ইর্তিশ নদী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইর্তিশ নদী
ওব-ইর্তিশ নদীর অববাহিকা
দেশরাশিয়া, কাজাকিস্তান, চীন, মঙ্গোলিয়া
অববাহিকার বৈশিষ্ট্য
মোহনাওব নদী
প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য
দৈর্ঘ্য৪,২৪৯ কিমি

ইর্তিশ নদী (রুশ: Иртыш; Kazakh: Ертiс / Yertis; Chinese: 额尔齐斯河, pinyin: É'ěrqísī hé; Uyghur: ئېرتىش; Mongolian: Эрчис мөрөн/Erchis,[১] "erchleh", "twirl"; তাতার: Cyrillic Иртеш, Latin İrteş) ওব নদীর প্রধান উপনদী এবং রাশিয়ার দ্বিতীয় দীর্ঘতম নদী। ওব ও ইর্তিশ নদীব্যবস্থাটির মিলিত দৈর্ঘ্য ৫,৪১০ কিলোমিটার এবং এটি এশিয়া মহাদেশের দীর্ঘতম নদীব্যবস্থা।

চীনের শিঞ্চিয়াং উইগুর স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের আলতাই পর্বতমালার দক্ষিণ-পশ্চিম ঢাল বেয়ে নেমে আসা হিমবাহ ও জলধারা থেকে ইর্তিশ নদীর উৎপত্তি। উপরের অংশে এটি কৃষ্ণ ইর্তিশ নদী নামে পরিচিত। কৃষ্ণ ইর্তিশ পশ্চিমদিকে কাজাখস্তানের জুংগারিয়ান অববাহিকার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে জেসান হ্রদে পড়েছে। এই জেসান হ্রদ থেকে নদীটি ইর্তিশ নামে নিঃসরিত হয়ে আলতাই পর্বতমালার পশ্চিম অংশের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে রাশিয়াতে প্রবেশ করেছে। এখানে পশ্চিম সাইবেরীয় সমভূমিতে এটি অনিয়মিতভাবে প্রবাহিত হয়ে খান্তি-মান্সিস্ক শহরের কাছে ওব নদীতে পড়েছে। ইর্তিশ নদীর মোট দৈর্ঘ্য ৪,২৪৯ কিলোমিটার। এর অববাহিকার আয়তন প্রায় ১৬,৪৩,০০০ বর্গকিলোমিটার। ইর্তিশ নদীর প্রধান উপনদীর মধ্যে আছে ইশিম, তোবোল এবং তারা। বছরের অর্ধেক সময় ধরে ইর্তিশ বরফমুক্ত থাকে। এসময় এর পুরো দৈর্ঘ্য জুরে নৌপরিবহন সম্ভব। ইর্তিশ নদীর তীরে অবস্থিত গুরুত্বপূর্ণ শিল্পশহর ও কাঠ উৎপাদন কেন্দ্রের মধ্যে আছে ওস্কেমেন, সেমেই এবং পাভলোদার। ওমস্ক শহরের কাছে আন্তঃসাইবেরীয় রেলপথ ইর্তিশ নদীকে অতিক্রম করেছে।

ইর্তিশ নদী একটি গুরুত্বপূর্ণ উত্তর-দক্ষিণ পরিবহন পথ। এটি রুশদেরকে সাইবেরিয়া বিজয়ে সহায়তা করেছিল। ১৯১৮-১৯১৯ সালে রুশ গৃহযুদ্ধের সময় বলশেভিক-বিরোধী নেতা অ্যাডমিরাল আলেকসান্দর ভাসিলিয়েভিচ কলচাক ওম্‌স্ককে তার রাজধানী বানান।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]