ইন্দ্রা কিউ জিন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইন্দ্রা কিউ জিন
အိန္ဒြာကျော်ဇင်
জন্ম
ইন্দ্রা কিউ জিন

(1977-04-24) ২৪ এপ্রিল ১৯৭৭ (বয়স ৪২)
পেশাঅভিনেত্রী, মডেল
কার্যকাল১৯৯৮ – বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীপ্যায় তি উ
সন্তানপ্যায় থ্রুদ্রা, প্যায় ডি ইয়া
পিতা-মাতাকিউ জিন, মিয়া থিদা
পুরস্কারমায়ানমার একাডেমী পুরস্কার (২০০৪)

ইন্দ্রা কিউ জিন (বর্মী: အိန္ဒြာကျော်ဇင်, উচ্চারিত: [ʔèiɴdɹà tɕɔ̀ zɪ̀ɴ]; জন্ম: ২৪ এপ্রিল ১৯৭৭) হচ্ছেন মায়ানমার একাডেমী পুরস্কার বিজয়ী চলচ্চিত্র একজন অভিনেত্রী এবং টিভি বিজ্ঞাপনের মডেল। একই সাথে কিউ জিন হচ্ছেন একজন শিল্পী, চিত্রশিল্পী এবং বর্মী বিনোদন শিল্পের অন্যতম একজন তারকা। ২০০৪ মায়ানমার একাডেমী পুরস্কারে তিনি ফ্লির্টাসিয়াস স্কাই (မျက်နှာများတဲ့ မိုးကောင်းကင်)-এর জন্য সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জয়লাভ করেন।[১]

প্রথম জীবন[সম্পাদনা]

ইন্দ্রা কিউ জিন মায়ানমারের ইয়াঙ্গুনের একটি সুখি দম্পত্তি মিয়া থিদা ও কিউ জিনের ঘরে ১৯৭৭ সালের ২৪ এপ্রিল জন্মগ্রহণ করেন। তিনি হচ্ছেন আধুনিক বর্মী সেনাবাহিনীর ৩০ কমরেডদের মধ্যে অন্যতম, বো জেয়ার নাতনী। একই সাথে তিনি হচ্ছেন দাগন টায়ার ভাইঝি, যিনি হচ্ছেন একজন লেখক। এবং সর্বশেষে তিনি হচ্ছেন গায়িকা হায়মা নে উইন এবং গায়ক ও চলচ্চিত্র তারকা ইয়াজা নে উইনের চাচাতো ভাই। ইন্দ্রা কিউ জিন ইয়াঙ্গুনের দাগন ১ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন। তিনি সেখানে রসায়ন বিভাগে বিএসসি সম্পন্ন করেন।[২]

রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি[সম্পাদনা]

২০০৩ সালের ডিসেম্বর মাসে, ইন্দ্রা কিউ জিনকে "ইরাবাদি"র দায়ে অভিযুক্ত করা হয়। উক্ত অভিযোগে বলা হয় যে তিনি "সুস্পষ্ট দেশপ্রেম" প্রকাশ করেননি। পরবর্তীতে ইন্দ্রা কিউ জিন থাইল্যান্ডের চলচ্চিত্র "বঙ্গ রাজান"-এ অভিনয় করেছেন, যেখানে বার্মার প্রতি থাই সাম্রাজ্যের ১৮ শতকের আগ্রাসনের এক দৃশ্য তুলে ধরা হয়েছিল। ২০০১ সালের প্রথম দিকে ফ্রান্সের প্যান-এশীয় চলচ্চিত্র উৎসবে উক্ত ছবিটি দেখানো হয়েছিল। ইন্দ্রা কিউ জিন চলচ্চিত্রের শেষ হওয়ার আগেই থিয়েটার থেকে বেরিয়ে আসেন। উক্ত চলচ্চিত্রের পরিচালক, থানিত জিতনুকুল, যিনি সেই উৎসবের সেরা পরিচালকের পুরস্কার গ্রহণ করেন, সেই দিন কিউ জিনের সাথে দেখা হওয়ার কথা উল্লেখ করে বলেন: "তিনি খুব বন্ধুত্বপূর্ণ ছিলেন।" তিনি আরো বলেন যে "তারপর তিনি আমার সিনেমা সম্পর্কে আমাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন। আমি তাকে আমার চলচ্চিত্রের নামটি বলি, এবং অতঃপর তিনি আমার সাথে কথা বলায় অসম্মতি প্রকাশ করেন।"[৩]

বিবাহ[সম্পাদনা]

তিনি ২০১১ সালের জানুয়ারি মাসের ১ তারিখে অভিনেতা প্যায় তি উর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তিনি ২০১১ সালের ১৪ অক্টোবর এবং ২০১৫ সালের ২৭ আগস্টে যথাক্রমে তার ছেলে এবং তার কন্যাকে জন্ম দেন।

সামাজিক কাজ[সম্পাদনা]

ইন্দ্রা কিউ জিন সামাজিকভাবে বিভিন্ন সম্প্রদায় এবং বিভিন্ন বর্মী দাতব্য প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত রয়েছেন এবং তার সহকর্মীদের দ্বারা দেশের তরুণ মহিলাদের জন্য একটি উৎকৃষ্ট আদর্শ হিসাবে বিবেচিত হন।[১]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

  • পিয়াউ লাই কেয়া ইয়া আউং (২০০০)
  • মিয়েত-হানা মিয়া দে মোয়ে কাউংকিন (২০০৪)
  • মডেল এ-চিট-মিয়া (২০০৫) – লউইন মোয়ে এবং জারগানার এর সাথে

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. May Oo Moe (২০০৭-১১-১২)। "Who is the real Eindra Kyaw Zin"The Myanmar Times। ২০১২-০৯-২৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "Wedding Announcement for Eindra Kyaw Zin and Pyay Ti Oo"। The Mandalay Gazette (বর্মী ভাষায়)। Arcadia, CA। 4 (9): A3। ফেব্রুয়ারি ২০১১। 
  3. "No Kissing Cousins"The Irrawaddy। ডিসেম্বর ২০০৩। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]