আনিভা বাতিঘর

স্থানাঙ্ক: ৪৬°০১′০৯.৩″ উত্তর ১৪৩°২৪′৪৭.৮″ পূর্ব / ৪৬.০১৯২৫০° উত্তর ১৪৩.৪১৩২৭৮° পূর্ব / 46.019250; 143.413278
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আনিভা বাতিঘর
Маяк Анива.jpg
বাতিঘর
অবস্থানসাখালিনস্ক
কেপ আনিভা
রাশিয়া
স্থানাঙ্ক৪৬°০১′০৯.৩″ উত্তর ১৪৩°২৪′৪৭.৮″ পূর্ব / ৪৬.০১৯২৫০° উত্তর ১৪৩.৪১৩২৭৮° পূর্ব / 46.019250; 143.413278
নির্মাণ১৯৩৯
কাঠামোগত ভিত্তিপাথুরে
নির্মাণপাথর এবং কনক্রিট
টাওয়ারের আকৃতিডিম্বাকৃতি টাওয়ার এবং শীর্ষ বাতি
চিহ্নটাওয়ার এবং বাতি
টাওয়ারের উচ্চতা৩১ মিটার (১০২ ফু) (সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে ৪০ মি)
ফোকাস উচ্চতা১৭ মিটার (৫৬ ফু)
আলোর উৎসপারমানবিক বিদ্যুৎ
ব্যাপ্তি১৭.৫ নটিক্যাল মাইল (৩২.৪ কিমি; ২০.১ মা) উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
অ্যাডমিরালটি নম্বরM7842 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
এনজিএ নম্বর112-168
এআরএলএইচএস নম্বরASR012 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

আনিভা বাতিঘর, রাশিয়ার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের সাখালিনস্ক ওব্লাস্টে প্রদেশে অবস্থিত।[১] এটি সাখালিন বাতিঘর নামেও পরিচিত। ১৯৩৯ সালে বাতিঘরটি তৈরি করা হয়েছিল। মুলত জাপানিদের হাতে এর প্রতিষ্ঠা হয়। প্রকৌশলী শিনোবু মিউরা এর কাঠামো নকশা করেন। জাপানি ভাষায় এর নাম ছিলো নাকাশিরেটোকো। পরে কেপ এনিভা উপদ্বীপের নামানুসারে এটির নামকরণ করা হয় আনিভা বাতিঘর।

অবস্থান[সম্পাদনা]

গিয়াকোমো ক্যান্তেলির মানচিত্রে চিহ্নিত আনিভা বাতিঘর

রাজধানী মস্কোর ৬৮০০ কিমি পূর্বে এর টোনিনো-আনিভস্কিজ উপদ্বীপের সমুদ্য তীরে 950 কিলোমিটার দীর্ঘ পাতলা দক্ষিণাঞ্চলীয় উপকূলে পাথরের এক অংশে অ্যানিভা এর অবস্থান। উপদ্বীপের পাহাড়ি ভূমির দক্ষিণ অংশ সাগরে নেমে গেছে। গিয়াকোমো ক্যান্তেলি (১৬৪৩-১৬৯৫)দ্বারা ১৬৮২ সালের একটি ইতালীয় মানচিত্রে এটি চিহ্নিত রয়েছে। এই অঞ্চলটি স্রোত, ঘন ঘন কুয়াশা, ডুবো পাথরের তীর দিয়ে পূর্ণ। ১৮০০ সালের আগ পর্যন্ত এখানে কোন জনসমাগম ছিলোনা। পরে জাপান এবং রাশিয়া উভয়েই আগ্রহী হয়ে উঠলে এটিকে দুইভাগ করা হয় যদিও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে রাশিয়া পুরোটাই একীভূত করে নেয়। ১৯৫১ সালে সান ফ্রান্সিসকো চুক্তির মাধ্যমে সরকারীভাবে দ্বীপের মেয়াদ রাশিয়ার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল।[২] এই বাতিঘরটি পোলার নিউক্লিয়ার বাতিঘরগুলির অন্যতম একটি। ক্রমাগত বিদ্যুৎ সরবারহ অসম্বব বিধায় এই স্বায়ত্তশাসিত পারমাণবিক চালিত বাতিঘরগুলি তৈরি করা হয়েছিল।,পারমাণবিক চালিত হবার কারণে অনেকে মনে করেন এগুলি তেজস্ক্রিয়[৩]. তবে এরকম ক্ষতিকর কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

বর্ণনা[সম্পাদনা]

বাতিঘরটি একটি বৃত্তাকার কংক্রিট টাওয়ার যা একটি ডিম্বাকৃতির ভিত্তির উপরে স্থাপিত। পাশের বর্ধিত অংশসহ টাওয়ারটিতে ৭টি তলা রয়েছে। নিচতলায় ডিজেল ও ব্যাটারি কক্ষ ছিল। বর্ধিত অংশসহ দ্বিতীয় তলায় রান্নাঘর ও খাদ্য গুদাম এবং তৃতীয় তলায় - একটি রেডিওরুম, সরঞ্জাম ঘর ও গার্ডহাউস। এর পরে টাওয়ারের কয়েকটি তলায় আবাসিক ব্যবস্থা ছিলো। । ১৯৬৮ সালে, সমুদ্রের স্রোতের বিপরীতে টিকে থাকার জন্য তৃতীয় তলাটি কংক্রিট ব্লকের সাহায্যে আরও শক্তিশালী করা হয়েছিল।[৪]

সাগরের মধ্যে প্রায় ১.৫ কিলোমিটার দুরত্বে বাতিঘর দাড়িয়ে আছে। এটি মেরু অঞ্চলে রাত্রিকালীন জাহাজ চলচলে সহায়তার জন্য জাপানের কাছাকাছি রাশিয়ার উপকূলে রাখা হয়েছিল। পাথর কেটে তৈরী এই বিশেষ বাতিঘরের উচ্চতা ৩১ মিটার।[৫][৬].বাতিঘরটির পরিসীমা ছিলো ২৮.১৬ কিমি (১৭.৫ মাইল)।

সংরক্ষন[সম্পাদনা]

আনিভা বাতিঘর এখন পরিত্যক্ত। অপটিকাল সিস্টেম নিয়ন্ত্রণের জন্য বড় আকারের দোলক এবং 300 কেজি পারদ এর পুল (লেন্সের জন্য কম ঘর্ষণ ঘূর্ণন পৃষ্ঠ হিসাবে) এখনও রয়েছে। মারাত্মক ধ্বংস হওয়া সত্ত্বেও, ব্যক্তিগত জাহাজে আগত পর্যটকরা নিবিড়ভাবে এটি পরিদর্শন করেন। যত্রতত্র মানুষের আনাগোনা বাতিঘরটির অবস্থাকে আরও বিপদজনক করে তোলে। তবে একই সাথে সংস্কারের প্রয়োজনীয়তা নিয়েও আলোচনা তৈরী হয়। সামৃদ্রিক স্রোত এবং বাতাসের তোড়ে এটি দিনে দিনে ক্ষয়প্রাপ্ত হচ্ছে। রাশিয়ান ভৌগোলিক সোসাইটির সভাপতি সের্গেই শোইগুকে আনিভা বাতিঘরকে একটি ঐতিহাসিক স্মৃতিস্তম্ভ হিসাবে সুরক্ষিত করার দাবিতে আবেদন করেন। সরকারী বিবৃতি অনুসারে বাতিঘরটির পুনর্গঠন ২০১৫ সালে শুরু হওয়ার কথা ছিল[৭] তবে ২০১৮ সালেও এখনো শুরু হয়নি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Mys Aniva - to view map click on map icon in bottom toolbar"। database download sa 2017-01-07।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. http://mayak.info/aniva-lihgthouse.html
  3. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ৪ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  4. 角幸博, 角哲, 石本正明, 原朋教 (২০০৭)। "南サハリンにおける日本期の灯 台の現況"日本建築学会技術報告集 (জাপানি ভাষায়)। পৃষ্ঠা 287—290। 
  5. I fari di Sachalin
  6. Foto del faro di capo Aniva
  7. "На Сахалине реконструируют маяк Анива"sakhalin.info। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৭-৩১