অজদী মিনার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
برج آزادی
অজদী মিনার
02 aazadi tower.jpg
 location = তেহরান, ইরান
তথ্য
স্থানাঙ্ক ৩৫°৪১′৫৮″ উত্তর ৫১°২০′১৬″ পূর্ব / ৩৫.৬৯৯৪৪° উত্তর ৫১.৩৩৭৭৮° পূর্ব / 35.69944; 51.33778স্থানাঙ্ক: ৩৫°৪১′৫৮″ উত্তর ৫১°২০′১৬″ পূর্ব / ৩৫.৬৯৯৪৪° উত্তর ৫১.৩৩৭৭৮° পূর্ব / 35.69944; 51.33778
বর্তমান অবস্থা সম্পূর্ণ
নির্মিত ১৯৭১
ব্যবহার সাংস্কৃতিক
উচ্চতা
রুফ ৫০ মিটার
কারিগরী বর্ণনা
ব্যয় $6 million [১]
প্রতিষ্ঠানসমূহ
স্থপতি হোসেইন আমনাত

অজদী মিনার (ফার্সি: برج آزادی "স্বাধীনতা মিনার") ইরানের রাজধানী তেহরান শহরের প্রবেশপথে অবস্থিত একটি সুউচ্চ স্থাপনা।

১৯৭১ সালে পারস্য সাম্রাজ্যের ২৫০০ বছরপূর্তি উপলক্ষে এটি নির্মাণ করা হয়। তখন এর নাম দেয়া হয়েছিল শাহ্‌ইয়দ অরিয়মেহ্‌র (شهیاد آریامهر) অর্থাৎ "শাহ্‌দের স্মৃতিসৌধ"। ১৯৭৯ সালের ইসলামী বিপ্লবের পর এর নাম বদলে অজদী রাখা হয়। আদিতে পাহলাভি রাজবংশের অধীনে আধুনিক ইরানের কীর্তির প্রতীক হিসেবে নির্মিত হলেও বর্তমানে এটি দেশটির নতুন ইসলামী প্রজাতন্ত্র পর্বের প্রতীক। এটি তেহরানের অজদী চত্বরে সম্পূর্ণ সাদা মর্মর পাথরে নির্মিত ও ৫০ মিটার উঁচু। মিনারটির পাদদেশে অনেকগুলি ফোয়ারা আছে এবং এর নিচে ভূগর্ভে একটি জাদুঘর আছে।

স্থপতি হোসেইন আমনাত একটি প্রতিযোগিতায় জয়লাভ করে সৌধটি নকশা করার দায়িত্ব পান। তিনি তাঁর নকশায় সসনীয় রাজবংশের আমল এবং ইসলামী স্থাপত্যের উপাদানের মিশ্রণ ঘটান। মিনারটি নির্মাণের জন্য ৮ হাজার মর্মর পাথরের ব্লক এসফাহন প্রদেশ থেকে আনা হয়। পাঁচশত ইরানী শিল্পপতির একটি দল প্রকল্পটির জন্য অর্থ দেন।

২০০৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের ১১ তারিখে আমির মুসাভি নামের এক ব্যক্তি খালি হাতে মিনারটির শীর্ষে ওঠার চেষ্টা করেন। সেদিন হাজার হাজার লোক ইরানী বিপ্লব স্মরণ উপলক্ষে সেখানে জমায়েত হয়েছিল। শীর্ষ থেকে ৩ মিটার বাকী থাকতে তিনি ক্লান্ত হয়ে পড়েন এবং উপর থেকে পড়ে মারা যান।

  1. "MEED"। Middle East Economic Digest 15। ২৯ অক্টোবর ১৯৭১।