এনএমই

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নিউ মিউজিক্যাল এক্সপ্রেস
NME logo free.svg
এনএমই-এর লোগো, এপ্রিল ২০১০ সাল থেকে
সাবেক সম্পাদকশার্লোট গান (মার্চ ২০১৮ – ফেব্রুয়ারি ২০২০)
সাবেক সম্পাদক
বিভাগসঙ্গীত ওয়েবসাইট (পূর্বে সাময়িকী)
প্রকাশনা সময়-দূরত্বসাপ্তাহিক
সংবহন২৮৯,৪৩২ (এবিসি জুলাই – ডিসেম্বর ২০১৭)[১]
মুদ্রণ সংস্করণ
প্রতিষ্ঠাতাথিওডোর ইঙ্গহাম
প্রতিষ্ঠার বছর১৯৫২; ৬৮ বছর আগে (1952)
প্রথম প্রকাশ৭ মার্চ ১৯৫২
সর্বশেষ প্রকাশ৯ মার্চ ২০১৮ (মৃুদ্রণ)
অগ্রসরমান (ডিজিটাল)
কোম্পানিব্যান্ডলব টেকনোলজিস
দেশযুক্তরাজ্য
ভিত্তিSouthwark, লন্ডন, ইংল্যান্ড
ভাষাইংরেজি
ওয়েবসাইটNME.com
আইএসএসএন0028-6362

নিউ মিউজিকাল এক্সপ্রেস (এনএমই) একটি ব্রিটিশ সঙ্গীত সাংবাদিকতা ওয়েবসাইট যা পূর্বে ১৯৫২ সাল থেকে সাময়িকী হিসেবে প্রকাশিত হয়েছিল। ১৯৫২ সালের ১৪ নভেম্বর সংস্করণে এটি প্রথম ব্রিটিশ পত্রিকা হিসেবে একক চার্ট অন্তর্ভুক্ত করেছিল। ১৯৭০-এর দশকে এটি সর্বোচ্চ বিক্রয়কৃত জনপ্রিয় ব্রিটিশ সংগীত পত্রিকা হয়ে ওঠে। ১৯৭২ থেকে ১৯৭৬ সাল পর্যন্ত এটি গঞ্জো সাংবাদিকতার সাথে বিশেষভাবে যুক্ত ছিল, তারপরে জুলি বুর্চিল, পল মুরলি এবং টনি পার্সনসের লেখার মাধ্যমে পাংক রকের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত হয়েছিল। এটি একটি সঙ্গীত সংবাদপত্র হিসেবে শুরু হয়েছিল এবং ১৯৮০ সালে সংবাদগত্র থেকে পরিবর্তিত হয়ে ১৯৮০ এবং ১৯৯০-এর দশকে ধীরে ধীরে একটি সাময়িকীর গঠনে রুপ নেয়।

১৯৯৬ সালে এনএমই.কম হিসেবে সাময়িকী ওয়েবসাইটটি চালু হয়েছিল। ইতোমধ্যে প্রতিমাসে ষোল মিলিয়নের অধিক ব্যবহারকারী সহ বিশ্বের বৃহত্তম স্ট্যান্ডেলোন সঙ্গীত সাইট হয়ে উঠে। ২০১৩ সালে, "সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ৫০০ অ্যালবামের তালিকা" ড়ণমাধ্যমে সমালোচিত হয়েছিল।[২][৩] ইউকে সাময়িকী খাত জুড়ে নিউজস্ট্যান্ডের বিক্রয় হ্রাস পাওয়ায়, ২০১৪ সালের প্রথমার্ধে সাময়িকীর সংবহন ছিল ১৫,৮৩০।[৪]

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে, এনএমই সাময়িকীটি একটি মুক্ত প্রকাশনা হিসেবে জাতীয়ভাবে বিতরণ করার জন্য পুনরায় চালু করা হয়েছিল।[৫] ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি প্রতি সপ্তাহে ৩০৭,২১৭ কপি প্রকাশ প্রথম গড় ব্র্যান্ডের ইতিহাসে সর্বাধিক ছিল যা পূর্ববর্তী ৩০৬,৮৮১ সংখ্যক প্রকাশনাকে পরাজিত করেছিল এবং ১৯৬৪ সালে বিটলসের খ্যাতির শীর্ষে অবস্থান নিয়েছিল।[৬] ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে অডিট ব্যুরো অব সার্কুলেশনের মতে, এনএমইর গড় বিতরণ এক সপ্তাহে ২৮৯,৪৩২ কপি দাঁড়িয়েছিল,[৭] যদিও এর তৎকালীন প্রকাশক টাইম ইনক. ইউকে যুক্তরাজ্যে ৩ মিলিয়ন সহ প্রতি মাসে ১৩ মিলিয়নেরও অধিক বিশ্বব্যাপী অনন্য ব্যবহারকারী রয়েছে বলে দাবি করেন।[৮] ২০১৮ সালের মার্চে প্রকাশক ঘোষণা করেছিলেন যে, এনএমইএর মুদ্রণ সংস্করণটি ৬৬ বছর পরে প্রকাশনা বন্ধ করবে এবং কেবলমাত্র অনলাইনে প্রকাশনায় সক্রিয় থাকবে।[৯][১০]

এনএমই-র সদর দফতর ইংল্যান্ডের লন্ডনের সাউথওয়ার্কে অবস্থিত।[১১] ব্র্যান্ডের সর্বাধিক সাম্প্রতিক সম্পাদক ছিলেন শার্লট গন, পরিবর্তে মাইক উইলিয়ামের,[১১] যিনি ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে পদত্যাগ করেছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ABC Certificates and Reports: New Musical Express" (PDF)Audit Bureau of Circulations। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  2. Hann, Michael (২৪ অক্টোবর ২০১৩)। "What's the difference between best and favourite albums?"Theguardian.com। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০১৪ 
  3. Kaye, Ben (২৫ অক্টোবর ২০১৩)। "The Top 500 Albums of All Time, according to NME"Consequence of Sound। সংগ্রহের তারিখ ৪ আগস্ট ২০১৪ 
  4. Reynolds, John (১৬ আগস্ট ২০১২)। "NME and Q suffer major circulation falls"Media Week। London। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  5. "NME magazine to be given away free"BBC News। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৫ 
  6. শেরউইন, অ্যাডাম। "NME readership soars past 1960s Beatles peak six months after going free"independent.co.uk। সংগ্রহের তারিখ ২০ নভেম্বর ২০১৬ 
  7. "NME average circulation". Audit Bureau of Circulations Ltd, 15 February 2018.
  8. মেহিউ, ফ্রেডি; কাকার, অরুণ (৮ মার্চ ২০১৮)। "NME faced "ongoing losses""প্রেস গেজেটে 
  9. মেহিউ, ফ্রেডি (৭ মার্চ ২০১৮)। "NME to stop publishing weekly print magazine"প্রেস গেজেটে 
  10. প্যট্রিডেস, অ্যালেক্সিস (৭ মার্চ ২০১৮)। "Farewell to NME: a rock'n'roll riot that petered into silence | Alexis Petridis"The Guardian (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০১৮ 
  11. "Contact Us : NME.COM"NME.com। New Musical Express। সংগ্রহের তারিখ ২১ অক্টোবর ২০১৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]