ফ্রিজিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ফ্রিজিয়া
ফ্রিজীয় জাতির বসতিস্থল (ফ্রিজীয় উপকূল)
ফ্রিজীয় জাতির বসতিস্থল (ফ্রিজীয় উপকূল)
রাষ্ট্রীয় ভাষাসমূহ ফ্রিজীয় (পশ্চিম ফ্রিজীয় ভাষা, উত্তর ফ্রিজীয় ভাষা, জাটারলান্ড ফ্রিজীয় ভাষা), নিম্ন জার্মান ((পশ্চিম নিম্ন জার্মান) পূর্ব ফ্রিজীয় নিম্ন স্যাক্সন, গ্রোনিংস), ওলন্দাজ, জার্মান, ডেনীয়

ফ্রিজিয়া (Frisia) উত্তর-পশ্চিম ইউরোপে উত্তর সাগরের তীরে অবস্থিত একটি ঐতিহাসিক অঞ্চল। এটি বর্তমান নেদারল্যান্ডসের অধিকাংশ এলাকা, জার্মানির উত্তর-পশ্চিমের কিছু অংশ এবং ফ্রিজীয় দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে গঠিত ছিল। ফ্রিজীয় নামের একটি জার্মানীয় জাতি প্রাগৈতিহাসিক যুগে এই অঞ্চলে বাস করত এবং তাদের নামেই এই অঞ্চলের নামকরণ। ফ্রিজিয়ার ছিল নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতি। এগুলি এখনও কিছু কিছু এলাকায়, যেমন নেদারল্যান্ডসের ফ্রিসলান্ড প্রদেশে ধরে রাখা হয়েছে। এই নিম্নভূমি অঞ্চলটি প্রায়ই সাগরের জোয়ারে প্লাবিত হত, এবং ফ্রিজীয়রা ঐতিহাসিকভাবে মনুষ্যনির্মিত মাটির ঢিবির উপর বসবাস করত।

খ্রিস্টীয় ১ম শতকে ফ্রিজিয়া ও রোমান সাম্রাজ্যের মধ্যে চুক্তি সম্পাদিত হয়। ৪৭৬ সালে রোমান সাম্রাজ্যের পতনের পর ফ্রিজিয়া কিছুকাল অ্যাঙ্গল ও স্যাক্সন নামের জার্মান জাতিদের অধীনে ছিল; ফ্রিজিয়া এই জাতি দুইটির গ্রেট ব্রিটেন দ্বীপে যাওয়ার পথে পড়েছিল। ফ্রিজীয় ভাষাতে এই অ্যাংলো-স্যাক্সন প্রভাব এখনও রয়ে গেছে। ৭৮৫ সালে ফ্রিজিয়াকে কারোলিঙ্গীয় সাম্রাজ্যের অন্তর্গত করে নেওয়া হয় এবং এলাকার অধিবাসীরা ধীরে ধীরে খ্রিস্টধর্মে ধর্মান্তরিত হতে শুরু করে। তবে ফ্রিজিয়া সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত হলেও যথেষ্ট স্বায়ত্বশাসন বজায় রাখে। এর পরবর্তী শতাব্দীগুলিতে অঞ্চলটি তিনটি ভাগে ভাগ হয়ে যায়। পূর্ব ফ্রিজিয়া অঞ্চলটি মূলত গ্রোনিঙেন শহর থেকে পরিচালিত হত, এবং শহরটি উট্রেশ্‌টের বিশপের অধীন ছিল। পূর্ব প্রুশিয়ার একাংশ পরে প্রুশিয়ার অংশ করে নেওয়া হয়। পশ্চিম ফ্রিজিয়া হল্যান্ডের কাউন্টদের নিয়ন্ত্রণে চলে আসে, আর মধ্য ফ্রিজিয়া মোটামুটি স্বাধীন থাকে। মধ্যযুগে ফ্রিজিয়ার অধিবাসীদের স্বাধীন জীবনযাপনের জন্য অঞ্চলটি পরিচিত লাভ করে, কেন না সেসময় ইউরোপের বেশির ভাগ অংশে সামন্ততন্ত্র প্রচলিত ছিল।

১৬শ শতকের শুরুর দিকে ফ্রিজিয়ার বেশির ভাগ অংশ পবিত্র রোমান সম্রাট ৫ম চার্লসের অধীনে চলে আসে। তিনি আবার উত্তর-পশ্চিম ইউরোপে হাবসবুর্গ রাজবংশের স্পেনীয় সম্পত্তিগুলির সাথে ফ্রিজিয়াকে মিলিয়ে দেন। হাবসবুর্গ রাজবংশ প্রশাসনিক ভাষা হিসেবে ফ্রিজীয় ভাষার মর্যাদা বাতিল করে দেয়। ১৬শ শতকের বাকী সময় ধরে এখানে প্রোটেস্টান্ট সংস্কার সংঘটিত হয়। ফ্রিজীয়রা রোমান ক্যাথলিক স্পেনীয় হাবসবুর্গ শাসনের বিরুদ্ধে বিপ্লবে অংশ নেয়। ১৫৭৯ সালে ফ্রিজিয়া উট্রেশ্‌টের ইউনিয়নে যোগ দেয়, যা পরবর্তী ওলন্দাজ প্রজাতন্ত্রে পরিণত হয়।

বর্তমানে ফ্রিজীয়রা নেদারল্যান্ডসে বাস করলেও তারা সেখানকার একটি বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী। তাদের মুখের ফ্রিজীয় ভাষা একটি পশ্চিম জার্মানীয় ভাষা এবং ওলন্দাজ ভাষার চেয়ে ইংরেজি ভাষার সাথে এর বেশি মিল দেখতে পাওয়া যায়। ওলন্দাজ প্রজাতন্ত্রের অংশে পরিণত হবার পর ফ্রিজীয় সাহিত্য গড়ে তোলার অনেক চেষ্টা করা হলেও ১৯শ শতকের আগ পর্যন্ত এগুলিতে তেমন ফল হয়নি। আধুনিকায়নের বিরুদ্ধে ফ্রিজীয় সাহিত্য ও অন্যান্য ফ্রিজীয় সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্য ধরে রাখার তাগিদে বিংশ শতাব্দীতে ফ্রিজীয় জাতীয়তাবাদের উত্থান ঘটে। বর্তমানে নেদারল্যান্ডসের ফ্রিসল্যান্ড অঞ্চলে ফ্রিজীয় সংস্কৃতির শক্ত অবস্থান লক্ষ্য করা যায়; সেখানে ফ্রিজীয় ভাষা একটি সরকারী ভাষা হিসেবে স্বীকৃত।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]