স্লটারহাউজ-ফাইভ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

স্লটারহাউজ-ফাইভ, অর দ্য চিলড্রেন্‌স ক্রুসেড: আ ডিউটি-ড্যান্স উইথ ডেথ (ইংরেজি ভাষায়: Slaughterhouse-Five, or The Children's Crusade: A Duty-Dance With Death) বিখ্যাত মার্কিন সাহিত্যিক কুর্ট ভনেগাট রচিত বিজ্ঞান কল্পকাহিনীমূলক উপন্যাস। এতে মানুষের জীবনের অর্থ ও জীবদ্দশায় তার অবস্থাকে বিজ্ঞান কল্পকাহিনীর মাধ্যমে ব্যাখ্যা করা হয়েছে, এক্ষেত্রে মুখ্যচরিত্রের সময় পরিভ্রমণকে কাহিনী-যন্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। মুখ্যচরিত্র বিলি পিলগ্রিম সময়ের বাঁধন ভেঙে আলগা হয়ে পড়ে এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ড্রেসডেন বোমাবর্ষণ ও তার পরের ঘটনাগুলোর মাধ্যমে তার জীবনের অর্থের সাথে তাল মেলানোর চেষ্টা করে।

চরিত্রসমূহ[সম্পাদনা]

  • বর্ণনাকারী - তার কোন নাম নেই। তবে এক জায়গায় বলে, "That was I. That was me. That was the author of this book"। এ থেকে মনে হয়, লেখক নিজেই বর্ণনাকারী।
  • বিলি পিলগ্রিম - নিউ ইয়র্কের ইলিয়ামে বসবাসরত চক্ষুরোগের চিকিৎসক। তাকে ট্র্যালফ্যামাডোর গ্রহের চতুর্থ-মাত্রার প্রাণীরা তাকে তাদের গ্রহে নিয়ে গিয়েছিল। সে সময়ের বাঁধন ভেঙে আলগা হয়ে যায়। জীবনের সামনে পিছনে যখন যেখানে ইচ্ছা চলে যেতে থাকে। সে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ড্রেসডেন শহরে জার্মানদের হাতে যুদ্ধবন্দী ছিল। ড্রেসডেন বোমাবর্ষণ প্রত্যক্ষ করেছিল।
  • রোলান্ড উইয়ারি - মার্কিন সৈনিক। সে বিলিকে বেশ কয়েকবার যুদ্ধপরবর্তী সম্মানের আশায় বাঁচিয়েছিল। কিন্তু শেষে জার্মানদের হাতে বন্দী হয়। যুদ্ধবন্দীদের ক্যাম্পে যাত্রাপথে ট্রেনে গ্যাংগ্রিন হয়ে মারা যায়। মৃত্যুর সময় বিলিকে তার মৃত্যুর জন্য দায়ী করে।
  • পল ল্যাৎসারো - আরেক যুদ্ধবন্দী। যুদ্ধের আগে ইলিনয়ের সিসেরোতে গাড়ি চুরি করতো। সে উইয়ারির হয়ে বিলির বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নেয়ার শপথ করেছিল। কারণ, উইয়ারির মতে বিলির কারণেই তাকে মরতে হয়েছে।
  • কিলগোর ট্রাউট - ব্যর্থ বিজ্ঞান কল্পকাহিনী লেখক। সে এখন খবরের কাগজ বিক্রেতা ছেলেদের সামলানোর কাজ করে। বিলির আমন্ত্রণে ট্রাউট তার বিবাহবার্ষিকীতে যায়। সেখানে সে মনে করে, বিলি একটি "সময় জানালা" দেখেছে। এ সময়ই বিলির যুদ্ধের স্মৃতি ফিরে আসে।
  • এডগার ডার্বি - বিলি ও ল্যাৎসারোর সাথে যুদ্ধবন্দী। মধ্যবয়স্ক, যুদ্ধের জন্য খুব একটা উপযুক্ত নয়। ড্রেসডেনে এক লাশের কাছ থেকে চায়ের পাত্র চুরি করার দায়ে জার্মানরা তাকে মৃত্যুদণ্ড দেয়।
  • হাওয়ার্ড ডব্লিউ ক্যাম্পবেল, জুনিয়র - মার্কিন নাৎসি। যুদ্ধের আগে জার্মানিতে সফল নাট্যকার ছিল। এখন নাৎসিদের হয়ে যুদ্ধের প্রচারণা করছে। কমিউনিস্ট রুশদের সাথৈ যুদ্ধ করার জন্য "ফ্রি অ্যামেরিকা কর্পস" প্রতিষ্ঠা করে। এই বাহিনীর জন্য যুদ্ধবন্দীদের মধ্য থেকে সৈন্য সংগ্রহের চেষ্টা করে।
  • ভ্যালেন্সিয়া মার্বল - বিলির স্ত্রী, তাদের দুই সন্তান রবার্ট ও বারবারার মা। ধনীর মেয়ে। শশুরের সুবাদেই বিলি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠা পায়।
  • রবার্ট পিলগ্রিম - বিলি ও ভ্যালেন্সিয়ার ছেলে। একসময় মধ্যবিত্ত পরিবারের বখাটে সন্তান ছিল। ভিয়েতনাম যুদ্ধের সময় গ্রিন বেরেট সেনাদলে যোগ দিয়ে কমিউনিস্ট নিধনের চেষ্টা করে।
  • বারবারা পিলগ্রিম - বিলি ও ভ্যালেন্সিয়ার মেয়ে। ২০ বছর বয়সে পরিবারের দায়িত্ব পেয়ে যায়। আরেক চক্ষুরোগের চিকিৎসককে বিয়ে করে। তার বিপত্নীক বাবার শিশুসুলভ আচরণকে বরদাস্ত করতে পারে না।
  • ট্র্যালফ্যামাডোরিয়ান্‌স - ট্র্যালফ্যামাডোর গ্রহের বাসিন্দারা। বিলিকে তাদের গ্রহে নিয়ে একটি বিশাল স্বচ্ছ কক্ষে আটকে রাখে। তারা চার মাত্রার প্রাণী, তাই সময়ের কোন ধারণা নেই। তাদের কাছে সব সময়ই সমান। অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ একই সাথে ক্রিয়াশীল।
  • মন্টানা উয়াইল্ডহ্যাক - চলচ্চিত্র অভিনেত্রী যাকে ট্র্যালফ্যামাডোরিয়ানরা তাদের গ্রহে নিয়ে বিলির সাথে এক কক্ষে রাখে। বিলি ও ওয়াইল্ডহ্যাকের এক সন্তান হয়।
  • "ওয়াইল্ড বব" - বিপ্লবী সেনা কর্মকর্তা, বিলি ও যুদ্ধের সময় তার মুখোমুখী হয়। সে তার ৪৫১তম রেজিমেন্টের সবাইকে হারিয়ে পথে পথে ঘুরছিল। এক সময় সেও মারা যায়। মৃত্যুর আগে বলে যায়, "if you're ever in Cody, Wyoming, ask for Wild Bob"। এই বাক্য বিলির জন্যও অনুপ্রেরণা হয়ে থাকে। অনেক সময়ই বিলিকে এ কথা বলতে শোনা যায়।

চলচ্চিত্র ও মঞ্চে[সম্পাদনা]

১৯৭২ সালে এই উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে একটি চলচ্চিত্র নির্মিত হয় যার নামও ছিল স্লটারহাউজ-ফাইভ। সমালোচকদের কাছে প্রশংসিত হলেও ছবিটি খুব বেশী জনপ্রিয় হয়নি। এই সিনেমা কান চলচ্চিত্র উৎসবে Prix du Jury পুরস্কার অর্জন করে এবং পাশাপাশি স্যাটার্ন অ্যাওয়ার্ডহুগো অ্যাওয়ার্ড লাভ করে। ভনেগাট ছবিটির বিপুল প্রশংসা করেন।

১৯৯৬ সালে এ থেকে মঞ্চা নাটক হয়। ইলিনয়ের শিকাগোতে এই নাটক মঞ্চায়িত হয়। পরবর্তীতে নিউ ইয়র্ক ও টেক্সাসের ডালাসেও এই নাটক মঞ্চায়িত হয়।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]