আমিনা হায়দারি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

আমিনা হায়দারি (১৮৭৮-১৯৩৯) একজন ভারতীয় সমাজকর্মী ছিলেন।তিনি কায়সার-ই-হিন্দ পদক লাভ করেছিলেন।[১]

প্রথম জীবন[সম্পাদনা]

আমিনা হায়দারী ১৮৭৮ সালে জন্মগ্রহণ করেন।[১] হায়দ্রাবাদ রাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী আকবর হায়দারী হলেন তার স্বামী।

সমাজসেবা[সম্পাদনা]

আমিনা হায়দারী একজন বিশিষ্ট সমাজসেবক। নারী ও দরিদ্রদের জন্য তিনি বিবিধ কাজ করেছেন। ১৯০৮ সালের মুসির মহাবন্যার সময় বন্যার্তদের জন্য তিনি অনেক কাজ করেন। এই কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ তাকে ১৯০৮ সালে কায়সার-ই-হিন্দ পদক প্রদান করা হয়। তিনিই প্রথম নারী, যিনি এই পদক লাভ করেন।[২]

লেডি হায়দারী ক্লাব প্রতিষ্ঠা[সম্পাদনা]

১৯২৯ সালে আমিনা হায়দারী মহিলাদের জন্য লেডি হায়দারী ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেন। ক্লাবটি বর্তমান বশিরবাগের কাছে ওল্ড গান্ধী মেডিক্যাল কলেজে অবস্থিত ছিলো। ক্লাবটির উদ্দেশ্য ছিলো যেন মহিলারা অবাধে টেনিস খেলতে পারেন। নারীরা সেখানে হাউজি খেলতো। এছাড়া তাশ, ব্যাডমিন্টন, টেনিস ইত্যাদি খেলতো। কেউ কেউ রান্না বা সেলাই এর কাজ শিখতেন। ক্লাব কর্তৃপক্ষ মহিলাদের জন্য একটি বার্ষিক টেনিস টুর্নামেন্ট আয়োজন করতো। এই স্থানে অভিজাত নারীদের বিয়ের আয়োজনও করা হতো। এছাড়া তিনি মাহবুবিয়া বালিকা বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন, যা ঐ প্রদেশের প্রথম বালিকা বিদ্যালয়।[৩][৪][৫]

পরিবার[সম্পাদনা]

আমিনা হায়দারীর স্বামী হায়দ্রাবাদ রাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী আকবর হায়দারী। আমিনার চাচা ছিলেন বিখ্যাত আইনজীবী এবং উল্লেখযোগ্য কংগ্রেসম্যান বদরুদ্দিন তায়াবজি।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

১৯৩৯ সালে আমিনা হায়দারী মৃত্যুবরণ করেন।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Roberts, C., সম্পাদক (১৯৩৯)। What India Thinks: Being a Symposium of Thought Contributed by 50 Eminent Men and Women Having India's Interest at Heart। Asian Educational Services। আইএসবিএন 9788120618800। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০১৭ 
  2. Naidu, Sarojini (২৫ নভেম্বর ১৯১৯)। "Indian Women Franchise"The Singapore Free Press and Mercantile Advertiser। পৃষ্ঠা 4। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০১৭ 
  3. "Lady Hydari Club"Massachusetts Institute of Technology। dome.mit.edu। ৬ মে ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০১৭ 
  4. Gupta, Priya (২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "I've always struggled with my relationship with my father: Aditi"The Times of India। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০১৭ 
  5. Shamsie, Muneeza (সেপ্টেম্বর ১৯৯৫)। "Begum Tyabji: the end of an era"Dawn। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০১৭