা হচ্ছে। লাইসেন্সপ্রাপ্ত ব্যাংকগুলোর আর্থিক অবস্থানকে জোরদার করার জন্য এবং তাদের প্রতিযোগিতার পাশাপাশি বড় প্রকল্পগুলো অর্থায়ন করতে সক্ষম হওয়ার জন্য বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর জন্য সর্বনিম্ন মূলধন প্রয়োজন হল স্থানীয় ব্যাংকগুলোর জন্য ৫০ মিলিয়ন এবং বিদেশি ব্যাংকগুলোর জন্য ১০০ মিলিয়ন ওমানি রিয়াল। ২০০৫ সালে, বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর সামগ্রিক মূলধন পর্যাপ্ততা অনুপাত ১৮.৫ শতাংশে উন্নীত হয়েছিল।

সিবিও ব্যাংক ডিপোজিট বিমা সিস্টেমের অর্থায়নকেও পরিচালনা এবং অংশগ্রহণ করে যা বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর আমানতের জন্য উচ্চমানের নিরাপত্তা প্রদান করে এবং কোনো অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতিতে প্রভাব থেকে রক্ষা করে।

বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর জন্য সিবিও-এর প্রাথমিক সতর্কতা ব্যবস্থাও রয়েছে যা সম্ভাব্য আর্থিক সংকটগুলোর জন্য পূর্বাভাস দিতে সক্ষম এবং প্রয়োজনে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থাও গ্রহণ করে। সিবিও-এর পক্ষ থেকে নেয়া বিভিন্ন আর্থিক নীতিমালাকে দু’ভাবে শ্রেণীবদ্ধ করা যেতে পারে; পরোক্ষ নীতিমালা এবং সরাসরি নীতিমালা। পরোক্ষ নীতিমালার (বাজার ভিত্তিক) ব্যবস্থাগুলোতে সিকিউরিটিজ ক্রয় ও বিক্রি, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিজস্ব সিকিউরিটিজ ইস্যু করা, সোয়্যাপস ইত্যাদি কাজের জন্য এবং সরাসরি নীতিমালা সিবিও দ্বারা ব্যবহৃত উপকরণ মূলত রিজার্ভ প্রয়োজনীয়তা এবং ঋণ অনুপাতের জন্য ব্যবহৃত হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৭০ সাল পর্যন্ত, যখন এইচ এম সুলতান কাবুওস বিন সাইদ ক্ষমতা গ্রহণ করেন, তখন দেশে প্রাথমিক ব্যাংকিং ব্যবস্থার তত্ত্বাবধানে কোনও জাতীয় কর্তৃপক্ষ দায়ী ছিল না। ব্যাংকগুলোর সংখ্যা ছিল নগন্য এবং ব্যাংকিং কার্যক্রমও ছিল সীমিত। ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করার পূর্বে দুটি আর্থিক কর্তৃপক্ষ ছিল; ১৯৭০ সালের মাস্কট মুদ্রা কর্তৃপক্ষ এবং ১৯৭২ সালের ওমান মুদ্রা বোর্ড, যাদের হাতে সম্পূর্ণ ব্যাংকিং ব্যবস্থা ন্যস্ত ছিল না। কিন্তু তারা ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রতিষ্ঠার জন্য ক্ষেত্র প্রস্তুত করেছিল। তবে ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক সৃষ্টির প্রধান ঘটনা হল, ১৯৭৪ সালের ব্যাংকিং আইন চালু করা (যা রয়্যাল ডিক্রি নম্বর ১১৪/২০০০-এর মাধ্যমে সংশোধিত)।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক"www.cbo-oman.org। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-২১ 
  2. Worldfolio, The। "ওমানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক"www.theworldfolio.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-২১