উইলিয়াম ফ্রান্সিস গ্যানং জুনিয়র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
উইলিয়াম ফ্রান্সিস গ্যানং জুনিয়র
William Francis Ganong Jr.
জন্ম(১৯২৪-০৭-০৬)৬ জুলাই ১৯২৪
নর্থাম্পটন, মাসাসুসেট্‌ছ
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যু২৩ ডিসেম্বর ২০০৭(২০০৭-১২-২৩) (৮৩ বছর)
আলবানী, ক্যালিফোর্নিয়া
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
বাসস্থানআলবানী, ক্যালিফোর্নিয়া
শিক্ষাহার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুল
পেশাবিজ্ঞানী, শিক্ষাবিদ, লেখক
দাম্পত্য সঙ্গীরুথ জ্যাকসন
সন্তানফ্রান্সিস, সুজান, আনা, জেমস
পিতা-মাতাউইলিয়াম ফ্রান্সিস গ্যানং &
আনা হলেট

উইলিয়াম ফ্রান্সিস গ্যানং জুনিয়র (July 6, 1924[১] – December 23, 2007[২]) একজন আমেরিকান শরীরতত্ত্ববিদমস্তিষ্ক কিভাবে শরীরের গুরুত্বপূর্ণ আভ্যন্তরীণ কাজগুলি নিয়ন্ত্রণ করে সেটি আবিষ্কার করা বিজ্ঞানীদের মধ্যে তিনি অন্যতম। তার বাবা ছিলেন বিখ্যাত উদ্ভিদ বিজ্ঞানী এবং স্মিথ কলেজের অধ্যাপক উইলিয়াম ফ্রান্সিস গ্যানং সিনিয়র

হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুল থেকে শিক্ষা লাভ করে তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ এবং কোরিয়ান যুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনা বিভাগে কাজ করেছিলেন।

নিউরোএণ্ডোক্রাইনোলজিষ্ট হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়ে তিনি ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শরীরতত্ত্বের লেঞ্জ আসনের অধ্যাপক হন।[৩] তিনি ১৯৭৭-৭৮ সালে আমেরিকান ফিজিয়োলজিকাল সোসাইটির ৫০তম সভাপতি হিসাবেও কার্যনির্বাহ করেছিলেন।[৪] গবেষণাকালে তিনি আবিষ্কার করেন যে রক্তচাপ এবং ফ্লুইডের ভারসাম্যতা বা শরীরের লবণ এবং জলের স্তর অ্যাড্রিনাল গ্রন্থি এবং বৃক্কই নিয়ন্ত্রণ করে। এই আবিষ্কার উচ্চ রক্তচাপের চিকিৎসার বিকাশে প্রভূত সহায়তা করে। হৃদপিন্ডের ছন্দে প্রভাব ফেলা "লোন-গ্যানং-লেভাইন সিন্ড্রোম" আবিষ্কারে তিনি ভূমিকা পালন করেছিলেন।

তাঁর লেখা শরীরতত্ত্বের বই Review of Medical Physiology ছাত্র-শিক্ষকদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়। ১৯৬৩ সালে প্রথম প্রকাশিত এই বইয়ের বর্তমান ২৫তম সংস্করণ প্রকাশ পেয়েছে এবং ১৮ টা ভাষায় অনূদিত হয়েছে।

২০০৭ সালের ২৩ ডিসেম্বর ক্যালিফোর্নিয়ার আলবানীতে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

তথ্য উৎস[সম্পাদনা]

  1. [১] 2002 bio
  2. "Leading UCSF neuroendocrinologist and medical leader dies"। ১৯ জানুয়ারি ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মে ২০১৮ 
  3. [২] 2003 citation
  4. "APS presidents"। ২৯ আগস্ট ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ ডিসেম্বর ২০১৮