ব্ল্যাক মাস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ব্ল্যাক মাস হচ্ছে এমন একটি অনুষ্ঠানের নাম যা ডাইনীদের উপাসনা সময় অনুষ্ঠিত হয় এবং যা ক্যাথলিক মাসের একরকম প্যারোডি। এটার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে নিমন্ত্রককে অপবিত্রকরণ যদিও লেখকদের মধ্যে কোন রকম বোঝাপড়া নেই যে কিভাবে নিমন্ত্রককে অপবিত্র করা হবে। তবে সবচেয়ে সাধারণ ভাবনাটা হচ্ছে ধর্ম সম্পর্কীত যৌনচর্চার মাধ্যমে অপবিত্র করা। লেখকরা একমতও নন যে কি রকম আচার পালন করা হবে।

কিছু মধ্যযুগীয় লেখক মনে করেন যে নিমন্ত্রক প্রতিস্থাপিত হন ব্যাঙ, শালগম অথবা এক টুকরো মাছের মাধ্যমে, কিন্তু বেশির ভাগ বিচারক ও লেখক বিশ্বাস করেন যে ক্রিস্টিয়ান যাজকরা আসল নিমন্ত্রকদের প্রতিস্থাপিত করেন যা তৈরি করে এক ধরনের পৈশাচিক চুক্তি অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে উপাসনা অপবিত্র করার জন্য। রিচার্ড ক্যাভেন্ডিসের লেখা দ্যা ব্ল্যাক আর্টস (১৯৬৭) বইয়ে ব্ল্যাক মাস অধ্যায়ে ব্ল্যাক মাসের ইতিহাস সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যেতে পারে। একটি পুরো বই লেখা হয়েছে এই বিষয়ে যা হলো এইচ, টি, এফ, রোডসের দ্যা স্যাটানিক মাস। তবে একটি পূর্ণাঙ্গ গ্রন্থ জার্মান ভাষায় লেখা হয়েছে এ বিষয়ে ১৯৬৪ সালে প্রকাশিত গারহার্ড যাচারিয়াসের দ্যা ডার্ক গড: সাটান ওয়ারশিপ এ্যান্ড ব্ল্যাক মাসেস যা পরে ইংরেজি ভাষায় অনুদিত হয়। পবিত্র মাস পালন করা হয় ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের মাধ্যমে প্রাথমিক যুগে। পবিত্রতা ও আশীর্বাদের নানা রকম আচার অনুসরণ করা হয়ে থাকে। যখন প্রাথমিক খ্রিস্টানরা তাদের আচারগুলো একত্র করছিল, তখন অনেক চার্চ ফাদার কিছু বিরুদ্ধবাদী দলের কথা উল্লেখ করেন যারা তাদের মতো করে মাস পালন করত ও তাদের কেউ কেউ অদ্ভুত যৌন আচরণও করত। ব্ল্যাক মাসে আচারগুলো নির্দিষ্ট নয়, তাই কিছু কিছু গুপ্ত প্রার্থনাকারীরা যাজকের কাছে যেত তাদের ব্যক্তিগত চাহিদা মেটানোর জন্য। যেমন-গবাদি পশু ও শস্যের ওপর আশীর্বাদের জন্য, শত্রুর ওপর অভিশাপ হওয়ার জন্য।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]