অ্যাস্ট্রোসাইটোমা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অ্যাস্ট্রোসাইটোমা
Astrocytoma.jpg
দুইটি পিইটি স্ক্যানের ছবি — উপরেরটি স্বাভাবিক মস্তিষ্ক এবং নিচেরটিতে অ্যাস্ট্রোসাইটোমা দেখা যাচ্ছে
বিশেষত্বঅনকোলজি, নিউরোসার্জারি

অ্যাস্ট্রোসাইটোমা (ইংরেজি: astrocytoma) হচ্ছে মস্তিষ্কের এক প্রকার ক্যান্সারঅ্যাস্ট্রোসাইট নামক তারকা আকৃতির নির্দিষ্ট ধরনের গ্লিয়াল কোষ থেকে গুরুমস্তিষ্কে এই ক্যান্সারের উৎপত্তি। এই ধরনের টিউমার সাধারণত মস্তিষ্কসুষুম্নাকাণ্ডের বাইরে ছড়ায় না এবং অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গেও কোনো প্রভাব ফেলে না। গ্লিওমার মধ্যে অ্যাস্ট্রোসাইটোমা সবচেয়ে সাধারণ এবং মস্তিষ্কের বেশিরভাগ অংশেই এই টিউমার হতে পারে, এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে সুষুম্নাকাণ্ডেও এটি হতে দেখা দখা যায়। অ্যাস্ট্রোসাইটোমাের মধ্যে দুটি মূল শ্রেণি রয়েছে যেগুলো হচ্ছে:

  • অনুপ্রবেশের সংকীর্ণ অংশগুলো (বেশিরভাগক্ষেত্রে ননইনভেসিভ টিউমার; যার মধ্যে রয়েছে পাইলোসাইটিক অ্যাস্ট্রোসাইটোমা, সাবএপেন্ডিমাল জায়ান্ট সেল অ্যাস্ট্রোসাইটোমা, প্লেওমরফিক যান্থোঅ্যাস্ট্রোসাইটোমা), যা প্রায় ক্ষেত্রেই ডায়াগনস্টিক ইমেজগুলোতে স্পষ্টভাবে প্রকাশ পায়।
  • অনুপ্রবেশের বিচ্ছিন্ন অঞ্চলগুলি (যেমন, উচ্চ-গ্রেডের অ্যাস্ট্রোকাইটোমা, অ্যানাপ্লাস্টিক অ্যাস্ট্রোকাইটোমা, গ্লিওব্লাস্টোমা), যা কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের যে কোনও স্থানে উত্থানের ক্ষমতা সহ সেরিব্রাল গোলার্ধের অগ্রাধিকার সহ বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য ভাগ করে; এগুলি সাধারণত প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে ঘটে এবং আরও উন্নত গ্রেডে অগ্রগতির অভ্যন্তরীণ প্রবণতা থাকে। [১]

অ্যাস্ট্রাসাইটোমা যে-কোনো বয়সে হতে পারে। নিচের গ্রেডেরগুলো সাধারণত শিশু ও অল্প বয়সীদের মাঝে বেশি দেখা যায়। অপরদিকে উপরের গ্রেডেরগুলোতে মূলত প্রাপ্তবয়স্করাই বেশি আক্রান্ত হয়। মস্তিষ্কের বেইজে অ্যাস্ট্রোসাইটোমা অল্প বয়সীদের মধ্যে সাধারণত অনেক বেশি দেখা যায়, যা গড়ে সকল নিউরোএপিথেলিয়াল টিউমারের প্রায় ৭৫%।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

প্রতিরোধ[সম্পাদনা]

অ্যাস্ট্রোইটোমা প্রতিরোধে কোনো সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা নেই কারণ এই রোগের সঠিক কারণ এখনও জানা যায়নি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

শ্রেণীবিন্যাস
বহিঃস্থ তথ্যসংস্থান