পুঁজি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

পুঁজি (ইংরেজি: Capital) বলতে দ্রব্য ও অর্থের এমন সমষ্টিকে বোঝায়, যার সাহায্যে ভবিষ্যতে আয় উপার্জন করা সম্ভব। সাধারণত, ভোগদ্রব্য ও নিত্যপ্রয়োজনীয় বা ব্যক্তিগত উপভোগের জন্য ব্যয় করা অর্থকে পুঁজি হিসেবে ধরা হয় না। অর্থাৎ কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জমি, দালানকোঠা, যন্ত্রপাতি, গুদাম, কাঁচামাল, স্টক, বন্ড, ও ব্যাংক অ্যাকাউন্টের টাকা ইত্যাদি পুঁজি। কিন্তু বসবাসের ঘর, আসবাবপত্র, গাড়ি ও ব্যক্তিগত উপভোগে ব্যবহৃত অন্যান্য দ্রব্য বা অর্থ পুঁজি নয়।

হিসাববিজ্ঞানের সুক্ষ্মতর সংজ্ঞায় পুঁজি হল কোন নির্দিষ্ট সময়ে একজন ব্যক্তি বা একটি করপোরেশনের সেই সমস্ত সম্পত্তি, যেগুলি ঐ সম্পত্তি থেকে প্রাপ্ত আয়ের থেকে আলাদা। কোম্পানিদের তাই নির্দিষ্ট সময়ে সম্পদের জন্য আলাদা একটি ব্যালেন্স শীট এবং আয়ের ধারা প্রদর্শনকারী আরেকটি ভিন্ন অ্যাকাউন্ট থাকে।

পুঁজির প্রকারভেদ[সম্পাদনা]

পুঁজি স্থির ও আবর্তনশীল এই দুই ধরনের হয়। যে সমস্ত জিনিস বারবার উৎপাদনের কাজে ব্যবহৃত হয়, যেমন জমি, দালানকোঠা, যন্ত্রপাতি, ইত্যাদি, তাদেরকে স্থির পুঁজি বলে। আর যেসমস্ত জিনিস বারবার উৎপাদনের ব্যবহার করা যায় না, যেমন কাঁচামাল, জ্বালানি, শ্রমিকদের বেতনের অর্থ, ইত্যাদি, তাদেরকে আবর্তনশীল পুঁজি বলে।

আবার পুঁজিকে তরল ও জমাট--- এই দুই ভাগেও ভাগ করা যায়। যেসমস্ত সম্পদ খুব সহজেই নগদ টাকায় রূপান্তরিত করে নেয়া যায়, তাদেরকে তরল পুঁজি বলে, যেমন --- সমাপ্ত পণ্য, স্টক, বন্ড, ইত্যাদি। অন্যদিকে দালানকোঠা, যন্ত্রপাতি, ইত্যাদি যেসব সম্পদ সহজেই নগদ টাকায় রূপান্তর করে নেওয়া যায় না, তাদেরকে জমাট পুঁজি বলে।

প্রাথমিক অর্থনৈতিক ধারণা - সম্পাদনা

ক্রমহ্রাসমান উৎপাদন বিধি (Law of Diminishing returns)  • পুঁজি (Capital)  • প্রান্ত (Margin)  • প্রান্তিক উপযোগ (Marginal Utility)  • বন্টনতত্ত্ব (Distribution theory)  • ব্যষ্টিক অর্থশাস্ত্র (Microeconomics)  • যোগান ও চাহিদা (Supply and Demand)  • লেসে-ফেয়ার (Laissez-faire)  • শ্রমবিভাগ (Division of Labor)  • সমষ্টিক অর্থশাস্ত্র (Macroeconomics)