অবিনিময়যোগ্য নিদর্শন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

অবিনিময়যোগ্য নিদর্শন বলতে একটি অদ্বিতীয় ও দুষ্প্রাপ্য ডিজিটাল সম্পদের মালিকানার প্রামাণ্য দলিলকে বোঝায়। ইংরেজি ভাষায় এটিকে "নন ফাঞ্জিবল টোকেন" (Non Fungible Token সংক্ষেপে NFT এনএফটি) বলা হয়।

অবিনিময়যোগ্য সম্পদ হল এমন কোনও অদ্বিতীয় সম্পদ যা একই শ্রেণীর আরেকটি সম্পদের সাথে অনায়াসে বিনিময়যোগ্য নয়। যেমন একটি গাড়ি বা বাড়ি  কিংবা এক টুকরো হীরা অবিনিময়যোগ্য সম্পদ, কেননা এগুলিকে অন্য আরেকটি গাড়ি, বাড়ি, ভূমি বা হীরার টুকরো দিয়ে অনায়াসে বিনিময় করা সম্ভব নয়। কিন্তু টাকা সহজে বিনিময়যোগ্য একটি সম্পদ, কেননা একটি ১০০ টাকার নোটকে সহজেই আরেকটি ১০০ টাকার নোট দিয়ে বা দুইটি ৫০ টাকার নোট দিয়ে বিনিময় করা সম্ভব।

নিদর্শন (টোকেন) বলতে ডিজিটাল লেনদেনের একটি বিতরণকৃত ডিজিটাল খতিয়ানে (ব্লকচেইন প্রযুক্তি দ্বারা সমর্থিত) অন্তর্ভুক্ত একখণ্ড সংকেতকে বোঝায়, যা ইন্টারনেটের কোনও স্থানে (সার্ভারে) অবস্থিত একটি ডিজিটাল সম্পদের প্রতি নির্দেশ করে। ডিজিটাল সম্পদ বলতে কোনও ডিজিটাল শিল্পকর্ম, কোনও শ্রাব্য নথি (অডিও ফাইল), কোনও ভিডিও বা চলচ্চিত্র খণ্ড, ভিডিও খেলার অংশবিশেষ, ইত্যাদিকে বোঝায়।

সুতরাং অবিনিময়যোগ্য নিদর্শন হল এমন এক ধরনের বস্তু যেটি সম্পূর্ণ অনন্য ও অদ্বিতীয়, যাকে অন্য একটি একই শ্রেণীর নিদর্শন দ্বারা বিনিময় করা সম্ভব নয়।

একজন ডিজিটাল নির্মাতা একটি মৌলিক ডিজিটাল সম্পদ সৃষ্টি করে সেটির অদ্বিতীয় পরিচয়জ্ঞাপক সংকেত একটি ব্লকচেইনে অবিনিময়যোগ্য নিদর্শন হিসেবে তৈরি করেন। ফলে ডিজিটাল সম্পদটির প্রামাণিকতা ও দুষ্প্রাপ্যতা নিশ্চিত হয়, কেননা ব্লকচেইনে অবস্থিত মুদ্রা বা নিদর্শনটির কোনও পরিবর্তন সাধন অসম্ভব। ব্লকচেইনে নিদর্শনটি সৃষ্টির মাধ্যমে মূল সৃষ্টিকর্তা এর প্রামাণিকতার অর্থাৎ আদি মালিকানার একটি অপরিবর্তনীয় কিন্তু যাচাইযোগ্য ও জনসাধারণ্যে উন্মুক্ত একটি লেখ্যপ্রমাণ সৃষ্টি করেন। যদিও একটি ডিজিটাল সম্পদের অসংখ্য প্রতিলিপি সৃষ্টি করা সম্ভব, কিন্তু সেটির অবিনিময়যোগ্য নিদর্শনের কোনও প্রতিলিপি তৈরি করা সম্ভব নয়। অবিনিময়যোগ্য নিদর্শনটি সবসময় মূল ডিজিটাল সম্পদটির প্রতি নির্দেশ করবে। এটির সাথে একটি অনন্য শিল্পকর্ম যেমন মোনালিসার তুলনা করা চলে। মূল বা আদি মোনালিসা একটিই, যদিও এর অসংখ্য প্রতিলিপি বিদ্যমান। মূল মোনালিসার মালিক হওয়া যেমন একটি অনন্য অধিকার, ঠিক তেমনি একটি অবিনিময়যোগ্য নিদর্শনের (তথা এটি দ্বারা নির্দেশিত একটি অদ্বিতীয় মূল ডিজিটাল সম্পদের) মালিক হওয়া একটি অনন্য অধিকার।

এরপর অবিনিময়যোগ্য নিদর্শনটিকে একটি ইন্টারনেটভিত্তিক বাজারে নিলামে তোলা হয়, যেখানে মূল স্রষ্টার সৃষ্ট দুষ্প্রাপ্য কোনও ডিজিটাল সম্পদের সংগ্রাহকেরা নিদর্শনটিকে ইন্টারনেটভিত্তিক অসদ্ মুদ্রা বা গুপ্তমুদ্রার সাহায্যে ক্রয় করেন। একটি অবিনিময়যোগ্য নিদর্শনের মালিকানা কেবল একজন ব্যক্তির থাকতে পারে। পরবর্তীতে তিনি আবার এই মালিকানাটি দ্বিতীয় কোনও ব্যক্তির কাছে বিক্রি করতে পারেন।

এ কারণে ২০২০ সালের শেষে ও ২০২১ সালের শুরুতে এসে মৌলিক ডিজিটাল বস্তু বা সম্পদের অনন্য ডিজিটাল মালিকানাপত্রের একটি বাজার সৃষ্টি হয়েছে। এগুলির বাজার সম্পূর্ণ ইন্টারনেটভিত্তিক বলে বিশ্বের যেকোনও স্থান থেকে এগুলি কেনাবেচা সম্ভব। এগুলির প্রামাণিকতা, দুষ্প্রাপ্যতা ও অপরিবর্তনীয়তা নিয়ে কোনও সন্দেহের অবকাশ নেই বলে এগুলি খুবই নির্ভরযোগ্য সম্পদ। ডিজিটাল সম্পদের এরূপ মালিকানা ভবিষ্যতে হয়ত বাস্তব বিশ্বের কোনও পণ্য বা সেবার সাথে বিনিময় করা যেতে পারে। কিংবা সম্পূর্ণ অসদ বিশ্বে অবস্থিত কোনও কিছু ক্রয় করতে ব্যবহৃত হতে পারে।

বর্ণনা[সম্পাদনা]

অবিনিময়যোগ্য নিদর্শন হল এমন একটি উপাত্ত একক যা কোন ডিজিটাল খতিয়ানে লিপিবদ্ধ থাকে, যাকে ব্লক চেইন নামে ডাকা হয়। সেই খতিয়ানে লিপিবদ্ধ ডিজিটাল কোডগুলো নির্দেশ করে কোন ডিজিটাল ফাইল অনন্য কিনা।[১] এটি ক্রিপ্টোগ্রাফিক নিদর্শনের মত কাজ করে কিন্তু ক্রিপ্টোকারেন্সির মত আন্তঃবিনিময়যোগ্য নয় অন্য কথায় যাকে বলা যায় অবিনিময়যোগ্য। [২] এনএফটি তৈরি হয় যখন ব্লকচেইন স্ট্রিং ক্রিপ্টোগ্রাফিক হ্যাসকে লিপিবদ্ধ করে (কতগুলো অক্ষরের সমষ্টি) যা চিহ্নিত করতে পারে এমন কিছু ডেটা ব্লক তৈরি করে ফলে ঐ ফাইলটিকে অন্যন্য করে তোলে তা অন্য কোন ফাইলের সাথে মিলে না।[৩] এই ক্রিপ্টোগ্রাফিক বিনিময়ের প্রক্রিয়াটি কোন ফাইলের স্বতন্ত্রতা নিশ্চিত করে ডিজিটাল স্বাক্ষরের মাধ্যমে যা ব্যবহার করে এনএফটি মালিকানা আছে কিনা তা খুজে বের করা যায়।[৩] কিন্তু যে ডেটা লিংকটি কোন আর্ট বা গান বা এ্যলবাম কোথায় আছে তার বিস্তারিত সংরক্ষন করে তা নিস্ক্রিয় হয়ে যেতে পারে।[৪] একইসাথে এনএফটি টোকেন থাকলেও তা কোন ডিজিটাল সম্পদের উত্তরাধিকারসূত্রে কপিরাইটের অধিকার দেয় না।[৫] কেউ তাদের কাজ এনএফটির মাধ্যমে বিক্রি করতে চাইলে ক্রেতা কিনলেও কপিরাইট সংক্রান্ত অধিকার তার হয়ে যায় না, এটা মালিকেরই থাকে। এবং মালিক একই জিনিস বিক্রির জন্য আলাদা এনএফটি তৈরি করে তা করতে পারে।[৬][৭] সেইসূত্রে বলা যায় এনএফটি হল মালিকানার একটি প্রমাণ মাত্র যা কপিরাইট থেকে আলাদা।[৮][৯]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Dean, Sam (মার্চ ১১, ২০২১)। "$69 million for digital art? The NFT craze, explained"Los Angeles Times। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১২, ২০২১ 
  2. "WTF Is an NFT, Anyway? And Should I Care?"Wired (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 1059-1028। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-১৩ 
  3. Boscovic, Dragan। "How nonfungible tokens work and where they get their value – a cryptocurrency expert explains NFTs"The Conversation (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৪-০৮ 
  4. Kastrenakes, Jacob (মার্চ ২৫, ২০২১)। "Your Million-Dollar NFT Can Break Tomorrow If You're Not Careful"The Verge। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৩১, ২০২১ 
  5. Samarbakhsh, Laleh (মার্চ ১৭, ২০২১)। "What are NFTs and why are people paying millions for them?"The Conversation। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৩১, ২০২১ 
  6. Salmon, Felix (মার্চ ১২, ২০২১)। "How to exhibit your very own $69 million Beeple"Axios। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০২১ 
  7. Clark, Mitchell (মার্চ ১১, ২০২১)। "NFTs, explained"The Verge। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১১, ২০২১ 
  8. "NFT blockchain drives surge in digital art auctions"BBC। মার্চ ৩, ২০২১। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১২, ২০২১ 
  9. Thaddeus-Johns, Josie (মার্চ ১১, ২০২১)। "What Are NFTs, Anyway? One Just Sold for $69 Million."The New York Times। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৩, ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:ক্রিপ্টোকারেন্সি