অসীমতত্ত্ব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

অসীম প্রাচীন ইউনানি দার্শনিক এনাক্সিমেন্ডারের (Anaximander : জন্ম- মৃত্যু-) একটি দার্শনিক প্রত্যয়। এ-অসীমকে ঘিরেই তার সমস্ত দার্শনিক চিন্তা।

এনাক্সিমেন্ডারের বলেন, সৃষ্টির আদি উপাদান পানি বা এ-জাতিয় কোনো দ্রব্য নয়, এটি এক অনন্ত, অবিনশ্বর, অতীন্দ্রিয় এক অসীম বস্তু। তিনি এটাকে ‘apeiron’ বলে উল্লেখ করেছেন। মহামতি দার্শনিক থেলিসের পানিদর্শনের সমালোচনা করে তিনি এ-মত প্রচার করেন।

এনাক্সিমেন্ডারের মতে, আদি উপাদান বা মূলতত্ত্ব অবশ্যই অসীম হবে। কারণ তা না হলে সৃষ্টি প্রক্রিয়ায় তা ক্রমশ নিঃশেষ হয়ে যাবে। এ-অসীম সত্তা বিশেষত্ব-বর্জিত। নিজে নির্বিশেষ ও সীমাহীন হলেও এর মধ্যে যাবতীয় বিশেষ ও সসীম দ্রব্যের মূল বিদ্যমান।[১]

তার মতে, আদি দ্রব্য হিসেবে অসীমের কোনো উৎপত্তি নেই। এ অসৃষ্ট ও অবিনশ্বর। এর গতিও চিরন্তন। এই অন্তর্নিহিত গতির ফলেই এ থেকে বিশেষ দ্রব্যসমূহ স্বতন্ত্র রূপ লাভ করে। শৈত্য ও উষ্ণ, শুষ্ক ও সিক্ত প্রভৃতি বিপরীতধর্মী পদার্থ প্রতিনিয়ত অসীম থেকে পৃথক হচ্ছে এবং অসীমেই ফিরে যাচ্ছে। এরা সময়ের ক্রমানুসারে একে অন্যের সন্তোষবিধান ও ক্ষতিপূরণ করে থাকে।

এনাক্সিম্যান্দারের এ-দর্শনমত অন্যান্য দার্শনিক কর্তৃক সমালোচিত হয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. মো. আবদুল হালিম, দার্শনিক প্রবন্ধাবলি: তত্ত্ব ও বিশ্লেষণ, বাংলা একাডেমী, ঢাকা, ২০০৩