লাভ বার্ড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
লাভ বার্ড
A feral Rosy-faced Lovebird eating seeds in Chicago, USA
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Animalia
পর্ব: Chordata
শ্রেণী: Aves
বর্গ: Psittaciformes
মহাপরিবার: Psittacoidea
পরিবার: Psittaculidae
উপপরিবার: Agapornithinae
গণ: Agapornis
Selby, 1836
Species

Nine - see text

লাভবার্ড এর প্রজাতিক নাম “আগাপোরনিস”। গ্রিক ভাষায় আগাপেইন হলো (Agapein) "to love" ও ওর্নিস (Ornis) হলো ল্যাটিন শব্দ "বার্ড"। সাড়া পৃথিবীতে এই প্রজাতির পাখিটি লাভ বার্ড নামে পরিচিত। এদের গড় আয়ুঃ ২০ বছর। এরা ৫-৭ ইঞ্ছি বা ১৩ থেকে ১৭ সেন্টিমিটার লম্বা হয়। এদের আদিনিবাস আফ্রিকা এবং মাদাগাস্কার। সারা পৃথিবীতে নয় জাতের লাভ বার্ড দেখা যায়, এর মধ্যে আট জাতের মূল আবাসস্থল আফ্রিকা এবং একটি জাতের মূল আবাসস্থল মাদাগাস্কার। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশী জনপ্রিয় প্রজাতি হচ্ছে “Beloved Peach-Faced Lovebird”। এরা সাধারণত ১০-১৫ বছর পর্যন্ত বেঁচে থাকে।[১] অন্য ৮ টি প্রজাতি হচ্ছে-

  • Abyssinian Lovebird
  • Albino Lovebird
  • Black Masked Lovebird
  • Blue Masked Lovebird
  • Dutch Blue Lovebird
  • Fischer's Lovebird
  • Lutino Lovebird
  • Peach-faced Lovebird

এদের মধ্যে চার জাতের লাভ বার্ড বেশি দেখা যায় –

  • Peach-faced Lovebirds
  • Masked Lovebirds
  • Fischer's Lovebirds
  • Lutino Lovebird

তবে বর্তমানে ভিন্ন ভিন্ন প্রজাতির মধ্যে ক্রস করে নতুন নতুন রঙের ও নামের লাভ বার্ড পাখির জন্ম দিচ্ছে। লাভ বার্ড যদিও তোতা পাখি কিন্তু তারা মানুষের কথা অনুকরন করার ক্ষমতা রাখে। কিন্তু লাভ বার্ড প্রজাতির মায়েরা বাচ্চাদেরকে ছোটবেলায় এই কথা অনুকরন যেন না করে বাচ্চাদের সেই রকম শিক্ষা দেয়, কেননা যদি তারা অন্য প্রানীর ভাষা অনুকরন করে তাহলে তাদের যোগাযোগে ব্যাঘাত ঘটবে। তোতা পাখির প্রজাতির মধ্যে পড়লেও এরা তোতাপাখির চেয়ে অধিক জনপ্রিয়। কেননা তোতাপাখির চেয়ে এরা আকারে ছোট এবং এদের সৌন্দর্যও অধিক। সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে এদেরকে খুব অল্প জায়গাতেই লালন পালন করা সম্ভব। আমাদের দেশে সহজেই লালন পালন করা যায় বিধায় ও দেখতে খুব সুন্দর ও সামাজিক পাখি বলে অনেকেই বাসায় পালন করেন ।

খাবার[সম্পাদনা]

এরা সাধারনত কাউন, চিনা, বারজা, তিসি, সূর্যমুখী ফুলের বিচি, কুসুম ফুলের বিচি, সরিষা, ধান, বিভিন্ন ধরনের ফল, কচি ঘাসের পাতা ও সবজি ও বিভিন্ন ফল খেতে পছন্দ করে। একটি পাখি দিনে প্রায় ৪০ থেকে ৬০ গ্রাম খাবার গ্রহন করে। আবহাওয়া অনকুলে থাকলে ও পর্যাপ্ত পরিমান যত্ন নিলে লাভ বার্ড প্রতি ৩ মাস অন্তর অন্তর বৎসরে সাধারনত ৪ বার ডিম দেয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Alderton, David (2003)। The Ultimate Encyclopedia of Caged and Aviary Birds। London, England: Hermes House। পৃ: 216–219। আইএসবিএন 1-84309-164-X 

Cited texts[সম্পাদনা]