ভাইমার প্রজাতন্ত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জার্মান রাইখ
ডয় রাইখ

১৯১৯–১৯৩৩
পতাকা জাতীয় প্রতীক
সঙ্গীত
Das Lied der Deutschen
ভেইমার যুগের জার্মানি, প্রুশিয়া স্বাধীন রাজ্য ছিল বৃহত্তম প্রদেশ।
রাজধানী বার্লিন
ভাষাসমূহ জার্মান
সরকার প্রজাতন্ত্র
রাষ্ট্রপতি
 -  ১৯১৮-১৯২৫ ফ্রিদরিখ এবের্ত
 -  ১৯২৫-১৯৩৩ পল ভন হিন্ডেনবার্গ
চ্যান্সেলর
 -  ১৯১৯ Philipp Scheidemann(প্রথম)
 -  ১৯৩৩ Kurt von Schleicher (শেষ)
আইন-সভা রাইখস্টাগ
 -  স্টেট কাউন্সিল রাইখস্ট্রাট
ঐতিহাসিক যুগ যুদ্ধকালীন সময়
 -  সংস্থাপিত ৯ নভেম্বর, ১৯১৮ ১৯১৯
 -  হিটলারের অধিষ্ঠান ৩০ জানুয়ারি ১৯৩৩
 -  রাইখস্টাগ অগ্নিকাণ্ড ২৭ ফেব্রুয়ারি, ১৯৩৩
 -  আইন বলবৎকরণ ২৩ মার্চ, ১৯৩৩ ১৯৩৩
আয়তন
 -  ১৯২৫ ৪,৬৮,৭৮৭ বর্গ কি.মি. (১,৮১,০০০ বর্গ মাইল)
জনসংখ্যা
 -  ১৯২৫ আনুমানিক ৬,২৪,১১,০০০ 
     ঘনত্ব ১৩৩.১ বর্গ কি.মি.  (৩৪৪.৮ বর্গ মাইল)
মুদ্রা পাপিয়েরমার্ক (১৯১৯-১৯২৩)
রাইখ্‌সমার্ক (১৯২৪-১৯৩৩)
সতর্কীকরণ: "মহাদেশের" জন্য উল্লিখিত মান সম্মত নয়

ভাইমার প্রজাতন্ত্র ১৯১৯ থেকে ১৯৩৩ সাল পর্যন্ত যে জার্মান রাজ্য বিদ্যমান ছিল তার ডাকনাম। ইতিহাসবিদরা এই নামটি রেখেছিলেন ঐতিহাসিক শহর ভাইমার-এর নামানুসারে। এই শহরেই জার্মানির নতুন সংবিধান রচিত হয় এবং এটি কার্যকর করার জন্য এক বিশাল জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে জার্মানির পতনের পর ঐতিহাসিক জার্মান রাইখ-এর জন্য নতুন সংবিধান গৃহীত হয় এবং ১৯১৯ সালের ১১ আগস্ট থেকে তা কার্যকর হয় ।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]