আ স্ক্যান্ডেল ইন বোহেমিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
"আ স্ক্যান্ডেল ইন বোহেমিয়া"
A Scandal in Bohemia-04.jpg
সিডনি প্যাজিট কৃত অলংকরণ, ১৮৯১
লেখকআর্থার কোনান ডয়েল
দেশযুক্তরাজ্য
ভাষাইংরেজি
ধারাবাহিকদি অ্যাডভেঞ্চারস অফ শার্লক হোমস
বর্গছোটোগল্প
প্রকাশনার তারিখ১৮৯১
পরবর্তী রচনা"দ্য রেড-হেডেড লিগ"

"আ স্ক্যান্ডেল ইন বোহেমিয়া" (ইংরেজি: "A Scandal in Bohemia"; অনুবাদ: "বোহেমিয়ায় কেলেংকারি") হল আর্থার কোনান ডয়েল সৃষ্ট কাল্পনিক গোয়েন্দা চরিত্র শার্লক হোমসের কীর্তিকলাপ নিয়ে লেখা প্রথম ছোটোগল্প এবং সামগ্রিকভাবে তৃতীয় রচনা। এটিই ডয়েলের লেখা ৫৬টি শার্লক হোমস ছোটোগল্পের মধ্যে তথা সিডনি প্যাজিট চিত্রিত ৩৮টি শার্লক হোমস রচনার মধ্যে প্রথম। গল্পটি আইরিন অ্যাডলার নামক চরিত্রটির উপস্থাপনার জন্য বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। মাত্র একটি গল্পে উপস্থাপিত হলেও এই চরিত্রটি সমগ্র শার্লক হোমস ধারাবাহিকের সর্বাপেক্ষা উল্লেখযোগ্য নারী চরিত্র।[১] ডয়েল তাঁর নিজের প্রিয় বারোটি হোমস কাহিনির তালিকায় "আ স্ক্যান্ডেল ইন বোহেমিয়া" গল্পটিকে পঞ্চম স্থান দিয়েছিলেন।[২]

১৮৯১ সালের ২৫ জুন দ্য স্ট্র্যান্ড ম্যাগাজিন-এর জুলাই সংখ্যায় "আ স্ক্যান্ডেল ইন বোহেমিয়া" গল্পটি প্রথম প্রকাশিত হয়।[৩] এরপর ১৮৯২ সালে দি অ্যাডভেঞ্চারস অফ শার্লক হোমস গল্প-সংকলনে প্রথম গল্প হিসেবে স্থান পায় এটি।

কাহিনি-সারাংশ[সম্পাদনা]

১৮৮৮ সালের ২০ মার্চ ড. ওয়াটসন ২২১বি বেকার স্ট্রিটে আসেন শার্লক হোমসের সঙ্গে দেখা করতে। সেই সময় এক মুখোশধারী ভদ্রলোক সেখানে এসে উপস্থিত হন। প্রথমে তিনি নিজের পরিচয় দেন কাউন্ট ফন ক্র্যাম নামে। কিন্তু হোমস তাঁর প্রকৃত পরিচয় অনুমানে সক্ষম হন। জানা যায়, তিনি আসলে কাসেল-ফেলস্টেইনের গ্র্যান্ড ডিউক তথা উত্তরাধিকারসূত্রে বোহেমিয়ার রাজা ভিলহেম গটসরিখ সিগিসমন্ড ফন অর্মস্টেইন। রাজা তাঁর সমস্যার কথা জানাতে গিয়ে বলেন, পাঁচ বছর আগে তিনি মার্কিন অপেরা গায়িকা আইরিন অ্যাডলারের সঙ্গে একটি গোপন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। অ্যাডলার সেই সময়েই অবসর গ্রহণ করেছিলেন এবং বর্তমানে তিনি লন্ডনের বাসিন্দা। কিছুদিনের মধ্যেই রাজা এক তরুণী স্ক্যান্ডিনেভীয় রাজকুমারীকে বিয়ে করতে চলেছেন। কিন্তু তাঁর ভয়, পূর্বসম্পর্কের কথা জানাজানি হলে সেই বিয়ে ভেঙে যেতে পারে।

পাদটীকা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Rosemary., Herbert (১ জানুয়ারি ২০০৩)। Whodunit? : a who's who in crime & mystery writing। Oxford University Press। পৃষ্ঠা 4আইএসবিএন 0195157613ওসিএলসি 252700230 
  2. Temple, Emily (২২ মে ২০১৮)। "The 12 Best Sherlock Holmes Stories, According to Arthur Conan Doyle"Literary Hub। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০১৯ 
  3. Conan Doyle, Sir Arthur; Klinger, Leslie S. (২০০৫)। The New Annotated Sherlock Holmes, Vol. 1W. W. Norton & Company। পৃষ্ঠা 5আইএসবিএন 0-7394-5304-1 

উল্লেখপঞ্জি[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]