ইলেক্ট্রা কমপ্লেক্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Electra complex: Electra at the Tomb of Agamemnon, by Frederic Leighton, c.1869

ইলেকট্রা কমপ্লেক্স (Electra complex) হ'ল ফ্রয়েডীয় মনোবিজ্ঞানের এক আলোড়নকারী ধারণা ।সংক্ষেপে বলতে গেলে ইলেকট্রা কমপ্লেক্স হ'ল কন্যা সন্তানের পিতার প্রতি থাকা এক ধরনের অবচেতন যৌন কামনা। মানুষের ব্যক্তিত্ব বিকাশ সর্বমোট পাঁচটা স্তরের মধ্যে দিয়ে সম্পূর্ণ হয়। যথাঃ ১)মৌখিক অবস্থা (oral stage), ২)পায়ু অবস্থা (anal stage), ৩)শিশ্ন অবস্থা (phallic stage), ৪)সুপ্তযৌন অবস্থা (latency stage), ৫)উপস্থ অবস্থা (genital stage)। ইলেকট্রা কমপ্লেক্স সংঘটিত হয় এর তৃতীয় স্তরে শিশ্ন অবস্থায় (৩ - ৬ বছর বয়সে) নিজ দেহের যৌন-সংবেদী অঞ্চলগুলির সুখদায়ক অনুভূতির সময়।[১] বিশ্ববিখ্যাত মনোবিজ্ঞানী সিগমাণ্ড ফ্রয়েডের মতবাদ অনুসারে, শৈশব কালেতেই কন্যা সন্তানদের পিতার প্রতি এক ধরনের অনুরাগ অথবা আকর্ষণ গড়ে ওঠে ও এই অনুরাগ গড়ে সন্তানের অকালজাত যৌন চেতনার প্রভাবে। এর সমান্তরালভাবে কন্যাসন্তানদের মনে মায়ের প্রতি এক ধরনের বিরাগ বা বিকর্ষণ ঠাই নেয়।[২] ইলেকট্রা কমপ্লেক্সের ধারণাটি গ্রীস দেশের এক পৌরাণিক লোক-কাহিনীর সাথে জড়িত হয়ে আছে।এই কাহিনী অনুসারে, ইলেকট্রা নামে একজন নারী যে তাঁর এক ভাইয়ের সঙ্গে মিলে নিজের মাকে হত্যা করে পিতার সাথে বিয়ে করেছিল।[৩][৪][৫] এই কাহিনীকে মনে করে সিগমাণ্ড ফ্রয়েড কন্যা সন্তানের এই অসুস্থ যৌন মানসিকতাটির নাম রেখেছিলেন নারীবাদী ইডিপাস মনোভাব বা ঋণাত্মক ইডিপাস কমপ্লেক্সইলেকট্রা কমপ্লেক্স শব্দটি কার্ল ইয়াং ১৯১৩ সালে সর্বপ্রথম প্রচলন করেন। [৬][৭][৮]

Electra and Orestes, matricides

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Bullock, A., Trombley, S. (1999) The New Fontana Dictionary of Modern Thought Harper Collins:London pp. 259, 705
  2. "Sigmund Freud 1856–1939"Encyclopaedia of German Literature। London: Routledge। ২০০০। সংগ্রহের তারিখ ২ সেপ্টেম্বর ২০০৯ 
  3. Murphy, Bruce (১৯৯৬)। Benét's Reader's Encyclopedia (4th সংস্করণ)। New York: HarperCollins Publishers। পৃষ্ঠা 310। 
  4. Bell, Robert E. (১৯৯১)। Women of Classical Mythology: A Biographical Dictionary। California: Oxford University Press। পৃষ্ঠা 177–178। 
  5. Hornblower S, Spawforth A (১৯৯৮)। The Oxford Companion to Classical Civilization। পৃষ্ঠা 254–255। 
  6. Jung, Carl (1913). The Theory of Psychoanalysis.
  7. Scott, Jill (২০০৫)। Electra after Freud: Myth and Culture। Cornell University Press। পৃষ্ঠা 8। আইএসবিএন 978-0-8014-4261-2 
  8. Jung, Carl (১৯৭০)। Psychoanalysis and Neurosis। Princeton University Press। .

আরও জানুন[সম্পাদনা]

  • Breuer J., Freud S. (১৯০৯)। Studies on Hysteria। Basic Books। 
  • De Beauvoir, S. (১৯৫২)। The Second Sex। New York: Vintage Books। 
  • Freud, S. (১৯০৫)। Dora: Fragment of an Analysis of a Case of Hysteria। New York: W.W. Norton & Company। 
  • Freud, S. (১৯২০)। "A Case of Homosexuality in a Woman"। The Complete Psychological Works of Sigmund Freud। New York: Hogarth Press। 
  • Lauzen, G. (১৯৬৫)। Sigmund Freud: The Man and his Theories। New York: Paul S. Eriksson, Inc.। 
  • Lerman, H. (১৯৮৬)। A Mote in Freud's Eye। New York: Springer Publishing Company। 
  • Mitchell, J. (১৯৭৪)। Psychoanalysis and Feminism। New York: Vintage Books। 
  • Tobin, B. (১৯৮৮)। Reverse Oedipal Complex Analysis। New York: Random House Publishing Company। 

টেমপ্লেট:Incest টেমপ্লেট:Electra টেমপ্লেট:Oedipus টেমপ্লেট:Jung