বাইলজাবাব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাইলজাবাব

বাইলজাবাব (ইংরেজি উচ্চারণ: /biːˈɛlzəˌbʌb/ (অসমর্থিত টেমপ্লেট) bee-EL-zə-BUB অথবা /ˈbɛlzəˌbʌb/ BEL-zə-BUB; (আরবি: بعل ألذباب‎, Ba‘al Azabab হিব্রু ভাষায়: בעל זבוב‎, Ba‘al Zəbûb, অক্ষরিকভাবে "মাছির লর্ড"; গ্রিক: βεελζεβούβ, Beelzeboub; লাতিন: Beelzebūb) মানে মাছিদের প্রভু আরবিহিব্রু ভাষা মতে। তবে এর আরো কিছু প্রাচীন অর্থ আছে[১], যেমন এটা একটি সেমেটিক দেবতা যার উপাসনা করা হত ইকরনের ফিলিস্টাইন শহরে। পরবর্তীতে বাইবেল ও খ্রিস্টান ধর্মে একে দেখা যায় দানব হিসেবে আবির্ভূত হতে। এই চরিত্রটি আবার নরকের সাতটি যুবরাজের একটি।

ধর্মীয় অর্থে[সম্পাদনা]

বাইবেলে দেখা যায় ইসরায়েলের রাজা আহাজিয়াহ একটি দূর্ঘটনায় আহত হওয়ার পর ইকরন ফিলিস্টাইন শহরে ঈশ্বর বাইলজাবাবের খোঁজে লোক পাঠান এটা জানার জন্য যে তিনি কি আর সুস্থ হবেন। ইয়াওয়েহের কথা অনুযায়ী নবী এলিজা আহাজিয়াহকে মারার ব্যবস্থা করেন কারণ সে ইয়াওয়েহ খোঁজ না করে বাইলজাবাবকে খুঁজছে।

পরবর্তী পুরান[সম্পাদনা]

বাইলজাবাব বর্ণিত হয়েছে কলিন ডা প্লান্সির ডিকশনারী ইনফার্নাল-এ

১৬শ শতকের গুপ্তবিদ্যা বিশেষজ্ঞ জোহান ওয়েরের মতে বাইলজাবাব শয়তানের বিরূদ্ধে একটা সফল বিপ্লবের নেতৃত্ব দেয় এবং নরকের সম্রাট লুসিফারের মূল সামরিক কর্মী ও মাছিদের অধিনায়ক। ১৭শ শতকের ভূতের ওজা সেবাস্টাইন মিচালিস তার রচিত পুস্তক অ্যাডমায়ারেবল হিস্টরি ১৬১২ সালেতে বাইলজাবাবকে প্রধান তিনজন পতিত দেবদূতের অন্যতম বলে উল্লেখ করেন, অন্য দু’জন হলেন লুসিফার ও লেভিয়াথন। কবি জন মিল্ট্নের প্যারাডাইস লস্টের একট চরিত্র এই বাইলজাবাব। বাইলজাবাব দোষী ডাইনিদের প্রার্থনার একটি উপাদানও।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Such as Belzebud, Beezelbub, Beazlebub, Belzaboul, Beelzeboul, Baalsebul, Baalzebubg, Belzebuth, Beelzebuth, and Beelzebus.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]