আটলান্টিস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পৌরাণিক একটি মানচিত্রে আটলান্টিক মহাসাগরের বুকে আটলান্টিস দ্বীপ। মানচিত্রের উপরে দক্ষিণ দিক

আটলান্টিস হল পৌরাণিক উপকথা অনুযায়ী সমুদ্রতলে হারিয়ে যাওয়া একটি দ্বীপ। এর প্রথম উল্লেখ পাওয়া যায় খৃষ্টপূর্ব ৩৬০ অব্দের প্লেটোর ডায়ালগ টাইমাউস এন্ড ক্রিটিয়াসে। প্লেটোর মতে প্রায় ৯০০০ বছর আগে আটলান্টিস ছিল হারকিউলিসের পিলারের পাদদেশে একটি দ্বীপ যা এর নৌ-সক্ষমতা দিয়ে ইউরোপের অধিকাংশ স্থান জয় করেছিল। কিন্তু এথেন্স জয় করার একটি ব্যার্থ প্রয়াসের পর এক দিন ও এক রাতের প্রলয়ে এটি সমুদ্রগর্ভে বিলীন হয়ে যায়।

প্লেটোর এই ঘটনা কোন পৌরাণিক কল্পকাহিনী অনুপ্রানিত কি না এ ব্যাপারে ইতিহাসবিদরা এখনও একমত হতে পারে নি। তবে প্লেটো ক্রিটিয়াসে দাবি করেন যে তিনি এই গল্প সোলোনের কাছ থেকে শুনেছেন। সোলোন ছিলেন খৃষ্টপূর্ব ষষ্ঠ শতকের এথেন্সের বিখ্যাত নিতীনির্ধারক। প্রাচীন মিশরে প্যাপিরাসের কাগজে এথেন্স এবং আটলান্টিস সম্পর্কে হায়ারোগ্লিফিতে কিছু নথি ছিল যা গ্রীকে অনুবাদ করা হয়। সোলোন সেখান থেকে আটলান্টিস সম্পর্কে জানতে পারেন। তবে কিছু পন্ডিৎ মনে করেন যে প্লেটো প্রাচীন কিছু যুদ্ধের কাহিনী থেকে অনুপ্রানীত হয়ে এই কাহিনী গড়েছেন।[১]

আটলান্টিসের সম্ভাব্য অস্তিত্ব নিয়ে প্রাচীনকালে অনেক বিতর্ক হয়েছে তবে পরবর্তীতে বিভিন্ন লেখক এর সমালোচনা এবং ব্যাঙ্গ-বিদ্রুপ করেছেন। এলেন ক্যামেরুনের বলেন প্রাচীনকালে আটলান্টিসের ঘটনাকে কেউ এত গুরুত্বের সাথে না নিলেও বর্তমানেই এই প্রাচীন কাহিনীকে গম্ভীরভাবে দেখা হচ্ছে।[২]

প্লেটোর বর্ননা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Morgan, K. A. (1998)। "Designer history: Plato's Atlantis story and fourth-century ideology"। Journal of Hellenic Studies 118 (1): 101–118। জেএসটিওআর 632233 
  2. Alan Cameron, Greek Mythography in the Roman World, Oxford University Press (2004) p. 124