আল-ব্রিটানিয়া, মাই কান্ট্রি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আল-ব্রিটানিয়া, মাই কান্ট্রি: এ জার্নি থ্রু মুসলিম ব্রিটেন
আল-ব্রিটানিয়া, মাই কান্ট্রি.jpg
লেখকজেমস ফার্গুসন
ভাষাইংরেজি
বিষয়যুক্তরাজ্যে ইসলাম
প্রকাশিতলন্ডন
প্রকাশকবান্তাম প্রেস
প্রকাশনার তারিখ
২০১৭
পৃষ্ঠাসংখ্যা৩৮৫
আইএসবিএন৯৭৮-০-৫৯৩-০৭৭৩৭-৫ (হার্ডকভার)
305.6970941

আল-ব্রিটানিয়া, মাই কান্ট্রি হলো স্কটিশ সাংবাদিক এবং লেখক জেমস ফার্গুসনের যুক্তরাজ্যে ইসলাম সম্পর্কে লেখা ২০১৭ সালের একটি বই।

পটভূমি এবং সংক্ষিপ্তসার[সম্পাদনা]

আল-ব্রিটানিয়া, মাই কান্ট্রি যুক্তরাজ্যে ক্রমবর্ধমান জাতিগত এবং ধর্মীয় উত্তেজনার মধ্যে ব্রিটিশ মুসলিম সম্প্রদায়ের একটি অনুসন্ধান। এটি মুসলিম সম্প্রদায়, দারিদ্র্য, সরকারি নজরদারি, যৌনতা এবং নারীবাদের মতো বিষয়ে সামাজিক ও ধর্মীয় দ্বন্দ্বের মধ্যে যোগসূত্র পরীক্ষা করে।

অভ্যর্থনা[সম্পাদনা]

দ্য গার্ডিয়ান-এ ক্রিস্টোফার ডি বেলাইগু, "আল-ব্রিটানিয়া, মাই কান্ট্রিকে "ব্রিটিশ ইসলামের একটি আকর্ষণীয় এবং সহানুভূতিশীল জরিপ" এবং ফার্গুসনকে "পরিচয়, অন্তর্ভুক্তি এবং মুসলিমদের দুর্দশার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা রাষ্ট্রের বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করার জন্য ভালভাবে স্থাপন করা হয়েছে" বলে বর্ণনা করেছেন।[১]

লন্ডন ইভনিং স্ট্যান্ডার্ডের জন্য স্কাই নিউজের পররাষ্ট্র বিষয়ক সম্পাদক স্যাম কিলি বইটিকে "ব্রিটিশ মুসলিম 'হার্টল্যান্ডস', হাই ওয়াইকোম্ব থেকে ব্র্যাডফোর্ড, হোয়াইটচ্যাপেল থেকে ডিউসবারি এবং গ্লাসগো পর্যন্ত একটি ঘুরে বেড়ানো ট্রেক" হিসেবে চিত্রিত করেছেন।[২]

এর বিপরীতে, দ্য টাইমস পত্রিকায়, ডগলাস মারে, একজন নব্য-রক্ষণশীল লেখক, যিনি ইসলামের সমালোচনার জন্য পরিচিত, তিনি বইটিকে "ক্ষমার অযোগ্য সরল এবং অপমানজনকভাবে রোগা" বলে সমালোচনা করেছেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. de Bellaigue, Christopher (১ জুন ২০১৭)। "Al-Britannia, My Country by James Fergusson review – a compelling survey of British Islam"The GuardianLondon। সংগ্রহের তারিখ ২৮ অক্টোবর ২০১৭ 
  2. Kiley, Sam (১ জুন ২০১৭)। "Al-Britannia, My Country: A Journey through Muslim Britain by James Fergusson"London Evening StandardLondon। সংগ্রহের তারিখ ২৮ অক্টোবর ২০১৭ 
  3. Murray, Douglas (১৭ জুন ২০১৭)। "Review: Al-Britannia, My Country by James Fergusson"The TimesLondon। সংগ্রহের তারিখ ২৮ অক্টোবর ২০১৭